Home /News /entertainment /
The Kashmir Files: দ্য কাশ্মীর ফাইলসের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলায় কেজরিওয়ালের পর এবার ফারুক আব্দুল্লাহকে আক্রমণ বিবেক অগ্নিহোত্রীর!

The Kashmir Files: দ্য কাশ্মীর ফাইলসের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলায় কেজরিওয়ালের পর এবার ফারুক আব্দুল্লাহকে আক্রমণ বিবেক অগ্নিহোত্রীর!

Director Vivek Agnihotri: ফারুক আরও বলেন, একজন ‘সৎ’ মানুষকে নিয়ে ‘ট্রুথ অ্যান্ড রিকনসিলিয়েশন কমিশন' গঠন করা হোক যাতে সত্যটা প্রকাশ পায়।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দ্য কাশ্মীর ফাইলস (The Kashmir Files) সিনেমাকে বিজেপির ‘রাজনৈতিক প্রোপাগান্ডা’ বলে মনে করছেন দেশের একটা বড় অংশের সমালোচকরা। আর ঠিক এই কারণেই জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহকে (former Jammu and Kashmir CM Farooq Abdullah) কটাক্ষ করেছেন পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী (Vivek Agnihotri)। পিটিআইকে, ফারুক আবদুল্লাহ বলেছিলেন, “চলচ্চিত্রটি (The Kashmir Files) বাস্তবতা থেকে অনেক দূরে এবং শুধুমাত্র দেশের মানুষদের ধর্মীয় মেরুকরণের উদ্দেশ্যে তৈরি করা। আমি দেশকে বলতে চাই, এটা মোটেও দেশের স্বাস্থ্যকর উন্নয়ন নয়।” ফারুক আরও বলেন, একজন ‘সৎ’ মানুষকে নিয়ে ‘ট্রুথ অ্যান্ড রিকনসিলিয়েশন কমিশন' গঠন করা হোক যাতে সত্যটা প্রকাশ পায়। তাঁর বিবৃতিতে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে, কাশ্মীর ফাইলসের (The Kashmir Files) পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী (Vivek Agnihotri) আরজে সিদ্ধার্থ কান্নানকে একটি সাক্ষাত্কারে জানান, ফারুক আবদুল্লাহর এই বিষয়ে আলোচনা না করাই ভাল। যদি সম্পূর্ণ সত্য বেরিয়ে আসে তবে প্যান্ডোরার বাক্স খুলে যাবে।

    আরও পড়ুন- কাশ্মীর ফাইলসকে ব্যঙ্গ, কেজরিওয়ালকে 'প্রফেশনাল অ্যাবিউজার' বলে আক্রমণ বিবেকের!

    “সত্যি কথা যদি বলতে বসি তাহলে আবদুল্লাহ সাহব, জল অনেকদূর গড়াবে। এই বিষয়ে কথা না বাড়ালেই ওঁর মঙ্গল,” বলেন বিবেক অগ্নিহোত্রী। একটি সংবাদের ক্লিপিং দেখান বিবেক, যাতে লেখা রয়েছে, “রমেশ কুমার জিজ্ঞেস করছেন কীভাবে তিনি এখন নিজের নাম বলবেন, কারণ ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলার জন্য ইসলামিক মৌলবাদীরা তার জিভ কেটে ফেলেছে।” বিবেক অগ্নিহোত্রীর দাবি, ঘটনাটি ১৯৮৯ সালে ফারুক আবদুল্লাহর শাসনামলে ঘটেছিল।

    “ফারুক আবদুল্লাহ সাহেবের কথা না বলাই ভালো, সন্ত্রাসবাদীদের সঙ্গে ওঁর ছবি তো সবাই দেখেছে, ইয়াসিন মালিকের সঙ্গে ছবি রয়েছে, দুনিয়ার যত সন্ত্রাসবাদী রয়েছে সকলের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব রয়েছে। যখন এই সমস্যা শুরু হয় তখন সব ছেড়ে লন্ডনে পালিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। তাঁকে ‘ডিস্কো সিএম’ বলা হত কারণ যখন মানুষ মরত তিনি ডিস্কোতে নাচ করতেন। ওঁকে নিয়ে কত খবর প্রকাশ হত, যে যখন মানুষ মারা যাচ্ছে কাশ্মীরে তিনি বলিউডের নায়িকাদের বাইকে চড়িয়ে ঘোরাচ্ছেন। আর তাঁর যে হেডকোয়ার্টার ছিল, সেখানে তো বড় বড় সন্ত্রাসবাদীদের উপহার দেওয়া হত। কোটি কোটি টাকার মহল বানিয়ে রেখেছেন তিনি,” বলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা বিবেক অগ্নিহোত্রী।

    আরও পড়ুন- করোনা আক্রান্ত অভিনেত্রী লারা দত্ত! তবে কি দুয়ারে হাজির কোভিডের চতুর্থ ঢেউ?

    বিবেক আরও জানান, কেউ যদি আজ কাশ্মীরে যেতে চান, তারা যে কোনও গাড়ি চালককেই জিজ্ঞাসা করতে পারেন রাজ্যের অবস্থার কারণ সম্পর্কে। “তারপর দেখবেন আবদুল্লাহদের নাড়িনক্ষত্র সব স্পষ্ট হয়ে যাবে,” বলেন পরিচালক।

    এই মাসের শুরুতেই মুক্তি পেয়েছে দ্য কাশ্মীর ফাইলস (The Kashmir Files) এবং বেশ কয়েকটি বক্স অফিস রেকর্ড ভেঙে ফেলেছে এই সিনেমা। মাত্র ১৫ দিনে ২১১.৮৩ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে এই সিনেমা। মহামারী শুরু হওয়ার পর থেকে এখনও পর্যন্ত এটিই কোনও সিনেমার সর্বোচ্চ বক্স অফিস সংগ্রহ।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Farooq Abdullah, The Kashmir Files

    পরবর্তী খবর