Home /News /kolkata /
Bhowanipur Murder: শেষ মুহূর্তে কি বাঁচার জন্য চেষ্টা করেন নিহত অশোক শাহ? হাতে মুঠো করা লোহার অংশে কিসের ইঙ্গিত?

Bhowanipur Murder: শেষ মুহূর্তে কি বাঁচার জন্য চেষ্টা করেন নিহত অশোক শাহ? হাতে মুঠো করা লোহার অংশে কিসের ইঙ্গিত?

ওই লোহার টুকরো ঘরে থাকা মূর্তির হাতে ছিল বলে অনুমান গোয়েন্দাদের। সিসি ক্যামেরায় দুজনকে ছাতা মাথায় দিয়ে বেরোতে দেখা যায়, গোয়েন্দাদের দাবি৷

  • Share this:

#কলকাতা: ভবানীপুর খুনে চাঞ্চল্যকর তথ্য। অশোক শাহ খুনের সময় আততায়ীর থেকে আত্মরক্ষার জন্য চেষ্টা করেছিলেন বলে গোয়েন্দাদের অনুমান। ঘরে একাধিক মূর্তি ছিল। সেই মূর্তি হাতে লোহার টুকরো কিছু জিনিস ধরা ছিল। ওই লোহার জিনিস অশোকের হাতে মুঠ করে ধরা ছিল বলে গোয়েন্দা সূত্রে খবর। গোয়েন্দাদের অনুমান, যখন আততায়ীরা খুন করতে আসে তখন অশোক তাদের বাঁধা দেওয়ার চেষ্টা করে। অর্থাৎ আত্মরক্ষার চেষ্টা করেছিলেন বলে অনুমান গোয়েন্দাদের।

আরও পড়ুন Death News: নেশামুক্ত হতে গিয়ে প্রাণ গেল এক ব্যক্তির, যা অভিযোগ...

এলাকায়  সিসি ক্যামেরা যে ফুটেজ মিলেছে সেখানে দু’জন ছাতা মাথায় দিয়ে বৃদ্ধ দম্পতির গলি থেকে বেরোচ্ছে এমন ছবি ধরা পড়েছে বলে গোয়েন্দাদের দাবি। তারা কারা? সে সময় তারা ওখানে কি করতে গিয়েছিল?  তারা যে রাস্তা ধরে বেরোয় সেই রাস্তা দিয়ে পুলিশ কুকুর কিছুটা পথ যায় বলে পুলিশ সূত্রে খবর।  পুলিশের অনুমান, আততায়ী হয়তো জানতো বাড়িতে টাকা রয়েছে৷ সেটা হাতাবার জন্য কি খুন? নাকি যে প্রত্যাশা করে এসেছিলো টাকার আশায় তা না মেলাতে নৃশংস ভাবে খুন? নিহত মহিলা রস্মিতা শাহ মাথার পিছনে গুলি করে হত্যা, এবং স্বামী অশোককে ভোঁতা কিছু দিয়ে আঘাত করে হত্যা বলে ময়না তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। মোবাইল কল লিস্ট ও সিসি ক্যামেরা ফুটেজ, পুলিশের সব থেকে বড় হাতিয়ার। তার মধ্যে দিয়েই পুলিশ আততায়ীর খোঁজ করছে।

আরও পড়ুন Crime News: বগটুই অগ্নিসংযোগকাণ্ডে তৃতীয় স্ট্যাটাস রিপোর্ট ও ভাদু শেখ খুনে দ্বিতীয় স্টেটাস রিপোর্ট হাইকোর্টে পেশ করবে CBI

বৃদ্ধ দম্পতি খুনের ঘটনায় নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। আতঙ্কিত বাসিন্দারা। এর আগে ১৪ফেব্রুয়ারি ২০২২ সালে শান্তিলাল বৈদ্য খুন হন হোটেলে৷  লি রোড  এলগিনের কাছে একটি গেস্ট হাউস থেকে উদ্ধার হয় দেহ। ১৭ অক্টোবর ২০২১সালে সুবীর চাকি ও ড্রাইভার খুন হন গড়িয়াহাটে।২০২১সালে ২ রা নভেম্বর শেক্সপীয়ার সরণির রেণুকা চৌধুরী বৃদ্ধা খুন ফ্ল্যাটে। ২৯ডিসেম্বর  ২০২১ সালে উর্মিলা জুন্ড গড়চা  খুন হন বালিগঞ্জ ফাঁড়ি, গড়িয়াহাট এলাকায়। ২০২২ মে মাসে বিজয় গড় নিধীর চন্দ্র কুন্ডু, যাদবপুর থানা এলাকায় দেহ উদ্ধার হয়। সম্প্রতি পর পর বৃদ্ধ বৃদ্ধা খুনের ঘটনায় আতঙ্কিত শহরের অনেক বয়স্ক ব্যক্তিরাই।

Published by:Pooja Basu
First published:

Tags: Bhowanipur, Murder

পরবর্তী খবর