• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • ipl
  • »
  • IPL 2021 SOUTH AFRICAN CRICKETERS FELT ABSOLUTELY SECURED AT THE BIO SECURE BUBBLE SAYS GRAEME SMITH RRC

ভারতে নিশ্চিন্তে ছিল দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটাররা বলছেন স্মিথ

ভারতে চিন্তায় ছিলেন না দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটাররা

আইপিএল মাঝপথে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর অনেকেই জৈব সুরক্ষা বলয় নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। কিন্তু এই ব্যবস্থাকে দরাজ শংসাপত্র দিলেন গ্রেম স্মিথ।

  • Share this:

    #জোহানেসবার্গ: এক সময়ের দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক, অন্যতম সেরা বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। এই মুহূর্তে রয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটের ডিরেক্টরের পদে। গ্রেম স্মিথ। ডিভিলিয়ার্স থেকে শুরু করে ডু প্লেসি, রাবাডা থেকে শুরু করে ডেভিড মিলার, বেশ কয়েকজন দক্ষিণ আফ্রিকান খেলেছেন এবারের আইপিএলে। আগেই মুম্বই দলের ওপেনার কুইন্টন ডি কক জানিয়েছিলেন মনের কথা। করোনা পরিস্থিতির ভেতরেও ভারতের থাকতে তাঁর কোনও অসুবিধা নেই জানিয়েছিলেন তিনি। ভারতীয় ডাক্তার এবং চিকিৎসা ব্যবস্থার ওপর পূর্ণ আস্থা প্রকাশ করেছিলেন।

    আইপিএল মাঝপথে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর অনেকেই জৈব সুরক্ষা বলয় নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। কিন্তু এই ব্যবস্থাকে দরাজ শংসাপত্র দিলেন গ্রেম স্মিথ। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটের কর্তা জানিয়েছেন, তাঁর দেশের ক্রিকেটাররা নিরাপদেই ছিলেন। গত ৪ মে বন্ধ হয়ে যায় আইপিএল। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটাররা ইতিমধ্যেই জোহানেসবার্গের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। স্মিথ বলেছেন, “আমি ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলেছি। ওরা জানিয়েছে, বলয়ে প্রত্যেকে নিরাপদেই ছিল। ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে এমনটা কখনও মনে হয়নি ওদের। কিন্তু সাবধানে থাকা সত্ত্বেও কোভিডকে এড়ানো গেল না”

    স্মিথ জানিয়েছেন, জৈব সুরক্ষা বলয় কখনওই সম্পূর্ণ নিরাপদ নয়। দেশে কোভিড ছেয়ে গেলে বলয়ে তার প্রবেশ আটকানো কঠিন। এক বার ভাইরাস বলয়ে ঢুকে পড়লে যে সমস্যা অনেকটাই বেড়ে যায়, সেটাও মেনে নিয়েছেন স্মিথ। তবে ভারতকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন তিনি। বলেছেন, “প্রত্যেকে যাতে নিরাপদে বাড়ি ফেরে, সেটার উপর নজর রেখেছে ভারতীয় বোর্ড। আমাদের সীমান্ত বন্ধ ছিল না। বাণিজ্যিক বিমানও চালু রয়েছে। তাই কোনও ক্রিকেটার বা ক্রিকেটের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের ফিরতে অসুবিধা হবে না।”

    একটা সময় দক্ষিণ আফ্রিকাকেও ভাইরাসের নতুন স্ট্রেন পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু সে দেশের সরকার দক্ষতার সঙ্গে পরিস্থিতি সামাল দিয়েছে। স্মিথ মনে করেন ভারতের বিশাল জনসংখ্যা আর দক্ষিণ আফ্রিকার হাতেগোনা জনসংখ্যা রোগ সামাল দেওয়ার ক্ষেত্রে একটা বড় কারণ। ভারতীয় বোর্ড, ক্রিকেটার এবং সাধারণ মানুষের প্রতি শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। তাঁর অন্যতম প্রিয় দেশ ভারত এই দুর্দিন কাটিয়ে উঠবে আশাবাদী তিনি।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: