• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ২০১৮ -র ছবিটা বদলালো না, ২০১৯ র শুরুতেই দাপট দেখাচ্ছে দূষণ অবাধ

২০১৮ -র ছবিটা বদলালো না, ২০১৯ র শুরুতেই দাপট দেখাচ্ছে দূষণ অবাধ

Photo: PTI

Photo: PTI

  • Share this:

    #কলকাতা: ২০১৯ -র শুরুটা মোটেই ভালো হল না কলকাতাবাসীর ৷ দূষণের দাপুটে ইনিংসে কাঁপছে কলকাতা ৷ দূষণের মাত্রা এতটাই বেশি যে নিঃশ্বাস নেওয়ায় দায় হয়ে যাচ্ছে ৷

    কলকাতা শহরে দূষণের মাত্রা ক্রমশই বাড়ছে৷ যতই সময় এগোচ্ছে শহরের বায়ু দূষণ চিন্তার কারণ হয়ে উঠছে। সেই ইঙ্গিত আরও একবার মিলল মঙ্গলবার। শহরের উত্তর এবং দক্ষিণ কলকাতার কয়েকটি জায়গার বায়ু দূষণ ‘ভয়াবহ' হয়ে উঠেছে বলে দেখা গিয়েছে।

    RBU quality index

    উত্তর কলকাতার রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় এবং ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল থেকে তিলোত্তমার দূষণ পরিমাপের কাজ হয়ে থাকে। এই দুই কেন্দ্র থেকেই মঙ্গলবার যে তথ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের কাছে গিয়ে পৌঁছেছে তা তাঁদের চিন্তা বাড়িয়েছে বেশ খানিকটা। রবীন্দ্রভারতীতে বসানো যন্ত্র বলছে দুপুর ৩টে নাগাদ দূষণের মাত্রা ছিল ৪০২ একক আর ওই একই সময় ভিক্টোরিয়ার দূষণ ছিল ৩৩৪ একক।

    Victoria quality index

    বাতাসে দূষণের মাত্রা বোঝা যায় ‘‌এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স'‌, বা একিউআই সূচকের সাহায্যে৷ একিউআই যত বেশি হয়, দূষণের মাত্রাও তত বেশি বলে ধরে নিতে হয়৷ একিউআই শূন্য থেকে ৫০ মানে বাতাসের মান খুবই ভালো৷ ৫০ থেকে ১০০ হলে তুলনায় একটু কম ভালো৷ ১০১ থেকে ১৫০ মানে, যাঁদের শ্বাসকষ্ট বা ওই জাতীয় সমস্যা আছে, তাঁদের জন্যে খারাপ৷ ১৫১ থেকে ২০০ হলে অস্বাস্থ্যকর৷ ২০১ থেকে ৩০০ মানে অতি অস্বাস্থ্যকর৷ আর ৩০১ থেকে ৫০০-র মধ্যে একিউআই থাকলে ক্ষতিকর৷

    গোটা ঘটনায় স্বভাবতই চিন্তিত পরিবেশবিদরা। ডিজেলচালিত গাড়িই দূষণের মূল কারণ এমনই মত পরিবেশবিদদের। বর্জ্য পদার্থ জ্বালিয়ে ফেলার মতো বিষয়ের জন্য দূষণ এতটা ভয়াবহ আকার ধারন করেছে।

    গত বছর নভেম্বর মাস থেকে বেশ কয়েকবার এমন হয়েছে যেখানে কলকাতা ছিল সবচেয়ে দূষিত মেট্রো শহর। নভেম্বরের ২৪ , ২৫ আর ২৬ তারিখেও দূষণের দিক থেকে দিল্লিকে টপকে গিয়েছিল কলকাতা ৷ দীপাবলির সপ্তাহে ও পরবর্তী এক সপ্তাহের দূষণেও দিল্লিকে ছাপিয়ে গিয়েছিল কলকাতা।

    ডিসেম্বর মাসেও বেশ কয়েকবার এমন হয়েছে দূষণের নিরিখে দিল্লিকে ছাপিয়ে গেছে কলকাতা।

    First published: