Home /News /howrah /
Howrah: নদীর চরে মিলল শিক্ষকের দেহ! মৃত্যু ঘিরে রহস্য

Howrah: নদীর চরে মিলল শিক্ষকের দেহ! মৃত্যু ঘিরে রহস্য

দীর চর থেকে দেহ উদ্ধার শিক্ষকের, চাঞ্চল্য এলাকাজুড়ে। নলপুর খাসখামার হাই মাদ্রাসার শিক্ষক দেবজ্যোতি সামন্ত। মঙ্গলবার স্থানীয় মানুষের নজরে আসে নদীর চরে একটি দেহ, তা দেখে তারাই খবর দিলে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ।

  • Share this:

    হাওড়া: নদীর চর থেকে দেহ উদ্ধার শিক্ষকের, চাঞ্চল্য এলাকাজুড়ে। নলপুর খাসখামার হাই মাদ্রাসার শিক্ষক দেবজ্যোতি সামন্ত। মঙ্গলবার স্থানীয় মানুষের নজরে আসে নদীর চরে একটি দেহ, তা দেখে তারাই খবর দিলে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ । মঙ্গলবার রাত্রে দেহটির খবর আসতে, মানিকপুর থানা তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ দেহটি আটকে, হুগলী রিভার পুলিশে খবর দেয়। রামচন্দ্রপুর মল্লিক পাড়ার বাসিন্দা পেশায় শিক্ষক দেবজ্যোতি সামন্ত। বাড়িতে সুখে স্বাচ্ছন্দে দিন কাটছিল বাবা মা এক বোন, স্ত্রী ও দুই কন্যার সঙ্গে। হঠাৎই সোমবার বেলা ১০ টা থেকে নিখোঁজ। পরিবার সূত্রে জানা যায় গত দুদিন আগে বেলা দশটা নাগাদ চুল কাটার নাম করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে ছিলেন দেবজ্যোতি সামন্ত। দুপুর গড়িয়ে দীর্ঘ সময় পার হয়ে যেতে, খোঁজখবর শুরু। বহু খোঁজাখুঁজির পরেও দেবজ্যোতি বাবুর হদিস না মেলায় পরিবারের তরফ থেকে সাঁকরাইল থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয় ওই দিন সন্ধ্যায়।

    এরপর পরিবার এবং আত্মীয় স্বজনের তরফ থেকে খোঁজ চলে পাড়া-প্রতিবেশী আত্মীয়-স্বজনের বাড়ি। স্থানীয় এক ব্যক্তির কথায় জানা যায় শেষবারের মতো দিব্যজ্যোতি বাবুকে দেখা গিয়েছিল রাজগঞ্জ জেটিঘাট সংলগ্ন এলাকায়। সেখান থেকেই দেবজ্যোতি সামন্তের সাইকেল ও জুতো পাওয়া যায়। অনুমান গঙ্গায় স্নান করতে নেমে ছিলেন, তাতেই গঙ্গায় তলিয়ে যাবার সম্ভাবনা মনে করছেন। পুলিশের তরফ থেকে ডুবুরি নামিয়ে তল্লাশি চালানো হলেও পাওয়া যায়নি দেহ।

    আরও পড়ুনঃ চাষের কাজ আর হাঁস-মুরগি দেখাশোনা করেও উচ্চমাধ্যমিকে ৪৫৯ নম্বর!

    গতকাল সারেঙ্গে অঞ্চল এলাকায় নদীর চরে একটি দেহ আটকে থাকতে দেখে স্থানীয়রা মানিকপুর তদন্ত কেন্দ্রে খবরে দেন। নিখোঁজ দেবজ্যোতি বাবুর পরিবারে খবর দেয়মানিকপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। পরিবারের লোকজন এসে দেবজ্যোতি বাবুকে চিহ্নিত করে। শান্ত প্রকৃতির দেবজ্যোতি বাবুর অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

    আরও পড়ুনঃ হাওড়া থেকে দুর্গার পাড়ি লন্ডনে! জোর কদমে চলছে প্রতিমা গড়ার কাজ

    দীর্ঘদিন নলপুর খাসখামার হাই মাদ্রাসার শিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন । ধীর স্থির শান্ত প্রকৃতির শিক্ষক মহাশয় হিসাবেই সকলের কাছে পরিচিত। শিক্ষকের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে শোকের ছায়া। রিভার পুলিশের পক্ষ থেকে দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে, ঘটনার তদন্তে সাঁকরাইল থানার পুলিশ।

    Rakesh Maity
    First published:

    Tags: Howrah

    পরবর্তী খবর