হোম /খবর /বিদেশ /
চিনা বাহিনীর সঙ্গে কাজ করছে পাক সেনার অফিসাররা! কড়া নজর রাখছে দিল্লি

Pakistani Army Officers Working in Chinese Army: চিনা বাহিনীর সঙ্গে কাজ করছে পাক সেনার অফিসাররা! কড়া নজর রাখছে দিল্লি

চিনা সেনার সঙ্গে কাজ করছে পাক বাহিনীর অফিসাররা৷ প্রতীকী ছবি, Photo-Reuters

চিনা সেনার সঙ্গে কাজ করছে পাক বাহিনীর অফিসাররা৷ প্রতীকী ছবি, Photo-Reuters

লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় এবং চিনা বাহিনী সেনা কমানোর প্রক্রিয়া শুরু করলেও এখনও সেখানে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ সেনা মোতায়েন করে রেখেছে পিএলএ (Pakistani Army Officers Working in Chinese Army)৷

  • Last Updated :
  • Share this:

#দিল্লি: চিনে গিয়ে সেদেশের সামরিক বাহিনীর সঙ্গে কাজ করছেন পাক সেনাবাহিনীর অফিসাররা (Pakistani Army Officers Working in Chinese Army)৷ এমনই তথ্য ভারতীয় গোয়েন্দাদের হাতে এসেছে৷ গোয়েন্দাদের হাতে আসা তথ্য অনুযায়ী, চিনা সেনার (PLA) ওয়েস্টার্ন থিয়েটার কম্যান্ড এবং সাউদার্ন থিয়েটার কম্যান্ডের সদর দফতরে পাকিস্তানের (Pakistan) সেনার এই লিয়াজোঁ অফিসারদের নিয়োগ করা হয়েছে৷ যাঁদের মূল কাজই হল দু' দেশের সামরিক বাহিনীর মধ্যে তথ্যের আদান প্রদান বৃদ্ধি করা৷

চিনা সেনার (Chinese Army) ওয়েস্টার্ন থিয়েটার কম্যান্ড ভারতের সঙ্গে সীমান্ত পাহারা দেওয়ার দায়িত্বে রয়েছে৷ এ ছাড়াও জিনজিয়াং এবং তিব্বতের স্বশাসিত অঞ্চলের সীমান্ত রক্ষার দায়িত্বও তাদের উপরে রয়েছে৷ গত মাসে জেনারেল ওয়াং হাইজিয়াংকে এই ওয়েস্টার্ন কম্যান্ডের প্রধানের দায়িত্ব দিয়েছিল চিনা সেনা৷

সরকারি সূত্র অনুযায়ী, লাদাখ (Ladakh) সীমান্তে ভারতীয় এবং চিনা বাহিনী (PLA) সেনা কমানোর প্রক্রিয়া শুরু করলেও এখনও সেখানে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ সেনা মোতায়েন করে রেখেছে পিএলএ৷

আরও পড়ুন: রাষ্ট্রসংঘের সভায় প্রধানমন্ত্রীর মুখে রবীন্দ্র-কবিতা, নাম না করে পাকিস্তানকে দিলেন বার্তা!

অন্যদিকে সাউথ ওয়েস্টার্ন কম্যান্ডের দায়িত্বে থাকে হংকং, ম্যাকাওয়ের মতো বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চলগুলির সীমান্ত রক্ষার দায়িত্ব৷ গোয়েন্দা তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তানের কর্নেল পদমর্যাদার অফিসারদের পিএলএ-এর সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনের জয়েন্ট স্টাফ ডিপার্টমেন্টে নিযুক্ত করা হয়েছে৷ পিএলএ-এর এই শাখা তাদের সশস্ত্র বাহিনীর যুদ্ধের রণকৌশল নির্ধারণ এবং প্রশিক্ষণের দায়িত্বে থাকে৷

এর পাশাপাশি চিনের জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রকেও পাঠানো হয়েছে পাক অফিসারদের৷ চিনের সরকারি মুখপত্র গ্লোবাল টাইমস-এর তথ্য অনুযায়ী, গুপ্তচরবৃত্তি আটকানো এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে চিনের জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রক৷

ভারতীয় গোয়েন্দাদের হাতে আসা তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তান সেনার আরও অন্তত দশ জন অফিসার এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের কর্তাদের বেজিংয়ের পাকিস্তান দূতাবাসে নিয়ুক্ত করা হয়েছে৷ সূত্রের খবর অনুযায়ী, চিনা সেনার বাহিনীর মধ্যে পাক সেনা অফিসারদের অন্তর্ভুক্তির সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে৷ এর থেকেই পরিষ্কার, চিন এবং পাকিস্তানের মধ্যে এই মুহূর্তে কতটা ঘনিষ্ঠ সমন্বয় রয়েছে৷

পাক সংবাদপত্র ডন-এ ২০১৬ সালে প্রকাশিত একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, চিন পাকিস্তান ইকোনমিক করিডর প্রকল্পের নিরাপত্তার জন্য ৯ হাজার পাক সেনা এবং আধা সামরিক বাহিনীর ৬ হাজার জওয়ানকে নিয়ে একটি বিশেষ বাহিনী গঠন করা হয়েছিল৷ ২০১৯ সালেও পাকিস্তান জানায়, চিনা নাগরিক এবং চিন পাকিস্তা ইকোনমিক করিডরের নিরাপত্তার জন্য একটি শক্তিশালী বাহিনী গড়ে তুলবে তারা৷ চিন এবং পাকিস্তানের বন্ধুত্ব যেভাবে গাঢ় হচ্ছে, তাতে গোটা বিষয়টির উপরেই কড়া নজর রেখেছে ভারত৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: China, Pakistan