হোম /খবর /জলপাইগুড়ি /
বিরল অস্ত্রোপচারে সাফল্য, নতুন পথ দেখাচ্ছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ

Critical Operation at NBMCH: বিরল অস্ত্রোপচারে সাফল্য, নতুন পথ দেখাচ্ছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ

X
চিকিৎসা [object Object]

পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম ওই মহিলা রোগীকে রাতারাতি অস্ত্রোপচার করে প্রাণে বাঁচিয়ে নজির স্থাপন করল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসকরা

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: এক বিরল অস্ত্রোপচারের সাক্ষী থাকল শিলিগুড়ি। আর সেই শুশ্রুষায় প্রাণে বাঁচলেন এক প্রবীণ মহিলা। মহিলার বুকে এফোর ওফোর হয়ে ঢুকে যায় একটি বাঁশ।আর সফলতার সঙ্গে তা বের করে ফের চিকিৎসা ক্ষেত্রে গোটা রাজ্যে শিলিগুড়ির মুখ উজ্জ্বল করল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। ঘটনা প্রসঙ্গে, পথ দুর্ঘটনায় বুকে বিঁধে যায় বাঁশ। মহিলার বুকের এফোর ওফোর হয়ে ঢুকে যায় সেটি। তারপরই অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকেরা। পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম ওই মহিলা রোগীকে রাতারাতি অস্ত্রোপচার করে প্রাণে বাঁচিয়ে নজির স্থাপন করল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অ্যানাস্থেশিয়া বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর ডাঃ অভিষেক গাঙ্গুলী এবিষয়ে বলেন, 'আমাদের এখানে ৫৫ বছরের এক মহিলা, শোভাদেবী আসেন রাত ১টায়। ওঁর বাঁদিকের বগল থেকে এসে পিঠ থেকে এফোর ওফোর হয়ে যায় বাঁশটি। তিনি এদিন দুপুরেই একটি দুর্ঘটনায় এইভাবে জখম হন। তাঁর বাড়ি পাঞ্জিপাড়ায়। তিনি দুর্ঘটনাস্থল থেকে পূর্ণিয়া যান চিকিৎসার জন্য।সেখান থেকে রাতে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। আমরা রাত তিনটের মধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি যে এই রোগীকে সকাল পর্যন্ত রাখা যাবে না। পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে যেতে পারে। তাই আমরা তখনই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি যে এই অস্ত্রোপচার করতে হবে। আমরা সেখানে সমস্ত ব্যবস্থা করি।' তিনি বলেন, 'অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং ছিল এই কাজ। সকাল সাড়ে ৬টায় এই অপারেশন শেষ করি। বিভিন্ন জায়গায় ফ্র্যাকচার ছিল। তার সঙ্গে ব্লাড লস (blood loss) নিয়েও আমরা চিন্তায় ছিলাম। আপাতত মেকানিক্যাল ভেনটিলেশনে (mechanical ventilation) রাখা হয়েছে। শীঘ্রই তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরবেন।'

Published by:Samarpita Banerjee
First published:

Tags: North Bengal Medical college and hospital, Siliguri