• Home
  • »
  • News
  • »
  • ipl
  • »
  • প্রাক্তন সতীর্থ অশ্বিনকে টপকে নয়া রেকর্ড গড়ার মুখে ব্রাভো

প্রাক্তন সতীর্থ অশ্বিনকে টপকে নয়া রেকর্ড গড়ার মুখে ব্রাভো

নতুন রেকর্ডের সামনে ডোয়েন ব্রাভো৷

নতুন রেকর্ডের সামনে ডোয়েন ব্রাভো৷

সম্প্রতি টি-২০ ফর্ম্যাটে প্রথম বোলার হিসেবে ৫০০ উইকেট নিয়েছেন ব্র্যাভো।

  • Share this:

#দুবাই: পারফরম্যান্স হোক কিংবা সেলিব্রেশন, IPL-এ সর্বদাই ক্রীড়াপ্রেমীদের নজর কাড়েন ডোয়েন ব্রাভো। চেন্নাই সুপার কিংগসের এই তারকা খেলোয়াড় যে কোনও সময়ে ম্যাচের রং বদলে দিতে সক্ষম। সব ঠিক থাকলে এবারের IPL-এর প্রথম দিনেই CSK-র ইতিহাসে নতুন রেকর্ড লিখতে চলেছেন তিনি। কারণ অশ্বিনের রেকর্ড ভেঙে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হওয়ার পথে দাঁড়িয়ে রয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি টি-২০ ফর্ম্যাটে প্রথম বোলার হিসেবে ৫০০ উইকেট নিয়েছেন ব্র্যাভো। তবে বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সাতদিনের কোয়ারেন্টাইন জীবন কাটাচ্ছেন। IPL-এ অভিষেকের প্রথম দিন থেকেই তাঁর পারফরম্যান্সে বারবার মুগ্ধ করেছেন এই অলরাউন্ডার। তাঁর CSK যাত্রায় ১০৩ ম্যাচে এপর্যন্ত নিজের নামের সঙ্গে ১১৮ টি উইকেট জুড়ে ফেলেছেন। অন্যদিকে অফস্পিনার অশ্বিনের খাতায় ১২১ ম্যাচে ১২০টি উইকেট রয়েছে। পরিসংখ্যান বলছে, প্রাক্তন সতীর্থ রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে পিছনে ফেলতে এই ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডারের আর মাত্র তিনটি উইকেট দরকার। উল্লেখ্য IPL-এ ১৫০ উইকেট নেওয়া থেকেও আর ৩ উইকেট দূরে রয়েছেন ব্র্যাভো। এখনও পর্যন্ত তাঁর ঝুলিতে ১৪৭টি উইকেট।

এবারের IPL শুরু হওয়ার আগেই অল্প বিস্তর ধাক্কা সামলাতে হচ্ছে চেন্নাইকে। কারণ ইতিমধ্যেই টিমের সফর সঙ্গীদের বেশ কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন৷ এর মাঝে সুরেশ রায়না ও হরভজন সিংয়ের মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা আপাতত ব্যক্তিগত কারণে টুর্নামেন্টের বাইরে রয়েছেন। যদিও সেই ধাক্কা সামলে শনিবার আইপিএল-এর উদ্বোধনী ম্যাচে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে নামতে তৈরি চেন্নাই৷ তাই এই পরিস্থিতিতে ব্রাভো যে অন্যতম ভরসা তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। অন্যদিকে দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে দেখা যেতে পারে ভারতের অন্যতম সেরা অফ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে। দিল্লিকে তিনি কতটা স্বস্তিতে রাখতে পারেন তার দিকেও তাকিয়ে রয়েছে ক্রিকেট মহল।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ। ৫৩ দিন ব্যাপী এই টুর্নামেন্ট আরব আমিরশাহির দুবাই, শারজা ও আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এক্ষেত্রে ২৪টি ম্যাচ দুবাই, ২০টি আবু ধাবি ও ১২টি ম্যাচ শারজাতে হবে। দিনের প্রথম ম্যাচ শুরু হবে বিকেল সাড়ে তিনটে থেকে। এবং সন্ধ্যার ম্যাচ শুরু হবে সাড়ে সাতটায়।

Published by:Debamoy Ghosh
First published: