বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাংলাদেশের মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণ! হু হু করে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

বাংলাদেশের মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণ! হু হু করে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা
প্রতীকী ছবি

শুক্রবার রাত ৮.৩০ নাগাদ নমাজ পড়ার জন্য অনেকে মসজিদে জড়ো হয়েছিলেন। প্রার্থনার শেষ পর্যায়ে এই বিস্ফোরণ ঘটে।

  • Share this:

#নারায়ণগঞ্জ: ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল বাংলাদেশ। শুক্রবার নমাজ পড়ার জন্য মসজিদে বহু মানুষ এসেছিলেন, সেই সময়েই বিস্ফোরণ ঘটে। যার জেরে ঘটনাস্থলেই মারা যান অনেকে। এরপর হাসপাতালে নিয়ে গেলে আরও কয়েকজনের মৃত্যু হয়। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা।

স্থানীয় পুলিশকর্তা জায়েদুল আলম জানিয়েছেন, বিস্ফোরণটি ঘটেছে নারায়ণগঞ্জের পশ্চিমে বায়াতুস সালা মসজিদে। শুক্রবার রাত ৮.৩০ নাগাদ নমাজ পড়ার জন্য অনেকে মসজিদে জড়ো হয়েছিলেন। প্রার্থনার শেষ পর্যায়ে এই বিস্ফোরণ ঘটে। অগ্নিদগ্ধদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতাল এবং ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতদের শনাক্ত করার কাজ চলছে। কারণ তাঁদের দেহের বেশিরভাগ অংশই পুড়ে গিয়েছে। ডাক্তাররা জানান, মসজিদের ইমাম-সহ ৪০ জনের চিকিৎসা চলছে হাসপাতালে। তাঁদের অনেকেরই শরীরের বেশিরভাগ অংশই পুড়ে গিয়েছে। সকলকেই বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর জখমদের মধ্যে মসজিদের ইমাম ও এক কিশোরও রয়েছে। মোট সাতজনের শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে।

প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, নারায়ণগঞ্জের মসজিদের মাটির নীচে রয়েছে গ্যাসের পাইপ। সেই পাইপ ফুটো হয়ে মসজিদের ভিতর প্রবেশ করে। বদ্ধ ওই প্রার্থনাগৃহের মধ্যে অনেক গ্যাস জমতে শুরু করে। পরে কেউ বুঝতে না পেরে সুইচ অন করলে তা সশব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। তা থেকেই দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে গোটা মসজিদ চত্বরে। আগুনের জেরেই এসি মেসিনগুলি ভয়ানক শব্দে ফেটে যায়। তারপরে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে। বিস্ফোরণের জেরে মসজিদের ভেতরের অংশ সম্পূর্ণভাবে তছনছ হয়ে গিয়েছে।

এ দিকে, নারায়ণগঞ্জ মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিনটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি, ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে একটি এবং তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন শনিবার বাংলাদেশের সংবাদপত্র 'প্রথম আলো'কে জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক খাদিজা তাহেরী ববিকে আহ্বায়ক করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিকে আগামী পাঁচদিনের মধ্যে তদন্তের রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া মৃতদেহ কবরস্থ করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে এবং আহতদের চিকিৎসার জন্য ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।

Published by: Shubhagata Dey
First published: September 5, 2020, 2:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर