• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • বিতর্কিত মন্তব্যের রেশের মধ্যেই নিখোঁজ আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা

বিতর্কিত মন্তব্যের রেশের মধ্যেই নিখোঁজ আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা

একটি টিভি শো-তে দুই মাস ধরে অনুপস্থিত থাকার পর এর চূড়ান্ত পর্বেও বিচারকের আসনে তাঁকে দেখতে পাওয়া যায়নি৷

একটি টিভি শো-তে দুই মাস ধরে অনুপস্থিত থাকার পর এর চূড়ান্ত পর্বেও বিচারকের আসনে তাঁকে দেখতে পাওয়া যায়নি৷

একটি টিভি শো-তে দুই মাস ধরে অনুপস্থিত থাকার পর এর চূড়ান্ত পর্বেও বিচারকের আসনে তাঁকে দেখতে পাওয়া যায়নি৷

  • Share this:

    #বেজিং:  দুই মাস ধরে প্রকাশ্যে আসছেন না চিনের বৃহত্তম ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা। একটি টিভি শো-তে দুই মাস ধরে অনুপস্থিত থাকার পর এর চূড়ান্ত পর্বেও বিচারকের আসনে তাঁকে দেখতে পাওয়া যায়নি৷ এরপরই শুরু হয়েছে গুঞ্জন । সোশ্যাল মিডিয়ায় জল্পনা ছড়িয়েছে, জ্যাক মা নিখোঁজ ।

    একটি টিভি শো-তে দুই মাস ধরে অনুপস্থিত ছিলেন৷ এরপর এর চূড়ান্ত পর্বেও বিচারকের আসনে তাঁকে দেখা যায়নি৷ শুরু হয়েছে গুঞ্জন । সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে জল্পনা ছড়িয়েছে, জ্যাক মা নিখোঁজ । সোশ্যাল মিডিয়ার জল্পনা আরও জোরালো হয়েছে জ্যাক মা-র ব্যবসায়িক সাম্রাজ্যের বিরুদ্ধে চিনা নিয়ন্ত্রক সংস্থার নেওয়া পদক্ষেপে। ২০২০ সালের অক্টোবরের শেষ দিকে সাংহাইয়ে অনুষ্ঠিত একটি সম্মেলনে জ্যাক মা-কে শেষ দেখা গিয়েছিল। সাংহাই-এর ওই অনুষ্ঠানে দেওয়া ভাষণে চিনা নিয়ন্ত্রক সংস্থার বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করেন জ্যাক মা। এরপর এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয় বেজিং।

    সংবাদসংস্থা ফিনান্সিয়াল টাইমসের তরফ থেকে জানা যায়, নভেম্বরে ‘আফ্রিকাজ বিজনেস হিরোজ’ নামে পরিচিত উদ্যোক্তাদের গেম শো-টির চূড়ান্ত পর্বের বিচারকের আসন থেকে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়। সোমবার আলিবাবার একজন মুখপাত্র রয়টার্সকে জানিয়েছেন, সময়ের অভাবে জ্যাক মা ওই টিভি শো-টির চূড়ান্ত পর্বে উপস্থিত থাকতে পারেননি। এই বিষয়ে আর কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।

    দুই মাস তাঁর প্রকাশ্যে না আসার বিষয়টি নিয়ে ট্যুইটারে আলোচনা শুরু হয়। অনেক ব্যবহারকারীই ট্যুইট করে জানতে চান, জ্যাক মা কোথায় আছেন! যদিও চিনে ট্যুইটার নিষিদ্ধ। এবং চিনের নিজস্ব সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে এ নিয়ে তেমন কোনও আলোচনা দেখা যায়নি।

    আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, গত অক্টোবরের ওই বিতর্কিত বক্তব্যের পরই নিজেকে আড়াল করেছেন জ্যাক মা। শুধু সহযোগী প্রতিষ্ঠান অ্যান্ট গ্রুপই নয়; বরং আলীবাবার বিরুদ্ধেও কঠোর অবস্থানে যায় দেশটির নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ। আলিবাবার বিরুদ্ধে বিশ্বাসভঙ্গের তদন্ত শুরু করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

    Published by:Simli Dasgupta
    First published: