• Home
  • »
  • News
  • »
  • ipl
  • »
  • IPL AUCTION 2021 CHRIS MORRIS IS THE MOST EXPENSIVE PLAYER IN THE IPL HISTORY EVER DD

IPL Auction 2021: আইপিএলের দামীতম প্লেয়ার হলেন ক্রিস মরিস, বিক্রি হলেন ১৬.২৫ কোটিতে

Photo- File

কাঁপিয়ে দিলেন সব পরিসংখ্যান, আইপিএলে এখন দামীতম প্রোটিয়া ক্রিকেটার৷

  • Share this:

    #চেন্নাই:  দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডার ক্রিস মরিসকে গত মরশুমে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর কিনেছিল ১০ কোটি টাকা দিয়ে৷ আর এবারে তাঁকে ১৬.২৫ কোটি টাকা দিয়ে কিনে আইপিএলের সমস্ত রেকর্ড ভেঙেচুরে দিল৷ গত আইপিএলের পরে একটিও ম্যাচ না খেলে এই দর পেলেন তিনি৷

    গত মরশুমে ৯ টি ম্যাচ খেলে ৩৪ রান করেছিলেন নিয়েছিলেন ১২ টি উইকেট৷ তাঁর ফিটনেস নিয়ে অনেক সময়েই সমস্যা হয়, তাই সেটা একটা চিন্তার বিষয় হতে পারে৷

    কিন্তু ়যখন তাঁকে নিয়ে দড়ি টানাটানি হচ্ছিল তখন মোটেই এসব কথা মনে হয়নি৷ প্রোটিয়া এই অলরাউন্ডারের জন্য ঝাঁপিয়ে ছিল প্রীতি জিন্টার পঞ্জাব কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালস৷

    এর আগের দামীতমরা ছিলেন

    ১) যুবরাজ সিং (Yuvraj Singh), ১৬ কোটি, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস (Delhi Daredevils), সাল ২০১৫

    ২০১৫ সালে সকলকে চমকে দিয়ে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস (অধুনা দিল্লি ক্যাপিটালস)৷ ১৬ কোটি টাকায় তারা দলে নিয়েছিল ভারতীয় দলের জোড়া বিশ্বকাপ জয়ী স্টার অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংকে৷ কিন্তু যুবরাজের পারফরম্যান্স আর দামের মধ্যে ছিল জমিন-আসমানের ফারাক৷ সেবার ১৪ ম্যাচে মাত্র ১৯.০৭-এর গড়ে যুবি ২৪৮ রান করেছিলেন ১১৮.০৯-এর স্ট্রাইক রেটে৷ ফিফটি ছিল দু'টি৷

    ২) প্যাট কামিন্স (Pat Cummins), ১৫.৫ কোটি, কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders), সাল ২০২০

    গতবছর বিশ্ব কাঁপানো অজি ফাস্টবোলার প্যাট কামিন্সকে সাড়ে ১৫ কোটি টাকায় দলে নেয় কেকেআর (KKR)৷ তিনিই এখনও পর্যন্ত আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দামি বিদেশি ক্রিকেটার৷ ব্রিটিশ স্টার বেন স্টোকসকে ছাপিয়ে যান তিনি৷ ৩) বেন স্টোকস (Ben Stokes), ১৪.৫ কোটি, রাইজিং পুনে সুপারজায়েন্ট (Rising Pune Supergiant), সাল ২০১৭

    ৩) বেন স্টোকস 

    প্যাট কামিন্সের আগে বেন স্টোকসই ছিলেন আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে দামি বিদেশি ক্রিকেটার৷ রাইজিং পুনে সুপারজায়েন্ট তাঁকে সাড়ে ১৪ কোটি টাকায় দলে নেয়৷ স্টোকস ইতিমধ্যেই ব্যাটে-বলে অসাধারণ সব পারফরম্যান্সে নিজের আলাদা নাম করে নিয়েছেন বাইশ গজে৷ এই মুহূর্তে তিনে বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার৷

    ৪) যুবরাজ সিং (Yuvraj Singh), ১৪ কোটি, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর (Royal Challengers Bangalore), সাল ২০১৪

    ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ ও ২০১১ সালের ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের স্টার ছিলেন যুবরাজ৷ ফলে বিরাট কোহলির টিম তাঁকে এই দামে নিতে দু'বার ভাবেনি৷ ২০১৪ সালে যুবিই ছিলেন আইপিএলের সবচেয়ে দামি ক্রিকেটার৷

    ৫) বেন স্টোকস (Ben Stokes), ১২.৫ কোটি, রাজস্থান রয়্যালস (Rajasthan Royals), সাল ২০১৮ যুবরাজের মতোই স্টোকসও আইপিএলের নিলামে দ্বিতীয় সবচেয়ে দামি ক্রিকেটার হয়ে যান৷ দু'বছর আগে রাজস্থান তাঁকে সাড়ে ১২ কোটি টাকায় নিয়ে কোনও ভুলই করেনি৷ স্টোকস ততদিনে নিজের নাম করে নিয়েছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৬) দীনেশ কার্তিক (Dinesh Karthik), ১২.৫ কোটি, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস (Delhi Daredevils), সাল ২০১৪

    ২০১৩ মরসুমে দীনেশ ১৯ ম্যাচে ৫১০ রান করেছিলেন৷ পরের মরসুমে দীনেশকে নেওয়ার জন্য অনেকেই ঝাঁপায়৷ কিন্তু অবশেষে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস তাঁকে সাড়ে ১২ কোটি টাকায় দলে নেয়৷ ৭) জয়দেব উনাদকাট (Jaydev Unadkat), সাড়ে ১১ কোটি, রাজস্থান রয়্যালস (Rajasthan Royals), সাল ২০১৪

    ২০১৭ মরসুমে জয়দেব উনাদকাট আগুন জ্বালিয়েছিলেন আইপিএলে৷ ১২ ম্যাচে ২৪ উইকেট তুলে নেন ১৩.৪১-এর গড়ে৷ তাঁর স্ট্রাইক রেট ছিল ১১.৪৫৷ অদ্ভুত ভাবে ওভার পিছু ৭.০২ করে রানে বেঁধে রেখেছিলেন! ২০১৮ সালের নিলামে উনাদকাটকে নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছিল৷ অবশেষে রাজস্থান তাঁকে দলে নিতে সক্ষম হয়৷

    ৮) গৌতম গম্ভীর (Gautam Gambhir), ১১.৪ কোটি টাকা, কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders), সাল ২০১১

    এই মরসুমে গম্ভীরকে দলের সঞ্চালকের ভূমিকায় পাওয়া গিয়েছিল৷ ১৫ ম্যাচে ৩৭৮ রান করেছিলেন তিনি৷

    ৯) কেএল রাহুল (KL Rahul), ১১ কোটি টাকা, কিংস ইলেভেন পঞ্জাব (Kings XI Punjab), সাল ২০১৮

    সেবার প্রীতি জিন্টার মুখে চওড়া হাসি ফুটিয়ে ছিলেন রাহুল৷ দলের সর্বোচ্চ স্কোরার ছিলেন রাহুল (১৪ ম্যাচে ৬৫৯ রান করেন ১৫৮.৪১ স্ট্রাইক রেটে)৷ এতটাই ধারাবাহিক ছিলেন তিনি যে, ৬টি অর্ধ-শতরানও করেন৷ দুরন্ত স্ট্রাইক রেট সঙ্গে বড় রান করার ক্ষমতা, রাহুলকে আরও ভয়ঙ্কর করে তোলে৷

    ১০) গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (Glenn Maxwell), ১০,৭৫ কোটি, কিংস ইলেভেন পঞ্জাব (Kings XI Punjab), সাল ২০২০

    অত্যন্ত হতশ্রী পারফরম্যান্স ছিল গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের৷ ১৩ ম্যাচে মাত্র ১০৮ রান করেন তিনি৷ স্ট্রাইক রেট ছিল ১০১.৮৮৷ এমনকী একটা ছয় পর্যন্ত মারেননি গোটা মরসুমে৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: