Sayantika Banerjee: হেরে গিয়েও মানুষকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি ভোলেননি! সোশ্যালে লম্বা পোস্ট করে কী বার্তা দিলেন সায়ন্তিকা

বাঁকুড়ায় থেকে জোর কদমে প্রচার করেছেন তিনি। অভিনেত্রীকে দেখে হাততালিরও কমতি হয়নি। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। সামান্য মার্জিনেই পরাজিত হয়েছেন সায়ন্তিকা।

বাঁকুড়ায় থেকে জোর কদমে প্রচার করেছেন তিনি। অভিনেত্রীকে দেখে হাততালিরও কমতি হয়নি। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। সামান্য মার্জিনেই পরাজিত হয়েছেন সায়ন্তিকা।

  • Share this:

    #মুম্বই: তৃণমূলে (TMC) যোগদানের পরের দিনই প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা হয়েছিল অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Sayantika Banerjee)। বাঁকুড়া (Bankura) বিধানসভা কেন্দ্র থেকে তিনি প্রার্থী হয়েছিলেন। প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই প্রচারে ফাঁকি দেননি অভিনেত্রী। বাঁকুড়ায় থেকে জোর কদমে প্রচার করেছেন তিনি। অভিনেত্রীকে দেখে হাততালিরও কমতি হয়নি। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। সামান্য মার্জিনেই পরাজিত হয়েছেন সায়ন্তিকা। তবে হারলেও বাঁকুড়ার মানুষের জন্য এখনও কাজ করতে প্রস্তুত তিনি। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের মাধ্যমে সেরকমই জানিয়েছেন তিনি।

    সায়ন্তিকা ফেসবুক পোস্টে লিখছেন, বাংলা বাংলার রায় দিয়েছে, "বাংলার মেয়ের কাছেই বাংলা থাকছে। তৃতীয়বারের জন্য আমাদের অভিভাবিকা হিসেবে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে পেয়ে আমরা গর্বিত।" বাঁকুড়া প্রসঙ্গে তিনি বলছেন, এবার আসি বাঁকুড়ার কথায়, "আমি প্রথম দিনেই বলেছিলাম বাঁকুড়া আমার নিজের পরিবার। তাই ব্যালটের রেজাল্ট কিংবা কয়েকটা ভোটের ব্যবধানে আমার প্রতিশ্রুতিগুলো বদলয়ানি। প্রথম দিনের মতোই আজকের দিনেও আমি ঠিক একই কথা বলবো, সুখে না থাকতে পারি দুঃখে অবশ্যই থাকবো।"

    সায়ন্তিকা বাঁকুড়া সম্পর্কে আরও বলছেন, "লোকসভা ২০১৯ এর পিছিয়ে থাকা বাঁকুড়া বিধানসভা আসনকে আমি অনেকটাই এগিয়ে এনেছি এটাই আমাদের কাছে বড় বিষয়। এর জন্য আমি বাঁকুড়ার সাধারণ মানুষের কাছে চিরকৃতজ্ঞ ও ধন্যবাদ জানাই। সবাই সুস্থ থাকবেন, মাস্ক পরবেন ও ভ্য়াকসিন অবশ্যই নেবেন।"

    প্রসঙ্গত, বাঁকুড়ায় সায়ন্তিকার বিপরীতে বিজেপির হয়ে লড়েছেন বিজেপির নীলাদ্রী শঙ্কর ডানা। তিনি ৯৪৪৭০ ভোটে পেয়ে জিতেছেন। সায়ন্তিকা পেয়েছেন ৯৩০৯৩ ভোট। গণনার দিন সকাল থেকেই চলছিল হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। মাত্র ১৩৭৭ ভোটে পরাজিত হয়েছেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: