নির্মলা মিশ্রর মতো তাঁর কানেও সোনার ঝাড়বাতি, দুলের ছবি দিয়ে ট্রোলড সুদীপা

সুদীপা চট্টোপাধ্যায়, ছবি-ফেসবুক

কালজয়ী গানের হাজার টাকার ঝাড়বাতি আজও দুর্মূল্য ৷ বিশেষ করে তা যদি সোনার দুল হয়ে সুদীপা চট্টোপাধ্যায়ের (Sudipa Chatterjee) কানে ওঠে! এবং সে ছবি তিনি ফেসবুকে দেন ৷

  • Share this:

    কলকাতা : কালজয়ী গানের হাজার টাকার ঝাড়বাতি আজও দুর্মূল্য ৷ বিশেষ করে তা যদি সোনার দুল হয়ে সুদীপা চট্টোপাধ্যায়ের (Sudipa Chatterjee) কানে ওঠে! এবং সে ছবি তিনি ফেসবুকে দেন ৷

    সুদীপা ফেসবুকে লিখেছেন, এই ঝাড়বাতিদুল তিনি প্রথম দেখেছিলেন নির্মলা মিশ্রর কাছে ৷ তখনই পছন্দ হয়েছিল ৷ বুঝতে পেরে শিল্পী তাঁর কান থেকে খুলে দিয়ে দিয়েছিলেন সুদীপাকে ৷ কিন্তু গায়িকার প্রিয় উপহার নিয়ে নিতে চাননি সুদীপা ৷ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ৷ বলেছিলেন, দুলের সঙ্গে আদর আর আশীর্বাদটুকু তিনি নিলেন ৷ সঙ্গে চেয়ে নিয়েছিলেন অগ্রজ শিল্পীর শুভকামনা ৷ যাতে একদিন ওরকম দুল তিনিও পরতে পারেন ৷

    অবশেষে সেই ঝাড়বাতি দুল এসেছে সুদীপার কাছেও ৷ পরম আকাঙ্খিত গয়নাটি পরে শো করেছেন, ছবিও দিয়েছেন সঞ্চলিকা ৷ তাঁর মনে গুঞ্জরিত হয়েছে, নির্মলা মিশ্রর কণ্ঠে অমর গান, ‘‘এমন একটি ঝিনুক খুঁজে পেলাম না- যাতে মুক্তো আছে..” ৷  কিন্তু সুদীপার আক্ষেপ, নির্মলা মিশ্রর মতো অমন সরল হাসি হাসতে পারেননি তিনি ৷

    এহেন সুখস্মৃতির অলঙ্কার ঘিরেই তিক্ততা ৷ ফেসবুকে ছবি দেওয়ার পরই ট্রোলিংয়ের শিকার সুদীপা ৷ ছবির সঙ্গে বিবরণে তিনি জানিয়েছেন, সোনার দুলটির নির্মাতা কোন সংস্থা ৷ তার পরেও জনৈক নেটিজেন জানতে চেয়েছেন, ‘‘দুলটা কি সোনার, দিদি?’’ উত্তরে সুদীপা বলেছেন, তিনি ইমিটেশন পরেন না ৷ তাঁর এই উত্তরে চটেছেন নেটিজেনরা ৷

    তাঁদের অভিযোগ, সুদীপার উত্তর অহঙ্কার এবং দম্ভে ভরা ৷ তিনি ওইভাবে উত্তর না দিলেই পারতেন ৷ একাধিক নেটিজেন সেই প্রসঙ্গে ছবি দিয়েছেন সোনা ছাড়া অন্য গয়না পরিহিত সুদীপার ৷ অনেকের বক্তব্য, অর্থের জন্যই সুদীপা বিয়ে করেছেন তাঁর থেকে বয়সে অনেক বড় অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়কে ৷ তার পর বড়াই করছেন সোনার গয়না দেখিয়ে! লিখছেন নেটিজেনরা ৷ কেউ কেউ ছবি দিয়েছেন সুদীপার বড় ননদের ৷ সেখানে তিনিও কানে ওই সোনার ঝাড়বাতি দুল পরে আছেন ৷

    তবে শুধুই তিক্ততা নয় ৷ বহু নেটিজেন ফিরে গিয়েছেন নিজেদের স্মৃতিতে ৷ জানিয়েছেন, তাঁরাও উপহার পেয়েছেন এমন ঝাড়বাতি দুল ৷ কেউ ফিরে গিয়েছেন নির্মলা মিশ্রের প্রসঙ্গেও ৷ বলেছেন, ওই উপহার তিনি বিবাহবার্ষিকীতে পেয়েছিলেন স্বামীর কাছ থেকে ৷ শ্যামল মিত্রের ভাইয়ের স্ত্রী এরকম দুল পরতেন, সে কথাও জানিয়েছেন এক নেটিজেন ৷

    তিক্ততা ও মেদুরতার মাঝেই একজন জানতে চেয়েছেন দুলের ওজন ও অন্যান্য খুঁটিনাটি বিষয়ে ৷ সুদীপা জানিয়েছেন তাঁকে ৷ বিতর্ক প্রসঙ্গে সঞ্চালিকার বক্তব্য, তিনি তো লিখেই দিয়েছেন, দুলজোড়া সোনার ৷ তার পরেও এই প্রশ্ন কেন?

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: