• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • YRF Promotional Song Case: শাহরুখের 'ফ্যান’ ছবিতে কেন জবরা গানটি নেই? শিক্ষিকার করা মামলার উত্তর দিল সুপ্রিম কোর্ট

YRF Promotional Song Case: শাহরুখের 'ফ্যান’ ছবিতে কেন জবরা গানটি নেই? শিক্ষিকার করা মামলার উত্তর দিল সুপ্রিম কোর্ট

Image credits: Screengrab of SRK from Jabra Fan Song from 'Fan.' Credits: YRF/YouTube.

Image credits: Screengrab of SRK from Jabra Fan Song from 'Fan.' Credits: YRF/YouTube.

YRF Dragged to Court for Excluding Promotional Song in Fan: ট্রেলারে গান রয়েছে, কিন্তু ছবিতে তা না থাকায় সটান কনজিউমার ফোরামের দ্বারস্থ হন তিনি।

  • Share this:

#মুম্বই: ট্রেলারে যে গান থাকবে, তা কি ছবিতে থাকা বাধ্যতামূলক? এই নিয়ে আইনি মামলা চলেছে দীর্ঘ দিন ধরে, অভিযোগের কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে প্রযোজনা সংস্থাকেও। যদিও সুপ্রিম কোর্ট এই বিষয়ে কনজিউমার ফোরামের রায়ে স্থগিতাদেশ দিয়ে স্বস্তি দিয়েছে প্রযোজনা সংস্থাকে।

ট্রেলারে রয়েছে পছন্দের গান, কিন্তু ২ ঘণ্টা ১৮ মিনিট খুঁজেও তা পাননি এক দর্শক। ঠকানো হয়েছে এমন অভিযোগ তুলে সোজা পৌঁছে গিয়েছিলেন কনজিউমার ফোরামে। ২০১৬ সালের কথা হলেও সেই কেস চলেছে এত দিন। অবশেষে যশ রাজ ফিল্মসকে (Yash Raj Films) ১৫ হাজার টাকা ওই দর্শককে জরিমানা হিসেবে দিতে বলেছিল ন্যাশনাল কনজিউমার ডিসপুট রিড্রেসাল কমিশন (NCDRC)। সোমবার সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court) সেই রায়ে স্থগিতাদেশ দিল।

আরও পড়ুন- নাইটি পরা, মুখে অদ্ভূত মেকআপে এই মহিলাকে চিনতে পারছেন? গান গেয়ে ফের ভাইরাল রানাঘাটের রানু !

কথা হচ্ছে ফ্যান (Fan) ছবি নিয়ে। ট্রেলারে বিশাল-শেখরের (Vishal–Shekhar) সুরে জবরা ফ্যান (Jabra Fan) পছন্দ হয়েছিল দর্শকের। গানটি হিটও হয়েছিল অনেক। ছবিতেও সেই গান থাকবে এমনই আশা করেছিল সকলে। কিন্তু ছবিতে গান পাওয়া যায়নি। এই নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদের এক শিক্ষিকা। ট্রেলারে গান রয়েছে, কিন্তু ছবিতে তা না থাকায় সটান কনজিউমার ফোরামের দ্বারস্থ হন তিনি। কনজিউমার ফোরামের রায়ের পর তা যায় সুপ্রিম কোর্টে। কিন্তু বিচারপতি হেমন্ত গুপ্তা ও রাম সুব্রহ্মণ্যমের ডিভিশন বেঞ্চ বিষয়টিকে বিবেচনাধীন পর্যায়ে রেখেছে।

ঔরঙ্গাবাদের ওই শিক্ষিকা আফরিন ফতিমা জাইদি (Afreen Fatima Zaidi) প্রথমে জেলা কনজিউমার ফোরামে অভিযোগ জানান। পিটিশন খারিজ হয়ে যায়। পরে তিনি যান মহারাষ্ট্র কনজিউমার ফোরামে। সেখান থেকে ২০১৭-র ২২ সেপ্টেম্বর রায় দেওয়া হয়, প্রযোজনা সংস্থা অর্থাৎ যশ রাজ ফিল্মসকে জরিমানা বাবদ ১০ হাজার ও শিক্ষিকার আইনি খরচ বাবদ ৫, মানে মোট ১৫ হাজার টাকা দিতে হবে। এই রায় পরেও বহাল থাকে। পরে সুপ্রিম কোর্টে যায় বিষয়টি।

লাইভ ল' (Live Law) প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যায় যে আফরিন দাবি করেছিলেন, তাঁরা যেদিন সিনেমাটি দেখতে যান সেদিন সিনেমায় গানটি দেখতে না পাওয়ায় তাঁর সন্তানরা হতাশ হয়ে পড়ে। এর ফলে তারা রাতে বাড়ি ফিরে খায়নি, যার থেকে তাদের অ্যাসিডিটি হয় এবং হাসপাতালে পর্যন্ত নিয়ে যেতে হয়।

আরও পড়ুন- এই রাশির জাতক-জাতিকাদের শত্রুতা জন্মগত, আপনার পক্ষে ক্ষতিকর কে?

এদিকে, NCDRC-র তরফে ভি কে জৈন (V K Jain) বলেন, "আমি বুঝতে পারলাম প্রোমোতে গানটি ব্যবহার করা হয়েছে এবং তা মূল সিনেমায় রাখা হয়নি। এর মানে প্রযোজনা সংস্থার লক্ষ্যই ছিল, প্রোমোতে গানটি দিয়ে দর্শকদের বোঝানো যে গানটি সিনেমাতেও রয়েছে। কিন্তু তারা জানত সেটা সিনেমায় দেওয়া হবে না।"

কমিশনের তরফে আরও বলা হয়, ‘‘কোনও টিভি চ্যানেলে কোনও সিনেমার প্রোমো যখন প্রযোজনা সংস্থা দেখায় এবং তাতে গান থাকে, তখন যে কেউ প্রোমো দেখলে এটাই ধরে নেবে, সেখানে যে গানটি ব্যবহার করা হয়েছে তা মূল সিনেমাতেও থাকবে। যতক্ষণ না প্রোমোতে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে যে, গানটি সিনেমায় দেখা যাবে না, ততক্ষণ বিভ্রান্তি কাটবে না।’’

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: