Home /News /international /
তিব্বত, হংকং নিয়ে চিনকে হলুদ কার্ড দেখিয়ে রাখলেন মার্কিন বিদেশ সচিব ব্লিনকেন

তিব্বত, হংকং নিয়ে চিনকে হলুদ কার্ড দেখিয়ে রাখলেন মার্কিন বিদেশ সচিব ব্লিনকেন

মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে চিনকে সতর্ক করে দিলেন মার্কিন বিদেশ সচিব

মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে চিনকে সতর্ক করে দিলেন মার্কিন বিদেশ সচিব

তিব্বত, হংকং এবং জিনজিয়াং নিয়ে নিজেদের দমন-পীড়ন নীতি বদলাতে হবে ড্রাগনকে। সেরকম না ঘটলে আমেরিকা পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে।

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: চিনের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে চায় আমেরিকা। কিন্তু তার জন্য নিজেদের কিছু নীতি বদল করতে হবে চিনকে। সম্প্রতি এমন বার্তা দিয়েছেন মার্কিন বিদেশ সচিব টনি ব্লিনকেন। চিনের কেন্দ্রীয় বিদেশ বিষয়ক সংস্থার পরিচালক এবং প্রবীণ নেতা ইয়াং জিয়েসির সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন বিদেশ সচিব। সেখানেই তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন তিব্বত, হংকং এবং জিনজিয়াং নিয়ে নিজেদের দমন-পীড়ন নীতি বদলাতে হবে ড্রাগনকে। সেরকম না ঘটলে আমেরিকা পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে। বিভিন্ন স্থানে মানবাধিকার এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের পক্ষে অবস্থান অব্যাহত রাখবে ওয়াশিংটন। এমনকি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিভিন্ন অপকর্মের হিসেব নেওয়া হবে বলেও চিনের এই কূটনীতিককে তিনি সতর্ক করে দিয়েছেন।

    মায়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের নিন্দা জানানোর ব্যাপারেও চিনকে চাপ দিয়েছেন ব্লিনকেন। অনেকেই মনে করেন মায়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের পেছনে বেজিংয়ের হাত রয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছের নেত্রী সু চি -কে আটকে রেখে মায়ানমারে সেনাকে ক্ষমতা নিতে উদ্বুদ্ধ করেছে বেজিং। এছাড়াও তিব্বতে সম্প্রতি হেলিকপ্টার ড্রিল চালিয়ে সাধারণ মানুষকে ভয় দেখিয়েছে জিনপিং সরকার। হংকংয়ে প্রতিবাদ দমনের ক্ষেত্রে মানবাধিকার লংঘন করেছে তাঁরা। জিনজিয়াং অঞ্চলে উইঘুর মুসলমানদের অত্যাচার করা নতুন নয়। মহিলাদের ধর্ষণের অভিযোগ উঠছে নিয়মিত।

    আমেরিকা সব হিসেব নেবে বলেই হুমকি দিয়েছেন ব্লিনকেন। যদিও মার্কিন হুমকিতে চিন দমে না গিয়ে জানিয়েছে প্রত্যেকটি বিষয়ে চিনের অভ্যন্তরীণ। আমেরিকার কাছে উত্তর দিতে তাঁরা বাধ্য নয়। নিজেদের জাতীয় মর্যাদা এবং স্বার্থ রক্ষার ব্যাপারে কোনও চাপের কাছে নতি স্বীকার করতে রাজি নয় বেজিং।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: China, Tibet

    পরবর্তী খবর