• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • যাঁরা ভোট দিলেন তাঁরা কি নাগরিক নন? সব ভোট কি বাতিল? প্রশ্ন তুললেন অপর্ণা সেন

যাঁরা ভোট দিলেন তাঁরা কি নাগরিক নন? সব ভোট কি বাতিল? প্রশ্ন তুললেন অপর্ণা সেন

যদি নাগরিকত্ব আইন লাগু করতেই হয় তবে নতুন করে আইন লাগু হওয়ার পর যারা "অনুপ্রবেশকারী" তাঁদের চিহ্নিত করা হোক।

যদি নাগরিকত্ব আইন লাগু করতেই হয় তবে নতুন করে আইন লাগু হওয়ার পর যারা "অনুপ্রবেশকারী" তাঁদের চিহ্নিত করা হোক।

যদি নাগরিকত্ব আইন লাগু করতেই হয় তবে নতুন করে আইন লাগু হওয়ার পর যারা "অনুপ্রবেশকারী" তাঁদের চিহ্নিত করা হোক।

  • Share this:

VENKATESWAR  LAHIRI

#কলকাতা:  নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ইস্যুতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ফের সরব হলেন  পরিচালক অপর্ণা সেন। তাঁর  প্রশ্ন, "এতদিন যারা ভোট দিলেন তাঁরা কি নাগরিক নন? যদি নাগরিক নাই হন, তাহলে বিগত দিনের সেই  সমস্ত ভোট বাতিল ঘোষণা করা হোক৷’’ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে অপর্ণা সেন এও বলেন, "এতদিন জানতাম ভোটার কার্ড নাগরিকত্বের প্রমাণ। কিন্তু আজ বলছে সেই ভোটার কার্ড নাগরিকত্বের প্রমাণ নয়। যুক্তির খাতিরে যদি তাই ধরেনি, এতদিন যে ভোটার কার্ড দেখিয়ে ভোট দিয়ে এসেছি আমরা তাহলে সেই ভোট বৈধ হয় কি করে? বিশেষ একটি রাজনৈতিক দল ধর্মের ভিত্তিতে রাজনীতি করছে। এটার বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন জারি থাকবে বলে নিজের মত স্পষ্ট করে দিয়ে নিউজ এইট্টিন বাংলাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অপর্ণা সেন বলেন, "যদি নাগরিকত্ব আইন লাগু করতেই হয় তবে নতুন করে আইন লাগু হওয়ার পর যাঁরা অনুপ্রবেশকারী তাঁদের চিহ্নিত করা হোক। কিন্তু বছরের পর বছর ধরে যাঁরা এই ভারতের বা আমাদের রাজ্যের নাগরিক তাঁদের কাছ থেকে নাগরিকত্বের প্রমাণ চাওয়া মানে অপমান করা ৷’’

এনআরসি, সিএএ বিরোধিতায় রাজ্যজুড়ে আন্দোলন চলছে। এ রাজ্যে আন্দোলনের মুখ অবশ্যই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও আন্দোলনের নামে তান্ডব, হিংসা কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে যে আন্দোলন জারি থাকবে তা স্পষ্ট করে দিয়ে তৃণমূল নেত্রী জানিয়েছেন, NRC, CAA মানছি না, প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত কেন্দ্রের বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক আন্দোলন জারি থাকবে। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে চলছে প্রতিবাদ। প্রতিবাদে সামিল ছাত্র-যুব থেকে নাগরিক সমাজের একটা বড় অংশ।

নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে আন্দোলন শুরু হয়েছে দেশের বিভিন্ন অংশে। NRC ও CAA’র প্রতিবাদে বিক্ষোভের আগুন জ্বলেছে কলকাতা সহ বঙ্গের বিভিন্ন এলাকাতেও । প্রতিবাদ মিছিল ও বিক্ষোভে  সামিল হয়েছেন সাধারণ মানুষ। বিক্ষোভের তপ্ত আঁচ ছড়িয়েছে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যেও। ইতিমধ্যেই আন্দোলনের পথ দেখিয়েছে দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। প্রতিবাদে পথে নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একাংশও। ইতিমধ্যেই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে মিছিলে হেঁটে প্রতিবাদ জানিয়েছেন অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন, সোহাগ সেন, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, ঋদ্ধি সেন ও সুরঙ্গনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো অনেক নামজাদা চিত্র পরিচালক ও অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। ডান, বামপন্থী মনোভাবাপন্ন মানুষজনও প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন। প্রত্যেকেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা কোনও কাগজ দেখাবেন না।CAA’র বিরোধিতা করে অনেকেই এই আইনের প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। আন্দোলনকারীদের কথায়, সরকারের কাছে এই বার্তা পৌঁছনো দরকার যে,  এমন অনেক মানুষ রয়েছেন, যাঁরা দিন আনে দিন খায়। কোনওমতে মাথা গুঁজে থাকে। তাঁদের যদি বলা হয়, নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে, তাহলে তাঁরা দেখাবে কী করে? এভাবে নাগরিকত্ব প্রমাণ করা যুক্তিহীন বলেই মনে করেন অপর্ণা সেনও।

Published by:Simli Raha
First published: