corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভারতের বিরুদ্ধে লড়তে পাকিস্তানকে ব্যবহার করছে চিন, PoK-র স্কার্দু এয়ারবেসে চিনা যুদ্ধবিমান

ভারতের বিরুদ্ধে লড়তে পাকিস্তানকে ব্যবহার করছে চিন, PoK-র স্কার্দু এয়ারবেসে চিনা যুদ্ধবিমান
(AP)

চিনা ফাইটার জেট এই এয়ারবেস থেকে কাজ করে আবার সেখান থেকে ফিরে যেতে পারবে৷ আর ভারত যদি স্কার্দুতে পাল্টা হানা দেয় তাহলে পাকিস্তান যুদ্ধ শুরু করার সহজ বাহানা পেয়ে যাবে

  • Share this:

#নয়াদিল্লি:  ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বিবাদের মধ্যে চিন এবার পাকিস্তানকে ব্যবহার  করছে৷ পাকিস্তানের অধীনে থাকা কাশ্মীর অর্থাৎ পিওকে  (PoK)-র স্কার্দু এয়ারবেস কাজে লাগাচ্ছে বেজিং৷ সেখানে চিনের বায়ুসেনার মুভমেন্ট দেখতে পেয়েছে ভারতীয় এজেন্সি ৷ তারা সতর্ক করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারকে ৷ তাদের দেওয়া খবর অনুযায়ী ৪০ -র বেশি চিনা ফাইটার জেট জে ১০ (J10) স্কার্দুতে দেখা গিয়েছে৷ এই প্রেক্ষিতে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে চিনা বায়ুসেনা ভারতে হামলার জন্য এই এয়ারবেস ব্যবহার করার প্রস্তুতি নিচ্ছে ৷

এই এয়ারবেস লেহ -র থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ৷ যেকোনও চিনা এয়ারবেসের থেকে এটা ভারতের অনেক কাছে ৷ সূত্রের খবর অনুযায়ী এই জন্য চিন স্কার্দু এয়ারবেস ব্যবহার করে নিজের শক্তি পরীক্ষা করতে চায় ৷ যাতে ভারতের একদম কাছ থেকে ভারতের উপর হামলা চালানো যায় ৷ তাই ভারতকে এবার ২ টি আলাদা সীমান্তে লড়াইয়ের জন্য তৈরি থাকতে হচ্ছে ৷

সূত্র আরও জানিয়েছ লাদাখে হামলা চালানোর জন্য চিনের কাছে তিনটি এয়ারবেস রয়েছে ৷ সেখান থেকে ফাইটার এয়ারক্রাফট ব্যবহার করা যেতে পারে ৷ এগুলি হল কাশগর, হোতান আর নগ্রি গুরগুংসা ৷ এই এয়ারবেসগুলি থেকে তাদের হামলা চালানোর ক্ষমতা সীমিত ৷ কাশগর থেকে লেহ-র দূরত্ব ৬২৫ কিলোমিটার, খোতান থেকে ৩৯০ কিমি, ও গুরগুংসা থেকে ৩৩০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে ৷ এগুলি সবই ১১ হাজার ফুটের বেশি উচ্চতায় রয়েছে ৷

আর সেখানেই ১০০ কিলোমিটার দূরে স্কার্দু চিনের জন্য সবচেয়ে ভাল অপশন ৷ কারগিল সেখান থেকে ৭৫ কিলোমিটার দূরে ৷ এই এয়ারবেসে ২ টি রানওয়ে আছে ৷ একটি আড়াই কিলোমিটার লম্বা, আর দ্বিতীয়টি ৩.৫ কিমি লম্বা ৷ চিনা ফাইটার জেট এই এয়ারবেস থেকে কাজ করে আবার সেখান থেকে ফিরে যেতে পারবে৷ আর ভারত যদি স্কার্দুতে পাল্টা হানা দেয় তাহলে পাকিস্তান যুদ্ধ শুরু করার সহজ বাহানা পেয়ে যাবে  ৷

সূত্রের হিসেব মতো ISI চিনের গুপ্তচর সংগঠন মিনিস্ট্রি অফ স্টেট সিকিউরিটি MSS -র সঙ্গে যোগসূত্র স্থাপন করেছে ৷ এদের সঙ্গে ট্রেনিং করে আতঙ্কবাদীদের হামলায় বদলও আনছে পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠনগুলি ৷

Published by: Debalina Datta
First published: July 1, 2020, 3:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर