Kabul Airport Blast: আশঙ্কাই সত্যি হল, কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে একাধিক আত্মঘাতী বিস্ফোরণ! নিহত অন্তত ৬০

কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে একাধিক আত্মঘাতী বিস্ফোরণ! নিহত ১৩

একাধিক আত্মঘাতী বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল আফগানিস্তানের কাবুলের হামিদ কারজাই বিমানবন্দর (Kabul Airport Blast)।

  • Share this:

    #কাবুল: কিছুদিন ধরেই এমন আশঙ্কার কথা শোনা গিয়েছিল পেন্টাগনের রিপোর্টে। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় সেই আশঙ্কাই সত্যি হল। একাধিক আত্মঘাতী বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল আফগানিস্তানের কাবুলের হামিদ কারজাই বিমানবন্দর (Kabul Airport Blast)। নিহত হয়েছেন শিশু-সহ অন্তত ৬০ জন। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে খবর। বিস্ফোরণের পরই বিমানবন্দরের বাইরে এলোপাথাড়ি গুলি চালানো হয়। আহত হয়েছেন তিন মার্কিন সেনা। ঘটনার পরই জরুরি বৈঠকে বসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

    সূত্রের খবর, কাবুল থেকে মার্কিন বিমানের উড়ানের ঠিক আগে বিস্ফোরণ। বিমানবন্দরের অ্যাবে গেটের কাছে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ। এছাড়া কাবুলের ব্যারন হোটেলের সামনেও বিস্ফোরণ হয়েছে। কিছুক্ষণ আগে ইতালির বিমান লক্ষ্য করে গুলিবৃষ্টি হয়। পেন্টাগনের প্রেস সেক্রেটারি জন কিরবি ট্যুইট করে কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে বিস্ফোরণের খবর স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, 'আমরা নিশ্চিত করছি, কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে বিস্ফোরণ হয়েছে। এখনও পর্যন্ত নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না কতজনের মৃত্যু হয়েছে। আমাদের কাছে যখনই নিশ্চিত খবর আসবে, তখনই আমরা তা জানাব।'

    সাধারণ আফগান-সহ বিভিন্ন দেশের নাগরিকরা যখন কাবুল ছাড়তে মরিয়া, কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে যখন থিকথিকে ভিড়, ঠিক তখনই ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে কাবুল বিমানবন্দর চত্বর। তীব্র অস্থিরতার মধ্যেই পরপর বিস্ফোরণ। প্রতিটিই আত্মঘাতী হামলা বলে মনে করছে তালিবান। এবং এই ধরনের হামলা আইসিস জঙ্গিদের বলেই প্রাথমিক অনুমান করা হচ্ছে।

    ৩১ অগস্টের আগে বিমানবন্দরে চলছে বিভিন্ন দলের উদ্ধারকারী দলের তৎপরতা। সূত্রের খবর, ইতালির উদ্ধারকারী বিমান লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। আহত হয়েছে বহু মানুষ। শুধু কাবুল বিমানবন্দরই নয়, শহরের কয়েকটি জায়গায় বিস্ফোরণের খবর পাওয়া যাচ্ছে। কয়েক দিন আগেই বিমানবন্দর উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল আইসিস জঙ্গিরা। বিস্ফোরণের পিছনে তাদেরই হাত রয়েছে কি না, খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: