ক্ষমতায় এলে কি সত্যিই ঘরে ঘরে স্কুটি! সৌমিত্রের প্রতিশ্রুতি নিয়ে কী বলল বিজেপি?

বিডেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: গত ২৭ জানুয়ারি পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষের সভায় বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ দাবি করেছিলেন, রাজ্যে ক্ষমতায় এলে বিজেপি ঘরে ঘরে স্কুটি দেবে৷ ঠিক যেভাবে অসমে পড়ুয়াদের সাইকেল দিচ্ছে বিজেপি সরকার৷ কিন্তু সৌমিত্রের এই দাবি যে নিতান্তই তাঁর ব্যক্তিগত মত, তা স্পষ্ট করে দিল বিজেপি৷ এমন কোনও প্রতিশ্রুতি বিজেপি-র তরফে যে দেওয়া হচ্ছে না, তা জানিয়ে দিলেন দলের মুখপাত্র এবং রাজ্যের অন্যতম নেতা শমীক ভট্টাচার্য৷

    খণ্ডঘোষের সভা থেকে সৌমিত্র বলেছিলেন, 'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার পড়ুয়াদের সাইকেল দিচ্ছে৷ আমরা ক্ষমতায় এলে সাইকেল নয়, ঘরে ঘরে স্কুটি দেওয়া হবে৷ যেমন অসমে রাজ্য সরকার দিয়েছে৷'

    সোমিত্রের এই দাবি ঘিরে রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়ে বিজেপি শিবির৷ কোনওরকম আলোচনা না করেই এমন প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় সৌমিত্রের উপরে যথেষ্ট ক্ষুব্ধ হয় দল৷ সৌমিত্রের এই দাবি যে নিতান্তই ব্যক্তিগত মত, তা স্পষ্ট করে দেয় রাজ্য বিজেপি৷ রাজ্য বিজেপি-র মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, 'দল এমন কোনও সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে আমার জানা নেই৷ এই ধরনের দাবিকে দল সমর্থনও করে না৷ বিজেপি-র নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কী হবে, দলের ইস্তেহারেই তা বলা থাকবে৷'

    শুধু স্কুটি নিয়ে প্রতিশ্রুতিই নয়, ওই একই সভা থেকে টালিগঞ্জের অভিনেত্রীদের একাংশকে যৌনকর্মী বলে কটাক্ষ করেছিলেন সৌমিত্র৷ যা নিয়ে বিভিন্ন মহল থেকেই বিজেপি সাংসদের সমালোচনা শুরু হয়৷ এই ইস্যুতেও সৌমিত্রের পাশে দাঁড়ায়নি দল৷ সৌমিত্রের এই মন্তব্যের জন্য দলের তরফে ক্ষমা চেয়ে নেন শমীক ভট্টাচার্য৷ দলের সাংসদের মন্তব্যের সমালোচনা করেই তিনি বলেন, 'দল এই ধরনের মন্তব্যকে অনুমোদন করে না৷ যাঁদের উদ্দেশে এই মন্তব্য করা হয়েছে তাঁদের এবং তাঁদের পরিবারের কাছে আমি দলের পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি৷' ফলে একের পর এক বিতর্কের মুখে দলের মধ্যেই প্রবল চাপে বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: