Home /News /kolkata /
Babul Supriyo: গেরুয়া অতীত, সবুজও নয়, পরনে সাদা! বালিগঞ্জে রঙ-বিচারের 'নতুন ব্যাখ্যায়' চমক বাবুলের

Babul Supriyo: গেরুয়া অতীত, সবুজও নয়, পরনে সাদা! বালিগঞ্জে রঙ-বিচারের 'নতুন ব্যাখ্যায়' চমক বাবুলের

বালিগঞ্জে বাবুল সুপ্রিয়

বালিগঞ্জে বাবুল সুপ্রিয়

Babul Supriyo: বাবুল সুপ্রিয় বলেন, "আজ আমার 'কমপ্লিমেন্ট' একটাই, সকালে বাড়ি থেকে বেরোনোর সময়ে আমার আজকের পোষাক দেখে বাবা বললেন, "বাহ্ মনে হচ্ছে তুই বোম্বেতে আবার রেকর্ড করতে যাচ্ছিস।"

  • Share this:

#কলকাতা : রাজ্যের উপনির্বাচনে কড়া নিরাপত্তায় শুরু হয়ে গিয়েছে ভোটগ্রহণ-পর্ব। বালিগঞ্জ, আসানসোলে রয়েছে আঁটোসাঁটো নিরাপত্তা বলয়। ভোটগ্রহণ পর্ব যাতে সুষ্ঠুভাবে হয়, তার জন্য নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে বালিগঞ্জের (Ballygunge By Election) বিভিন্ন ভোটগ্রহণ কেন্দ্র। মোতায়েন করা হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী।

আরও পড়ুন : কড়া নিরাপত্তায় শুরু বালিগঞ্জ, আসানসোলে উপ-নির্বাচন, সকাল থেকেই লাইনে ভোটদাতারা...

এদিন সকাল সকাল বালিগঞ্জে দেখা মিলল তৃণমূলের প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়র (Babul Supriyo)। পরনে ছিল সাদা ফুল শার্ট ও কালো প্যান্ট। নিজেই ব্যাখ্যা দিয়ে জানালেন রঙ বিচারের আসল কারণ। "আজ সাদা জামা পড়ে বেরিয়েছি। এই সাদা জামার ব্যাখ্যা আপনারা আপনাদের মতো করতেই পারেন। তবে আমার জন্যে এর একটাই ব্যাখ্যা, আসানসোল থেকে বেরিয়েছিলাম সাদা স্বচ্ছ ভাবমূর্তি নিয়ে। আমাদের মেরুদণ্ড ছিল। আমার ও শত্রুঘ্ন সিনহার। তাই নিজেদের সব ছেড়ে বেরিয়ে এসেছি। কাল অনেক রাত অবধি শত্রুঘ্ন সিনহার সাথে কথা হল। উনি আসানসোল জিতবেন।"

বালিগঞ্জে তৃণমূলের প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয় বালিগঞ্জে তৃণমূলের প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়

বালিগঞ্জে (Ballygunge By Election) জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo) আরও বলেন, "এখানে আমার বিরুদ্ধে অনেক বিতর্ক তৈরি করা হয়েছিল। আমি আগে ৭০% মানুষের ছিলাম। আমি এখন ১০০% মানুষের সাথে আছি। আমি আমার চেষ্টা করেছি এখানে। দলের সবাই আমার সঙ্গে লড়েছে। আজ আমার 'কমপ্লিমেন্ট' একটাই, সকালে বাড়ি থেকে বেরোনোর সময়ে আমার আজকের পোষাক দেখে বাবা বললেন, "বাহ্ মনে হচ্ছে তুই বোম্বেতে আবার রেকর্ড করতে যাচ্ছিস।"

প্রসঙ্গত, এবারে বালিগঞ্জ (Ballygunge By Election) কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে ভোটে লড়ছেন বাবুল সুপ্রিয়। বিজেপি প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন কেয়া ঘোষ। সিপিএম প্রার্থী হিসেবে ভোটে লড়ছেন সায়েরা শাহ হালিম ও কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে ভোটে লড়ছেন কামারুজ্জান চৌধুরী। এবারে চতুর্মুখী লড়াই হতে চলেছে এই বালিগঞ্জ কেন্দ্রে। এখন দেখার বালিগঞ্জ কেন্দ্রে ভোটাররা জনপ্রতিনিধি হিসেবে কাকে বেছে নেয়।

আরও পড়ুন : পয়লা বৈশাখের আগেই রাজ্যজুড়ে কাঁপিয়ে ঝড়-বৃষ্টি! বৃহস্পতিবার থেকে যা হতে চলেছে বাংলার আবহাওয়া...

নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, এবারে বালিগঞ্জ কেন্দ্রে মোট ভোটারের সংখ্যা প্রায় আড়াই লাখ। মোট ৩০০টি বুথ রয়েছে। তার মধ্যে ২৩টি স্পর্শকাতর বুথ। প্রতিটি বুথে মোতায়েন রয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। মোট ১৭ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। প্রতিটি বুথে ও বুথের বাইরে ২০০ মিটারের মধ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন রাখা হয়েছে। প্রতিটি বুথে দু'জন করে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন থাকবে বলে নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে আগেই। ২০০ মিটারের বাইরে রাজ্য পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনী দুই–ই থাকবে। বিরোধীরা অনেক দিন ধরেই দাবি জানিয়ে আসছিল, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে দিয়েই ভোট করাতে হবে। কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকলে সুষ্ঠুভাবে ভোট করানো সম্ভব নয়। বিরোধীদের দাবি মেনেই নির্বাচন কমিশনের তরফে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Babul supriyo, Ballygung By Election 2022, Ballygunge

পরবর্তী খবর