বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ছেলের নামেই বাজিমাত, ৬০ বছর পর্যন্ত বিনামূল্যে পিৎজা পাবেন বাবা-মা

ছেলের নামেই বাজিমাত, ৬০ বছর পর্যন্ত বিনামূল্যে পিৎজা পাবেন বাবা-মা

সদ্যোজাত খুলে দিল বাবা-মায়ের ভাগ্যের চাবি

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: সদ্যোজাত খুলে দিল বাবা-মায়ের ভাগ্যের চাবি। সন্তান আসার সঙ্গে সঙ্গেই AUD ১০,০৮০ মূল্যের অর্থাৎ ৬০ বছর পর্যন্ত ফ্রি-তে পিৎজা পাওয়ার এক আকর্ষণীয় পুরস্কার জিতে নিলেন বাবা-মা। আর এই এত কিছু সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র সদ্যোজাতর নামের জন্যই। কিন্তু কী ভাবে?

তবে গোড়া থেকেই বলা যাক! ক্লিমেটিন ওল্ডফিল্ড আর অ্যান্থনি লট তাঁদের প্রথম সন্তান নিয়ে খুব চিন্তায় ছিলেন। প্রায় ৭২ ঘণ্টা প্রসব যন্ত্রণার পর জন্ম নেয় ডোমিনিক। এ দিকে ৯ ডিসেম্বর ডোমিনিক জুলিয়ান লটের (Dominic Julian Lot) জন্মের ঘণ্টা দু'য়েক আগেই একটি মজার প্রতিযোগিতার কথা ঘোষণা করে ডোমিনোজ পিৎজা। সংস্থার ৬০তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন ঘিরে ডোমিনোজ পিৎজার তরফে ঘোষণা করা হয়, যদি ৯ ডিসেম্বর তারিখে কোনও পরিবারের প্রথম সন্তান জন্মগ্রহণ করে এবং তার নাম রাখা হয় ডোমিনিক, তা হলে সংশ্লিষ্ট ভাগ্যবান পরিবারটি একটি ক্যাশ কুপন জিতবে। সেই ক্যাশ কুপনের সাহায্যে ৬০ বছর পর্যন্ত বিনামূল্যে পিৎজা অর্ডার করে খেতে পারবেন তাঁরা। এ ক্ষেত্রে এক মাসের পিৎজার মূল্য AUD ১৪। সেই অনুযায়ী ৬০ বছরের পিৎজার মূল্য গিয়ে দাঁড়ায় AUD ১০,০৮০। ভারতীয় মুদ্রায় এই পুরস্কার মূল্যের পরিমাণ প্রায় ৫.৬১ লক্ষ টাকার সমান। আর ভাগ্যক্রমে সে দিনই জন্মায় ডোমিনিক। আর এই পুরস্কার জিতে নেন ক্লিমেটিন ওল্ডফিল্ড আর অ্যান্থনি লট। কারণ কাকতালীয়ভাবে তাঁদের প্রথম সন্তানের নাম রাখা হয় ডোমিনিক।

সম্প্রতি ডেইলি মেল-এ প্রকাশিত প্রতিবেদন থরকে জানা গিয়েছে, জন্মের আগেই কিন্তু বাবা-মা দু'জনে মিলে ছেলের এই নাম ঠিক করেছিলেন। ক্লিমেটিন এই ডোমিনিক নাম রাখার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। অ্যান্থনিরও পছন্দ হয় নামটি। মজার বিষয়টি হল, কাকুর জেরেই এই প্রতিযোগিতার অংশ হয়ে ওঠে সদ্যোজাত। দিন কয়েক আগে নবজাতকের কাকু ছোট্ট ডোমিনিকের ঠাকুমাকে এই প্রতিযোগিতা সম্পর্কে একটি মেসেজ পাঠিয়েছিলেন। ডোমিনিকের ঠাকুমাই দম্পতিকে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে বলেন। ডোমিনিক জন্ম নেওয়ার পর তড়িঘড়ি ডোমিনোজ পিৎজাকে তাঁদের সন্তানের বার্থ সার্টিফিকেট পাঠান ডোমিনিকের বাবা-মা আর প্রতিযোগিতাটি জিতে যান।

উপহার পেয়ে খুশি সদ্যোজাতর বাবা-মা। তাঁদের কথায়, হাসপাতালে সপ্তাহখানেক কাটানোর পর এই ধরনের উপহারে বেশ ভালো লাগছে। এই ক'দিন নানা ঝামেলা-ঝক্কি পোহাতে হয়েছে। কিন্তু ঘরে নতুন সদস্য আসার পাশাপাশি এই উপহার যেন এক আলাদা আনন্দ নিয়ে হাজির হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৬০ বছর আগে আমেরিকায় যাত্রা শুরু করেছিল ডোমিনোজ পিৎজা। অস্ট্রেলিয়ায় ইতিমধ্যে ৩৭ বছর পূর্ণ করে ফেলেছে এই সংস্থা। ডোমিনোজ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের CEO নিক নাইট জানিয়েছেন, ক্রেতাদের সমর্থন ছাড়া এই মাইলস্টোন ছুঁতে পারত না সংস্থা। প্রতিযোগিতার মাধ্যমে সংস্থা ও তার গ্রাহকদের মাঝে সম্পর্ক আরও দৃঢ় হয়ে উঠল। সংস্থার সাফল্যের আনন্দ ক্রেতাদের সঙ্গে ভাগ করে নিতেই নবজাতকের পরিবারকে এই আকর্ষণীয় বার্থ ডে গিফট দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি!

Published by: Rukmini Mazumder
First published: December 22, 2020, 4:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर