ভালুকের গুহা থেকে এক মাস পর উদ্ধার জীবন্ত ব্যক্তি ! ভাইরাল ছবি...

ভালুকের গুহা থেকে এক মাস পর উদ্ধার জীবন্ত ব্যক্তি ! ভাইরাল ছবি...
photo source collected
  • Share this:

#রাশিয়া: শীতকালের জন্য খাবার সংগ্রহ করে রাখা ভালুকের স্বভাব। শীতে তারা নিজের গুহা থেকে বেরোয় না। এমনিতে ভালুক খুব অলস। তাই খাবার জমিয়ে রাখলে তারই সুবিধে। তাই বলে আস্ত একটা মানুষ জমিয়ে রাখবে? হ্যাঁ, এমনটাই করেছে রাশিয়ার তুভা অঞ্চলের এক ভালুক। আলেকজান্ডার নামের এক ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে যায় ওই ভালুক।

গুহাটিতে ওই ব্যক্তিকে 'শিকার' করে প্রায় আধমরা করে রেখে যায় একটি ভাল্লুক। লক্ষ্য ছিল, পরে ফিরে এসে শিকার আত্মসাৎ করার। ভাল্লুকের আক্রমণে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ক্ষত তৈরি হয়, ভেঙে যায় মেরুদণ্ড! দীর্ঘদিন এই অবস্থায় পড়ে থাকায় সংক্রমণ ছড়িয়েছে শরীরে। প্রায় টানা এক মাস ধরে আলেকজান্ডার এই গুহায় পড়ে রয়েছেন। পালিয়েও যেতে পারেননি। এই এক মাস তাঁর খাবার ছিল শুধুই নিজের মূত্র।

মারাই যেতেন আলেকজান্ডার যদি না ওই গুহার পাশ দিয়ে এক দল শিকারি ও শিকারি কুকুর না যেত! একটি গুহার পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাতই কুকুরগুলি ঢুকে পড়ে গুহার মধ্যে। পেছন পেছন শিকারিরাও। আর সেখানে ঢুকেই তাঁরা দেখতে পান, গুহার মধ্যে রয়েছে একটি মমি। তবে ভুল ভাঙতে সময় লাগল না। চোখ খুলে গেল 'মমির'। সঙ্গে বললেন নিজের নামও। সেইসঙ্গে সামনে এল এক ভয়ংকর অভিজ্ঞতার কথা। শিকারিরা বুঝলেন, মমি নয়, গুহার মধ্যে দীর্ঘদিন অনাহারে প্রায় কঙ্কালসার হয়ে গিয়েছে এই মানুষটির শরীর। তবে তিনি এখনও বেঁচে। তারাই উদ্ধার করে ওই জীবন্ত মমিকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবি এখন ভাইরাল।

First published: June 30, 2019, 10:26 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर