শুভশ্রীদি একেবারে দিদির মতো আগলে রাখে, কোনও কম্পিটিশন নেই : অদ্রিজা

ইন্ডাস্ট্রির কারও সঙ্গে কম্পিটিশন নেই ৷ সম্প্রতি রাজ চক্রবর্তীর ‘পরিণীতা’র হাত ধরে বড়পর্দায় পা দিচ্ছেন তিনি ৷ এদিকে ছোট পর্দাতেও ‘মঙ্গলচণ্ডী’ নিয়ে আসছেন ৷ কাজ, অভিনয়, প্রেম, সম্পর্ক নিয়ে News18Bangla.com-এর সঙ্গে খোলামেলা আড্ডায় অদ্রিজা রায় ৷

Simli Raha | News18 Bangla
Updated:Aug 01, 2019 08:45 AM IST
শুভশ্রীদি একেবারে দিদির মতো আগলে রাখে, কোনও কম্পিটিশন নেই : অদ্রিজা
Simli Raha | News18 Bangla
Updated:Aug 01, 2019 08:45 AM IST

প্র্র্র: ‘মঙ্গলচণ্ডী’র খুল্লনার চরিত্রটা কেন বেছে নিলে?

উ: এটা মাইথলজি বেসড ৷ এখন এইসব নিয়ে অনেক কিছু হচ্ছে ৷ মহাভারত, শিব, খনা দেখেছেন দর্শকরা ৷ কিন্তু ‘চণ্ডীমঙ্গল’ যার থেকে ‘মঙ্গলচণ্ডী’র গল্পটা এসেছে, সেটা একেবারে আনটাচড ৷ আর এই গল্পটায় খুব সুন্দরভাবে মর্তকে দেখানো হয়েছে ৷ সুন্দর একটা প্রেমের গল্প আছে ৷ আর তুলনামূলক কম পরিচিত দেবী, চণ্ডীর লড়াইটাও দেখানো হয়েছে এতে ৷ একদম নতুন একটা গল্প, আশা করি লোকের ভাল লাগবে ৷

প্র: ‘বেদিনী মলুয়ার কথা’, ‘ঠাকুরমার ঝুলি’, ‘মঙ্গলচণ্ডী’... পরপর প্রায় একই রকমের চরিত্র ৷ টাইপকাস্ট হয়ে যাওয়ার ভয় পাও না?

উ: না, কখনও সেটা মনে হয়নি ৷ কারণ, আমার সবগুলো চরিত্র কিন্তু আলাদা আলাদা ৷ ‘সন্নাসী রাজা’র বিম্ববতী শাড়ি-সিঁদুর পরা, দেখতে হয়তো একই রকম ৷ কিন্তু চরিত্র হিসাবে ভীষণ বোল্ড ৷ আবার ‘পরিণীতা’য় আমার চরিত্র একেবারে রকে বসা, আড্ডাবাজ মেয়ের ৷

প্র: কিন্তু তোমার ছোট পর্দার চরিত্রগুলো তো খুব একঘেয়ে হয়ে যাচ্ছে ৷ লুকস ও কাছাকাছি ৷ সাধারণ একটা মেয়ে, যে জিন্স পরে, সালওয়ার পরে... এরকম চরিত্রে দর্শক এখনও দেখতে পায়নি তোমাকে ৷

Loading...

উ: হ্যাঁ সেটা ঠিকই ৷ আমারও অন্য ধরণের চরিত্র করার ইচ্ছে রয়েছে ৷ দেখা যাক, পছন্দের গল্প পেলে নিশ্চয়ই করব ৷

প্র: চার বছর হল ইন্ডাস্ট্রিতে ৷ শুরুটা কী ভাবে হয়েছিল?

উ: বাড়িতে কাকা অভিনয় জগতের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ৷ কিন্তু আমি কখনও অভিনয়ে আসব ভাবিনি ৷ আমি অ্যাথলিট ছিলাম ৷ রান আর লং জাম্পে আমি স্টেট লেভেলেও অংশ নিয়েছিলাম ৷ কিন্তু মাধ্যমিকের সময় অনেকটা গ্যাপ পড়ে যায় ৷ আবার যখন আমি শুরু করি, আর সেই ফিটনেসটা ছিল না ৷ খেলা থেকে আসতে আসতে দূরে সরে গেলাম ৷ তখনই কাকার কয়েকজন বন্ধ‌ু আমাকে অভিনয়ের কথা বলেন ৷ চিরঞ্জিত চক্রবর্তীর ‘ডিটেক্টিভ ২০১৫’-তে অডিশন দিই ৷ সেই শুরু ৷

প্র: প্রথম বড়পর্দায় পা দিয়েই রাজ চক্রবর্তীর পরিচালনা, শুভশ্রী-ঋত্বিকের সঙ্গে অভিনয়... চাপ হয়নি?

উ: একদমই না ৷ কাজের অভিজ্ঞতা ভীষণ-ই ভাল ৷ শুভশ্রীদি ইজ লাইক অ্যা স্যুইট হার্ট ৷ এক্কেবারে বড় দিদির মতো ৷ সব সময় আগলে রাখে ৷ ঋত্বিক দাও দারুণ অভিনেতা ৷ সকলের সঙ্গে খুব মজা করে কাজটা করেছি ৷

 

 

 

View this post on Instagram

 

  PARINEETA . . #Repost @subhashreeganguly_real with @get_repost ・・・ @adrija_addy @tithidas13   A post shared by Adrija Roy (@adrija_addy) on

 প্র: কোনও কম্পিটিশন ছিল না বলছো?

উ: একেবারেই না ৷ মাথাতেই আসেনি ৷ ওয়ার্কশপে খুব আড্ডা ইয়ার্কি করতাম আমরা ৷ ক্যামেরার সামনেও আমাদের সেটাই করতে হয়েছে ৷ তাই কোনও অসুবিধা হয়নি ৷

প্র: আর ছোট পর্দায় কার সঙ্গে বেশি কম্পিটিশন?

উ: কারও সঙ্গে নয় ৷ ওভাবে ভাবতে শুরু করলে, কাজটা আর ঠিক করে হয় না ৷ আমি চাইব, আমি যে কাজটা করছি সেটা খুব ভাল হোক, দর্শকরা দেখুন ৷ ব্যাস ৷

WhatsApp Image 2019-08-01 at 1.22.50 AM

প্র: তোমার তো বেশ কয়েকটা সিরিয়ালে কাজ করা হয়ে গেল ৷ এখন বড়পর্দাতেও দেখা যাবে তোমায় ৷ নতুন, অপরিচিত নায়কের সঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করতে গিয়ে কখনও মনে হয়নি রিস্ক নিচ্ছ?

উ: না, দেখো শমিকের সঙ্গে এটা কখনও মনে হয়নি ৷ আসলে অ্যাজ অ্যা হিউম্যান বিয়িং শমিক ইজ অ্যা ভেরি গুড পার্সন ৷ ফ্রম ডে ওয়ান ওঁর সঙ্গে একেবারে বন্ধুর মতো মিশে গিয়েছি ৷ প্রথম দিন কেউই পারফেক্ট থাকে না ৷ আমিও ছিলাম না ৷ শমিকও এখন অনেক ইমপ্রুভ করেছে ৷ ওঁর ভীষণ শেখার আগ্রহ ৷ এমনকি আমার কাছ থেকেও সব সময় সাজেশন নেয় ৷

View this post on Instagram

Finally the wait is over !!! So Here’s the promo of my new serial #MangalChandi . . Yes am coming back on @colorsbangla in #mangalchandi as #khulana Need all your love and support once again as all of you always have been showering on me ... . . . #new #serial #newstory #mythology #mangalchandi #colorsbangla #love #this #project #staytuned #instapost #instagood #instalove #insta #instagram

A post shared by Adrija Roy (@adrija_addy) on

প্র: তাহলে রিয়েল লাইফে ধনপতি আর খুল্লনা কেমন?

উ: ক্যামেরা কাট হলেই আমাদের আড্ডা মোড অন হয়ে যায় ৷ লেগ পুলিং, মারপিট সব চলতে থাকে ৷ চণ্ডীর ক্যারেক্টর করছে মধুজা, আমরা তিন জন মেকআপ রুমে বসে সারাক্ষণ হৈ হুল্লোড় করি ৷ খাবার কেড়ে খাওয়া থেকে শুরু করে সব চলতে থাকে ৷

প্র: এবার থেকে কি শুধুই বড়পর্দা? নাকি দু’টোই চলবে ?

উ: সে ভাবে কিছু সিদ্ধান্ত নিইনি ৷ যেখানে ভাল গল্প পাব, চরিত্র পাব, সেটাই বেছে নেব ৷

প্র: ইন্ডাস্ট্রির ইয়ং জেনারেশনের একজন প্রতিনিধি তুমি ৷ টলিউডে কাস্টিং কাউচের সমস্যা কতটা গভীর?

উ: এক্ষেত্রে আমি বলব, ইটস ডিপেন্ড অন দ্য পিপল ৷ কারও যদি ট্যালেন্ট থাকে সে সুযোগ পাবেই ৷ অনেকে অনেক রকমভাবে সুযোগ দিতে বা সুযোগ নিতে প্রস্তুত থাকে ৷ কে প্রলোভন মেনে নেবে, তা পুরোপুরি তাঁর ব্যাপার ৷

প্র: পর্দায় তো আর কয়েকদিন পরেই ধনপতির সঙ্গে খুল্লনার প্রেম-বিয়ে সবই দেখা যাবে ৷ রিল লাইফের সাত পাকে কবে বাঁধা পড়ছো?

উ: এই মুহূর্তে এসব ভাবছি না ৷

প্র: না, না, কোনও ডিপ্লোম্যাটিক উত্তর চাই না ৷

উ: (হেসে) আসলে একজনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল ৷ কিন্তু সেটা ভেঙে গিয়েছে ৷ ওই সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার পর মানসিকভাবে একেবারে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলাম ৷ তখন বয়সটাও খুব কম ছিল ৷ প্রথম প্রেম তো, তাই ব্রেকআপ হওয়ায় ভীষণ কষ্ট পেয়েছিলাম ৷ তারপর আবার সব ঠিক করে নিতে চেয়েছিলাম ৷ কিন্তু যাই হোক, বিষয়টা ওয়ার্ক আউট করেনি ৷ এরপর থেকেই খুব চুজি হয়ে গিয়েছি ৷ এখন মনে হয়, ব্রেক নেওয়াটা ভীষণ দরকার ৷ এখন আমার প্রথম প্রেম কাজ, দ্বিতীয় প্রেম ঘুরতে যাওয়া, তারপর অন্য কিছু ৷

প্র: এই অন্য কিছুটা কী?

উ: আমি প্রেমে বিশ্বাস করি, আমি খুব রোম্যান্টিক মানুষ ৷ আমিও চাই এমন একজন মানুষ আসবে যে আমার পাশে থাকবে ৷ কিন্তু আমাদের প্রফেশনে সবার আগে মনে একটা সন্দেহ ঢুকে যায় ৷ এমন কেউ আসুক, যে আন্ডার স্ট্যান্ডিং হবে ৷ একজন খুব ভাল বন্ধ‌ু আছে আমার ৷ ইন্ডাস্ট্রির কেউ নন ৷ কিন্তু এখনই প্রেম, বিয়ে এসব নিয়ে ভাবছি না ৷

 পর্দার চণ্ডী মধুজার সঙ্গে ৷
পর্দার চণ্ডী মধুজার সঙ্গে ৷

First published: 02:31:36 PM Jul 30, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर