• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • অভিনয়টাতেই জড়িয়ে থাকা উচিত ছিল তাপসের ... স্মৃতিচারণায় বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত

অভিনয়টাতেই জড়িয়ে থাকা উচিত ছিল তাপসের ... স্মৃতিচারণায় বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত

চোর, কুস্তিগীর, ড্রাইভার, নানা চরিত্রে বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের ছবিতে দেখা গিয়েছে তাপস পালকে।

চোর, কুস্তিগীর, ড্রাইভার, নানা চরিত্রে বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের ছবিতে দেখা গিয়েছে তাপস পালকে।

চোর, কুস্তিগীর, ড্রাইভার, নানা চরিত্রে বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের ছবিতে দেখা গিয়েছে তাপস পালকে।

  • Share this:

#কলকাতা: 'ঘরের ছেলে'। তরুণ মজুমদারের হাত ধরে উত্তম কুমারের মৃত্যুর বছরেই সাদা পাঞ্জাবি, মাফলার পরা 'কেদার' ওরফে তাপস পাল ঢুকে পড়েছিলেন বাংলার ঘরে, বাঙালির মনে। সেই তাপস পালের পুনর্জন্ম হয় বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের হাত ধরে। মাত্র ৬১ বছর বয়সটা চলে যাওয়ার নয়, এমনটাই মত বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের।

তাঁর মতে, "অত্যন্ত উঁচু দরের অভিনেতা ছিলেন তাপস পাল। আমার পাঁচটি ছবিতেই অসামান্য অভিনয় করেছিল তাপস। আমি যেটুকু চিনেছি মানুষ হিসেবেও ভাল ছিল। ভেনিসে যখন উত্তরা আওয়ার্ড পায় ওঁর আনন্দ যেন আমার থেকেও অনেক বেশি ছিল। ওঁতো প্রায় নাচতে শুরু করে দিয়েছিল। এ ধরনের মানুষ, এ ধরনের অভিনেতা টালিগঞ্জে সত্যি কম আছে।"

চোর, কুস্তিগীর, ড্রাইভার, নানা চরিত্রে বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের ছবিতে দেখা গিয়েছে তাপস পালকে। ছবির চরিত্রের জন্য তালিম নিতেন রীতিমত, এতটাই নিষ্ঠা ছিল। বুদ্ধদেববাবু মনে করেন, তাঁর প্রতিটি ছবিতেই অনবদ্য অভিনয় করেছেন তাপস পাল। ঠিক মত চরিত্র পেলে বা তাঁকে দেওয়া হলে  যে কতটা ভাল অভিনয় করা যায়, তার নজির সৃষ্টি হয়েছে বারেবারে।

বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত বলেন, "তাপসের যথার্থ মূল্যায়ন হয়নি। অভিনয় জগৎ থেকে ওঁর অনেক বেশি পাওয়া উচিত ছিল। এটা দুঃখের। আমি ব্যক্তিগত ভাবে অভিনেতা হিসেবে ওঁকে মনে রাখব। আমার প্রতিটা ছবিতেই অসাধারণ অভিনয় করেছে। উত্তরায় কুস্তিগীর হিসেবে যা অভিনয় করেছিল, তার জন্য কোনও পুরস্কারই যথেষ্ঠ নয়। আমার কাছে ও আর প্রসেনজিৎ দুজনেই এসেছিল এই ভূমিকায় অভিনয় এর জন্য। দুজনকেই বলেছিলাম কোনও কস্টিউম নেই শুধু মাত্র লাল ল্যাঙ্গোট মতো। ও সেটাই করেছিল। কুস্তি শিখেছিল অভিনয়ের জন্য, যাতে ও ওঁর সেরা কাজটা করতে পারে।"

ভারাক্রান্ত কণ্ঠে বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত বলতে টাকেন, "'মেয়ের উপাখ্যান'-এ ড্রাইভারের ভূমিকায় যা অভিনয় করেছিল, ভাবা যায় না। এত ভাল অভিনয়। 'জানালা'য় এত ভাল অভিনয় করেছিল যে মনে হত সত্যি পাকা চোর। প্রতিটি কাজই ওর বৈশিষ্ট্যপূর্ণ। বলতে  দ্বিধা নেই ওঁর পরিমাণ প্রতিভা নিয়ে টালিগঞ্জে ওঁর সমসাময়িক অভিনেতা সেভাবে ছিল না। দুঃখের বিষয় অভিনয়টাতেই ওঁর জড়িয়ে থাকা উচিত ছিল। এটাই ওঁর জায়গা ছিল।" স্বগতোক্তির সুরে বলেন, "আমরা বুঝতে পারি না "আমাদের আসল জায়গা কোনটা। ওঁর আসল জায়গা ছিল অভিনয়।"

মাস ছয়েক আগে হঠাৎই তাপস পাল এসেছিলেন তার সঙ্গে দেখা করতে। তিনি বলেন, "তখনই কথা বলে বুঝতে পেরেছিলাম শরীর ভাল নেই তাপসের। একটা কথার সঙ্গে আরেকটা কথার কোনও মিল ছিল না। তখনই বুঝেছিলান ঠিক নেই সব। আরও দুবার ফোন করেছিল। আসতে চেয়েছিল।কিন্তু সময় দিতে পারিনি।"

অনেকেই বলছেন তাপস পাল ফিরতে চাইছিলেন লাইমলাইটে। কিন্তু ...

Published by:Shubhagata Dey
First published: