• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • TOLLYWOOD MOVIES BENGALI ACTRESS SHRUTI DAS FILES POLICE COMPLAINT IN KOLKATA WHO TROLLED FOR SKIN COLOUR RC

Shruti Das: 'শরীর বিক্রি করে কাজ পেয়েছে কালো মেয়ে', বর্ণবিদ্বেষের শিকার অভিনেত্রী শ্রুতি! দ্বারস্থ কলকাতা পুলিশের

শ্রুতি দাস।

২০১৯ সালে বাংলা টেলিভিশনে 'ত্রিণয়নী' সিরিয়াল দিয়ে অভিনয় জগতে পা রেখেছেন অভিনেত্রী শ্রুতি দাস (Shruti Das)।

  • Share this:

    #কলকাতা: ২০১৯ সালে বাংলা টেলিভিশনে 'ত্রিণয়নী' সিরিয়াল দিয়ে অভিনয় জগতে পা রেখেছেন অভিনেত্রী শ্রুতি দাস (Shruti Das)। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় কদর্য ভাষায় বর্ণবিদ্বেষের শিকার অভিনেত্রী। তাঁর গায়ের রং নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করা হচ্ছে বলে অভিযোগ শ্রুতির। শেষ পর্যন্ত কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ হয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। গত দু'বছর ধরেই তাঁকে এমন আক্রমণের শিকার হতে হচ্ছে বলে দাবি অভিনেত্রীর। তবে বিষয়টি প্রতিদিনই ব্যক্তিগত পর্যায়ে সীমা ছাড়িয়ে যাওয়ার পরই আইনের দ্বারস্থ হতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

    ট্রোলিংয়ের স্ক্রিনশট। ট্রোলিংয়ের স্ক্রিনশট।

    বর্তমানে 'দেশের মাটি' নামের একটি বাংলা সিরিয়ালে কাজ করছেন ২৫ বছরের অভিনেত্রী শ্রুতি। তিনি জানিয়েছেন, 'প্রথম প্রথম আমার চারপাশের সবাই আমাকে এমন ট্রোলকে পাত্তা না দেওয়ার উপদেশই দিয়েছে। আমি তাই করেওছি। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সেটা বেড়েই চলেছে। আমি আমার প্রথম সিরিয়াল ত্রিণয়নীর পরিচালকের সঙ্গে দৃঢ় সম্পর্কে রয়েছি। এটা জানাজানির পর থেকেই ট্রোলরা আমার চরিত্র নিয়ে এবং আমার কাজ নিয়ে প্রশ্ন করা শুরু করেছে। এভাবে চুপ থাকলে দিন দিন এটা বাড়তেই থাকবে বলে আমি মনে করি।'

    সমস্ত সমালোচনাকে প্রথমে উপেক্ষা করে চললেও, অভিনেত্রীর মতে সীমা পার করে গিয়েছে সেটি। সে কারণেই বাধ্য হয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। ফেসবুকে কলকাতা পুলিশকে ট্যাগ করে নোংরা কমেন্টগুলি সম্পর্কে তথ্য দিয়েছেন অভিনেত্রী। পুিলশের তরফেও ই-মেল মারফত বিস্তারিত জানাতে বলা হয়েছে। কলকাতা পুলিশের দাবি, 'গায়ের রং কালো হওয়ার জন্য অভিনেত্রী শ্রুতি দাসকে অনলাইনে হেনস্থা করার অভিযোগ আমরা পেয়েছি। অভিনেত্রী নিজে দাবি করেছেন, গত ২ বছর ধরে এমন হেনস্থার শিকার তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন নোংরা কমেন্টের স্ক্রিনশটও শেয়ার করেছেন তিনি।'

    View this post on Instagram

    A post shared by Shruti Das (@shrutidas_real)

    View this post on Instagram

    A post shared by Shruti Das (@shrutidas_real)

    তবে শুধু শ্রুতিই নন, বাংলা ইন্ডাস্ট্রির বাইরে বলিউডেও এমন উদাহরণ দেখা গিয়েছে আগে। প্রথম প্রথম কাজের সময় বিপাশা বসু, প্রিয়াঙ্কা চোপড়াদেরও গায়ের রং নিয়ে নানা কুরুচিকর মন্তব্যের শিকার হতে হয়েছে। তবে নিজের কাজ নিয়ে তাঁরা যেমন আত্মবিশ্বাসী ছিলেন, একই পথের পথিক বাঙালি মেয়ে শ্রুতিও। কাজেই সব কিছুর জবাব পাওয়া যাবে বলে বিশ্বাসী তিনি।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: