রজঃস্বলা কি না প্রমাণ দিতে সকলের সামনে নিজেকে উন্মুক্ত করেছিলেন কাদম্বিনী!

রজঃস্বলা কি না প্রমাণ দিতে সকলের সামনে নিজেকে উন্মুক্ত করেছিলেন কাদম্বিনী!

সেকালের হিন্দু বাড়ি ছিল কুসংস্কারে আচ্ছন্ন ৷ তাই মহিলা চিকিৎসক রজঃস্বলা কি না তার প্রমাণও দিতে হয়েছিল প্রথম বাঙালি মহিলা ডাক্তারকেও ৷

  • Share this:

#কলকাতা: ১৮৯২-এর কলকাতা ৷ প্রায় ২০০ বছর আগের সেই বাংলা আর আজকের বাংলার মধ্যে অনেক তফাৎ ৷ সেই যুগে মেয়েরা ছিলেন পর্দানশীন ৷ আবার সেই যুগেই বাংলায় জন্মেছিলেন সেই তেজস্বিনী নারী ৷ পুরুষদের পায়ে পা মিলিয়ে যিনি ডাক্তারি পড়েছিলেন ৷ হয়েছিলেন বাংলার প্রথম মহিলা ডাক্তার ৷ সে এক বিশাল লড়াইয়ের কাহিনী ৷ তাঁর নাম কাদম্বিনীদেবী ৷ সাহসী সেই নারীর গল্প নিয়েই এবার আসছে নতুন ধারাবাহিক ‘কাদম্বিনী’ ৷ প্রায় একই গল্প, প্রায় একই নাম নিয়ে, একই সময়ে আসতে চলেছে বাংলার যুযধান দুই চ্যানেলের দু’টি ধারাবাহিক ৷ বাংলার প্রথম মহিলা চিকিৎসক কাদম্বিনী গঙ্গোপাধ্যায়ের বায়োপিক নিয়ে প্রথম ট্রেলরটি বাজারে নিয়ে আনে জি-বাংলা ৷ প্রথমে টিজার ছাড়লেও ট্রেলরের দৌড়ে কিছুটা পিছিয়ে গিয়েছিল জলসা ৷ এরপরেই তড়িঘড়ি ট্রেলর নিয়ে আসে স্টারও ৷ তবে দুই চ্যানেলের ধারাবাহিকের নাম সামান্য আলাদা ৷ স্টার জলসার ধারাবাহিকটির নাম ‘প্রথমা কাজম্বিনী’ ৷ জি-বাংলায় শুধুই ‘কাদম্বিনী’ ৷ জলসায় নাম ভূমিকায় রয়েছেন সোলাঙ্কি রায় ৷ আর জি-বাংলায় কাদম্বিনী হয়েছেন ঊষসী রায় ৷ এবার নতুন সিরিয়ালের পরবর্তী টিজারটিও বাজারে নিয়ে এল স্টার ৷ নতুন এই টিজারে আরও ভাল করে দেখানো হয়েছে কাদম্বিনীর জীবনের গল্প ৷ সেই পর্দানশীন যুগে, যেখানে নারী স্বাধীনতা সোনার পাথরবাটির মতোই অলীক কল্পনা ছিল, সেখানে কতটা লড়াই করে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করতে হয়েছিল কাদম্বিনীকে তা দেখানো হয়েছে নতুন সেই টিজারে ৷

সেকালের হিন্দু বাড়ি ছিল কুসংস্কারে আচ্ছন্ন ৷ তাই মহিলা চিকিৎসক রজঃস্বলা কি না তার প্রমাণও দিতে হয়েছিল প্রথম বাঙালি মহিলা ডাক্তারকেও ৷

First published: March 5, 2020, 5:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर