বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনে 'ফুডম্যান'-এর পাশে রুদ্রনীল, চন্দ্রশেখরের সঙ্গে মেলালেন হাত

আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনে 'ফুডম্যান'-এর পাশে রুদ্রনীল, চন্দ্রশেখরের সঙ্গে মেলালেন হাত

ফেসবুকে দেখে চন্দ্রশেখরকে ফোন করে পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেন রুদ্রনীল।

  • Share this:

#সুন্দরবন: বিপর্যয় ! 'দাদা আমি সাথে পাঁচে থাকি না।........ '। রুদ্রনীলের  এই ভিডিও এখন ভাইরাল । কিন্তু আমফান পরবর্তী সময়ে মানুষের দুঃখ কষ্ট যন্ত্রণার কথা শুনে আর চুপ করে বসে থাকতে পারলেন না । আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনে ফুডম্যানের কমিউনিটি কিচেনের পাশে দাঁড়ালেন অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ ।

আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনে প্রথমদিন থেকেই কমিউনিটি কিচেন চালাচ্ছেন আসানসোলের শিক্ষক 'ফুডম্যান' চন্দ্রশেখর কুন্ডু । ফেসবুকে এই বিষয়টি জেনে চন্দ্রশেখরকে ফোন করে পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেন রুদ্রনীল ।  এরপর কুলতলির বাবুরামচকের কমিউনিটি কিচেনের গ্রাউন্ড জিরোয় পৌঁছে দ্বায়িত্ব নিলেন প্রায় চারশো মানুষের । আসানসোলের বাসিন্দা পেশায় শিক্ষক চন্দ্রশেখর বলেন, "বহু মানুষ , ক্লাব ও সংস্থা এগিয়ে এসেছে সাহায্যের জন্য ।  কিন্তু দিনদিন চাপ বাড়ছে । লকডাউনের জন্যও আমফানের ক্ষতিগ্রস্তদের দুর্দশা আরও বেড়েছে । তাই দুমুঠো ভাতের জন্য লাইনও বাড়ছে । রুদ্রনীল যেভাবে পাশে দাঁড়ালো তাতে আজ অনেকটাই সুরাহা হল।"

২৩ মে প্রথম কিচেনটি শুরু হয় কুলতলির ৩৬ নম্বর লটে প্রভাতী মন্ডলের স্কুলে । আশেপাশের অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত ২০০ পরিবারের প্রায় ৬০০ মানুষের জন্য ।  শুরুর এক সপ্তাহের মধ্যে আরও ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা থেকে খবর আসতে শুরু করে । একে একে কমিউনিটি কিচেন শুরু হয় মৌসুনী দ্বীপ, সন্দেশখালি ন্যাজাট, চিতুরি ও কুলতলির বাবুরাম চকে । অসহায় মানুষগুলোর দুঃখ-দুর্দশা দেখে চোখে জল আসে চন্দ্রশেখর কুন্ডুর । কীভাবে এই সমস্ত মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াবেন তা ভেবে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে তাঁর ।

চার বছর ধরে দুঃস্থ মানুষদের সেবায় কমিউনিটি কিচেন চালানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে চন্দ্রশেখরের । আসানসোল , বাঁকুড়া , পুরুলিয়াসহ বর্তমানে কমিউনিটি কিচেন চালাচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় । কুলতলিতে গিয়ে দেখা গেল , রান্না হচ্ছে ভাত ও সোয়াবিন-আলুর তরকারি । পেটের জ্বালা মেটাতে কমিউনিটি কিচেনের  সামনে অভুক্ত মানুষের দীর্ঘ লাইন ।  চন্দ্রশেখর বললেন, "প্রতিদিন রাত তিনটে থেকে রান্নার আয়োজন করা হয় । বহু মানুষ চার কিলোমিটার দূর থেকে পায়ে হেঁটে আসেন । সকাল দশটায় শুরু হয় খাবার দেওয়া । আমার চার বন্ধুদের প্রতিষ্ঠিত সংস্থা 'ফিডে'র মাধ্যমে সুন্দরবনের পাঁচটা জায়গায় রোজ রান্না হচ্ছে ২৩০০ মানুষের  জন্য ।  কমিউনিটি কিচেনের খাবারের গুনমান , স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি ও  পরিচ্ছন্নতাকে সবসময় গুরুত্ব দিয়ে চলছে বিশাল এই কর্মযজ্ঞ' ।"

প্রথমে একমাস আমফান বিধ্বস্ত অঞ্চলে কমিউনিটি কিচেন চালাবেন ভেবেছিলেন । কিন্তু এখনও বাসিন্দাদের দুর্দশা চরমে , তাই আরও বেশ কয়েক মাস মানুষের পাশে থাকার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন । আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে দাঁড়িয়েও মানুষের সহযোগিতায় এগিয়ে চলেছে কমিউনিটি কিচেন । তবে যেভাবে অভিনেতা রুদ্রনীল কার্যত সব হারানো মানুষদের কথা ভেবে কমিউনিটি কিচেনের দায়িত্ব স্বেচ্ছায় নিজের কাঁধে তুলে নিতে এগিয়ে , এসেছেন তাতে আগামী দিনে তাঁকে দেখে আরও অনেকেই অনুপ্রাণিত হবেন বলে মনে করছেন সমাজবন্ধু চন্দ্রশেখর কুন্ডু ।

VENKATESWAR  LAHIRI

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 27, 2020, 3:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर