• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • ipl
  • »
  • NEW ZEALAND FAST BOWLER TRENT BOULT POST EMOTIONAL MESSAGE ON SOCIAL MEDIA FOR INDIA RRC

রোজ প্রার্থনা করব ভারতের জন্য, দেশে পৌঁছে বললেন বোল্ট

ভারতের জন্য প্রার্থনা করবেন বোল্ট

ভারতবাসীর জন্য প্রার্থনা করে যাবেন প্রতিদিন। ক্রিকেট মাঠে যেমন একজন ক্রিকেটার শেষ বল না হওয়া পর্যন্ত লড়াই ছাড়ে না, তেমন করেই ভারতীয়দের করোনার বিরুদ্ধে লড়তে অনুপ্রাণিত করছেন বোল্ট

  • Share this:

    #অকল্যান্ড: মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলের ফাস্ট বোলিং বিভাগে জসপ্রীত বুমরা যদি সবচেয়ে দামি অস্ত্র হয়ে থাকেন, তাহলে তিনি হলেন দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ পেসার। এবারের আইপিএলে বুমরাকে ছাপিয়ে গিয়েছিলেন দুর্দান্ত পারফর্ম করে। কখনও সুইং, কখনও ইয়র্কার, আবার কখনও স্লো বাউন্সার মিশিয়ে ব্যাটসম্যানদের কাজ কঠিন করে তুলেছিলেন ট্রেন্ট বোল্ট। চেন্নাইয়ের মেরিনা সমুদ্র সৈকতে সার্ফিং করেছেন চুটিয়ে। ভারত তাঁর অন্যতম প্রিয় দেশ। শুধু অর্থ রোজগার করেন বলেই নয়, এই দেশের সংস্কৃতি এবং মানুষ তাঁর খুব পছন্দ।

    টোকিও হয়ে নিউজিল্যান্ড পৌঁছেছেন বেশকিছু ক্রিকেটার। আরও দুই ভাগে পৌঁছবেন বাকিরা। কোভিডের কারণে মাঝপথেই আইপিএল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দেশে ফিরতে হলেও ভারতের পরিস্থিতি দেখে বুক ফেটে যাচ্ছে ট্রেন্ট বোল্টের। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিউজিল্যান্ডের জোরে বোলার লেখেন, ‘ভারতীয়দের কথা ভাবলেই আমার বুক ফেটে যাচ্ছে। ক্রিকেটার হিসেবে এই দেশ থেকে আমি অনেক কিছুই পেয়েছি। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলার সময় সমর্থকদের অনেক ভালবাসা পেয়েছি। সুযোগ পেলেই ভারতে ফিরতে চাইব। আশা করব ভারত দ্রুত এই অবস্থা কাটিয়ে উঠবে’।

    নিরাপদে ভারত থেকে নিউজিল্যান্ডে পৌঁছতে পারায় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স কর্তাদের কৃতিত্ব দিয়েছেন বোল্ট। তিনি লেখেন, ‘আমাদের নিরাপদে বাড়ি অবধি আসার ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে ধন্যবাদ। ক্রিকেটার এবং তাঁদের পরিবার তোমাদের কাছে এতটা গুরুত্ব পায় দেখে খুব ভাল লাগল’। ঘরে ফিরলেও ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে হয়ত দলে থাকবেন না বোল্ট। দীর্ঘ দিন জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকার ফলে মানসিক চাপ বাড়ছে খেলোয়াড়দের মধ্যে।

    দীর্ঘদিন পরিবার ছেড়ে থাকার ফলে অনেকেই অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ছেন। পরিবারকে সময় দিতে চেয়ে ১৮ জুন থেকে শুরু হওয়া ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্টে খেলবেন না তিনি। আপাতত একঘেয়েমি কাটাতে চান। কিন্তু জানিয়ে দিলেন ভারতবাসীর জন্য প্রার্থনা করে যাবেন প্রতিদিন। ক্রিকেট মাঠে যেমন একজন ক্রিকেটার শেষ বল না হওয়া পর্যন্ত লড়াই ছাড়ে না, তেমন করেই ভারতীয়দের করোনার বিরুদ্ধে লড়তে অনুপ্রাণিত করছেন বোল্ট।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: