Home /News /howrah /
Howrah: আবর্জনা থেকেই অর্থের যোগান! পঞ্চায়েতে হচ্ছে কর্মসংস্থান, জানুন...

Howrah: আবর্জনা থেকেই অর্থের যোগান! পঞ্চায়েতে হচ্ছে কর্মসংস্থান, জানুন...

title=

কঠিন বর্জ্য প্রক্রিয়াকরনে (Solid Waste Management) আশার আলো সাঁকরাইল গ্রাম পঞ্চায়েতে। এলাকার পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন আবর্জনা মুক্তর পাশাপাশি কর্মসংস্থানের সুযোগ এতেই আশার আলো দেখছে গ্রাম পঞ্চায়েত।

  • Share this:

    #হাওড়া : কঠিন বর্জ্য প্রক্রিয়াকরনে (Solid Waste Management) আশার আলো সাঁকরাইল গ্রাম পঞ্চায়েতে। এলাকার পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন আবর্জনা মুক্তর পাশাপাশি কর্মসংস্থানের সুযোগ এতেই আশার আলো দেখছে গ্রাম পঞ্চায়েত। হাওড়া সাঁকরাইল গ্রাম পঞ্চায়েতে গত ২৬ শে মে থেকে কঠিন আবর্জনা প্রক্রিয়াকরণ শুরু হয়। সাঁকরাইল গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রামচন্দ্রপুরে কয়েক কাঠা জমির উপর গড়ে উঠেছে পঞ্চায়েতের আবর্জনা প্রক্রিয়াকরন প্রকল্পটি। পঞ্চায়েত সূত্রে জানা যায় গত ২০১৯ সালে কাজের সূচনা হয়, এ বছর ২২ সালে তা সম্পূর্ণ হয়। এবং কঠিন আবর্জনা প্রক্রিয়াকরণ শুরু চলতি বছরের মে মাস থেকে, এর মধ্যে ১৬ই জুলাই এই প্রক্রিয়াকরণ প্রকল্পের আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হয়। হাজির ছিলেন হাওড়া জেলা পরিষদ সভাধিপতি ,সাঁকরাইল বিডিও, পঞ্চায়েত সমিতি সভাপতি একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এই প্রকল্পে পঞ্চায়েত প্রধানের লক্ষ্য হল এলাকা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার পাশাপাশি স্থানীয় মানুষের কর্মের চাহিদা পূরণ করবে।

    ইতিমধ্যেই প্রকল্পের সূচনা লগ্নে প্রায় ১৬ জন কর্মী কর্মরত আগামী দিনে গ্যাস ও লিকুইড স্যার তৈরির পরিকল্পনা ও চলছে। পরিকল্পনামাফিক এই প্রকল্পসম্পূর্ণভাবে চালু হলে প্রায় ৪০০ থেকে ৫০০ মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে জানান পঞ্চায়েত প্রধান ডঃ প্রদ্যুৎ পাল। পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে জানা যায়, একাধিক বিভাগ রয়েছে। একটি হল যারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে আবর্জনা সংগ্রহ করছে।

    আরও পড়ুনঃ প্লাস্টিক বন্ধ করতে মানুষকে সচেতন বার্তায় বর্ণাঢ্য পদযাত্রা

    একটি বর্জ্য পদার্থ থেকে পচনশীল ও অপচনশীল বিভিন্ন বাছাই প্রক্রিয়া, সেই সঙ্গে রয়েছেন দুইজন সুপারভাইজার, দুইজন সিকিউরিটি এবং সেলস ও মার্কেটিং লোকের প্রয়োজন রয়েছে। বিভিন্ন পর্যায়ে চাহিদা মত কর্মী নিয়োগ করা হবে। পঞ্চায়েত প্রধান আরও জানান গ্যাস ও লিকুইড সার উৎপাদন শুরু হলে মার্কেটিং এবং সাধারণ কর্মীর প্রয়জন হবে।

    আরও পড়ুনঃ গত এক মাসে হারিয়ে যাওয়া ৪৬ টি ফোন উদ্ধার করল সাঁকরাইল থানার পুলিশ

    অন্যদিকে বাণিজ্যিক লাভবান হবে গ্রাম পঞ্চায়েত। কর্মীদের দৈনিক মজুরি ২০০ থেকে ৩০০ টাকা। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৫ টা পর্যন্ত কাজ। কাজের জন্য বিভিন্ন বিভাগ অনুযায়ী অষ্টম শ্রেণী থেকে স্নাতক, কর্মীদের দৈনিক মজুরি ২০০ থেকে ৩০০ টাকা। কাদের জন্য পঞ্চায়েত অফিসে লিখিত আবেদন করতে হবে।

    Rakesh Maity
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Howrah

    পরবর্তী খবর