হোম /খবর /বিনোদন /
প্রোডাকশন ম্যানেজারের হাতে আক্রান্ত ভাস্বরের ভাই! ফেসবুকে বিস্ফোরক অভিনেতা

Bhaswar Chatterjee: শ্যু‌টিং-এ প্রোডাকশন ম্যানেজারের হাতে আক্রান্ত ভাস্বরের ভাই! ফেসবুকে বিস্ফোরক অভিনেতা

Bhaswar Chatterjee: শ্যু‌টিং-এ প্রোডাকশন ম্যানেজারের কাছে আক্রান্ত ভাস্বরের ভাই! ফেসবুকে বিস্ফোরক অভিনেতা

Bhaswar Chatterjee: শ্যু‌টিং-এ প্রোডাকশন ম্যানেজারের কাছে আক্রান্ত ভাস্বরের ভাই! ফেসবুকে বিস্ফোরক অভিনেতা

অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের (Bhaswar Chatterjee)ভাই একটি ওয়েব প্রজেক্টের শ্যুটিং করতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন প্রোডাকশন ম্যানেজারের কা‌ছে।

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের (Bhaswar Chatterjee)ভাই একটি ওয়েব প্রজেক্টের শ্যুটিং করতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন প্রোডাকশন ম্যানেজারের কা‌ছে। ভাইয়ের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেন স্বয়ং ভাস্বর। অভিনেতার খুড়তুতো ভাই দেবদীপ চট্টপোধ্যায় (Devdeep Chatterjee) একটি ওয়েব প্রজেক্টের কাজের জন্য বোলপুর গিয়েছিলেন। সেখানেই নানা ভাবে তাঁকে নাজেহাল হতে হয় প্রোডাকশন ম্যানেজার অমিতের জন্য। এমনই অভিযোগ করেছেন ভাস্বর। শেষ পর্যন্ত সেই প্রোডাকশন ম্যানেজার বোলপুর স্টেশনে দেবদীপের উপর চড়াও হয় বলেও অভিযোগ।

ভাস্বর জানিয়েছেন, তাঁর ভাই নিরামিষ খান এবং করোনার কথা মাথায় রেখে সিঙ্গল রুম চেয়েছিলেন। কিন্তু সেসব কিছু পাননি। নিরামিষ খাবারও মেলেনি। শেষে প্রযোজকের সাহায্যে তাঁর পাতে কয়েকটি পনিরের টুকরো পড়ে। আর সমস্যা চরমে পৌঁছয় বোলপুর থেকে ফেরার দিন। এসি কামরার টিকিট বলে রাখার পরেও স্লিপার ক্লাসের টিকিট দেওয়া হয় দেবদীপকে।

অভিনেতা প্রোডাকশন ম্যানেজার অমিতের ছবি শেয়ার করে লিখছেন, "চিনে রাখুন ম্যানেজার অমিত। আমার ভাই দেবদীপ চট্টোপাধ্যায় বোলপুর গেছিল একটা ওয়েব এর কাজ করতে।গল্পের ওই হিরো,যাওয়ার আগে অমিতকে বলেছিল ও নিরামিষ খায় আর একটা সিঙ্গল রুম দিতে কারণ কোভিড এর সময় যতটা সেফ থাকা যায়। প্রথমদিন গিয়ে দেখে সিঙ্গল রুম তো দূর তার জন্য নিরামিষ খাবারটাও নেই।এই অতিমারীর সময় নোংরা ‌টয়লেট হাজারবার বলেও পরিষ্কার করাতে না পারায় ভাই একদিন স্নান বাথরুম না করে না খেয়ে ছিল।"

এই সব জানতে পেরে প্রযোজক তাঁর ঘরে দেবদীপকে থাকতে দিয়েছিল বলে জানিয়েছেন তিনি। ফেরার দিনের কথা নিয়ে ভাস্বর লিখছেন, "গতকাল ছিল ফেরার পালা,অনেকবার জিজ্ঞেস করেও জানা যায় না কোন ট্রেন বা কোন ক্লাসে ফিরছে, স্টেশনে এসে জানা যায় স্লিপার ক্লাসের টিকিট। ভাই বলে কেন এসি টিকিট নেই? তাতে এই অমিত বোলপুর স্টেশনে ভাইয়ের উপরে চিৎকার করে ওঠে এবং ওর গায়ে হাত তোলে। বলে, যেতে হলে যা না হলে এখানে থাক। ভাই অবাক হয়ে বলে তুমি আমায় মারবে নাকি? তাতে অমিত বলে মারতে পারলে তো প্রথমদিনই তোকে মেরে পুতে দিতাম। ইউনিট এর একটা লোকও প্রতিবাদ করে না এবং সবাই ট্রেনে উঠে যায়।"

তখন বোলপুর স্টেশন থেকে দেবদীপ ফোন করেন প্রযোজককে। তিনি তাঁর কলকাতা ফেরার ব্যবস্থা করে দেন। ভাস্বর লিখছেন, "আমার কথা আমার ভাইয়ের যদি এই হাল হয় তাহলে নতুনরা যাদের পেছনে কেউ নেই তাদের কী হবে?অমিতের মত লোকের জন্য আজ আমরা সবাই বদনাম লোকে বলে এখানে সবাই সমান।এর প্রতিকার কী? আমার ইন্ডাস্ট্রির ওপর আস্থা আছে,আশাকরি এর বিহিত হবে আর অমিত ভবিষ্যৎ এ কারোর গায়ে হাত তোলার আগে দুবার ভাববে।" ভাস্বরের এই পোস্টে ইন্ডাস্ট্রিরই অনেকেই কমেন্ট করেন।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Bhaswar chatterjee