Home /News /entertainment /

সুশান্ত কাণ্ডে মাস্টারমাইন্ড মোদির বায়োপিক প্রযোজক সন্দীপ সিং! চাঞ্চল্যকর অভিযোগ

সুশান্ত কাণ্ডে মাস্টারমাইন্ড মোদির বায়োপিক প্রযোজক সন্দীপ সিং! চাঞ্চল্যকর অভিযোগ

১৪ জুন ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত বান্দ্রার ফ্ল্যাটে কী ঘটেছিল? জানেন শুধু তিনজন। বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানি, রাঁধুনি নীরজ সিং ও হাউসমেট দীপেশ সাওয়ান্ত ৷ অভিনেতার রাঁধুনিকে জেরা করে সুশান্তের সম্পর্কে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গিয়েছে ৷ নীরজ জানিয়েছেন, সুশান্ত মাঝেমাঝে গাঁজার নেশা করতেন ৷ তাঁকে গাঁজার সিগারেট রোল করে দিত নীরজই ৷

১৪ জুন ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত বান্দ্রার ফ্ল্যাটে কী ঘটেছিল? জানেন শুধু তিনজন। বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানি, রাঁধুনি নীরজ সিং ও হাউসমেট দীপেশ সাওয়ান্ত ৷ অভিনেতার রাঁধুনিকে জেরা করে সুশান্তের সম্পর্কে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গিয়েছে ৷ নীরজ জানিয়েছেন, সুশান্ত মাঝেমাঝে গাঁজার নেশা করতেন ৷ তাঁকে গাঁজার সিগারেট রোল করে দিত নীরজই ৷

তিনি এ দিন অভিযোগ করেন হাসপাতালে থাকাকালীন দুবাই থেকে কোনও রহস্যময় ফোন এসেছিল সন্দীপের ফোনে।

  • Share this:

    #মুম্বই: সদ্য তদন্তভার নিয়েছে সিবিআই। যুদ্ধের তৎপরতায় ময়নাতদন্তের রিপোর্ট যাচাই থেকে অভিযুক্তদের জেরার আয়োজন করছে সিবিআই। এরই মধ্যে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন করণী সেনার নেতা সুরজিৎ সিং রাঠৌর। তাঁর দাবি, ‘মোদি’ বায়োপিকের প্রযোজক সন্দীপ সিংই সুশান্ত কাণ্ডে মাস্টারমাইন্ড।

    কুপার হাসপাতালের মর্গে যে দিন রিয়া সুশান্তকে দেখতে যান, সে দিন রিয়ার সঙ্গেই ছিলেন সুরজিৎ। সুরজিতের কথায়, "রিয়ার জন্যে আমিও সুশান্তের মুখের ঢাকনা সরাই। রিয়া ওইদিন সুশান্তের বুকে হাত রেখে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন এবং বলেছিলেন, 'সরি বাবু।'"সুরজিতের দাবি সেদিন তাঁরা দু'ঘণ্টা মর্গে ছিলেন।

    এ দিন সুরজিৎ এই তথ্যের পাশাপাশি একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, "সুশান্ত মৃত্যু রহস্যের অনেক তথ্যই জানি। প্রযোজক সন্দীপ সিংয়ের নির্দেশে কাজ করেছে মুম্বই পুলিশ। তাঁর নির্দেশেই আমায় মুম্বই পুলিশ একটি আলোচনা থেকে আমায় সরিয়ে দেয়। " রাঠৌর আরও বলছেন, ডিসিপি অভিষেক ত্রিমুখেকে তিনি গোটা ঘটনাই খুলে বলেছিলেন।

    তিনি এ দিন অভিযোগ করেন হাসপাতালে থাকাকালীন দুবাই থেকে কোনও রহস্যময় ফোন এসেছিল সন্দীপের ফোনে।

    প্রসঙ্গত, রিয়ার মর্গে যাওয়ার ঘটনাও ভালো ভাবে নেয়নি সুশান্তের পরিবার। সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী মনে করছেন, তথ্য লোপাটের উদ্দেশ্যেও রিয়া মর্গে গিয়ে থাকতে পারেন। এই আবহেই সেদিন মর্গে রিয়ার সঙ্গে থাকা এই কারনি নেতার অভিযোগ অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

    শেষ পাওয়া খবরে সিবিআই-এর তদন্তকারী বিশেষ দলটি বান্দ্রা পুলিশ স্টেশনে পৌঁছেছে।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    Tags: Sushant Sigh Rajput

    পরবর্তী খবর