Home /News /entertainment /
Sonu Sood : 'ভারত সরকার সাহায্য করেনি, সোনু স্যর করলেন', বড় 'ফাঁদ' থেকে বাঁচলেন এই ভারতীয় যুবক

Sonu Sood : 'ভারত সরকার সাহায্য করেনি, সোনু স্যর করলেন', বড় 'ফাঁদ' থেকে বাঁচলেন এই ভারতীয় যুবক

'ভারত সরকার সাহায্য করেনি, সোনু স্যর করলেনট, বড় 'ফাঁদ' থেকে বাঁচলেন এই ভারতীয় যুবক

'ভারত সরকার সাহায্য করেনি, সোনু স্যর করলেনট, বড় 'ফাঁদ' থেকে বাঁচলেন এই ভারতীয় যুবক

Sonu Sood : আরও এক আটকে পড়া ব্যক্তিকে ভারতে ফেরালেন সোনু। আবারও মুগ্ধ করলেন নেটিজেনকে।

  • Share this:

    #মুম্বই: মসিহা তকমা বহু দিন আগেই পেয়েছেন অভিনেতা সোনু সুদ। আর সেই ধারাই বার বার বজায় রাখছেন তিনি। করোনা মহামারীর সময়ে ভিন রাজ্যে আটকে পড় বহু পরিযায়ী শ্রমিককে ঘরে ফিরিয়েছিলেন সোনু সুদ। বিদেশে পড়তে যাওয়া পড়ুয়াদেরও দেশে ফিরিয়ে এনেছিলেন তিনি। এবার আরও এক আটকে পড়া ব্যক্তিকে ভারতে ফেরালেন সোনু। আবারও মুগ্ধ করলেন নেটিজেনকে।

    মানুষ সমস্যা পড়লেই এখন সবার আগে সোনু সুদকে ট্যুইট করছেন সমাধানের জন্য। সাহিল খান নামে সেই ব্যক্তি ট্যুইট করেন, "আমি থাইল্যান্ডে আটকে আছি। এখান থেকে বেরনোর কোনও উপায় নেই। সোনু স্যর আপনাকে সাহায্যের অনুরোধ করছি।" এই ট্যুইটও নজরে পড়ে সোনুর। সঙ্গে সঙ্গে উত্তর দেন, "তোমায় টিকিট পাঠাচ্ছি। পরিবারের সঙ্গে দেখা করার সময় হয়ে এলো।"

    সাহিল খান সোনুর কেটে দেওয়া টিকিটের মাধ্যমেই দেশে ফেরেন এবং ফের একটি ট্যুইট করে সোনুকে কৃতজ্ঞতা জানান। একটি ভিডিও পোস্ট করেন সাহিল। সেই ভিডিওতে সাহিল বলেন, "হেলো সোনু স্যর সাহায্য করার জন্য। আপনার জন্য ভারতে ফিরতে পারলাম। আমি ভারত সরকার সহ আরও অনেকের কাছে সাহায্য চেয়েছিলাম। কিন্তু কেউ আমায় সাহায্য করার চেষ্টা করেনি। আমি জানতাম আপনি করবেন। আপনার জন্য ফিরতে পারলাম। এখন পরিবারের সঙ্গে দেখা করব। আমি খুব খুশি।"

    থাইল্যান্ডে চাকরির খোঁজে গিয়েছিলেন সাহিল। কিন্তু সেখানে গিয়ে তাঁর অভিজ্ঞতা ভাল হয়নি। তাঁর কথায়, "ওরা স্ক্যাম করছে চাকরির নামে। খুব খাটানোর উদ্দেশ্য। আমার পাসপোর্ট নিয়ে নেওয়া হয়। খুব খারাপ ইন্টারনেট কানেক্টিভিটি। কারও অনুমতি ছাড়া ওই অফিসের বাইরেও যাওয়া যাবে না। সোনু সুদের জন্য এই ফাঁদ থেকে ফিরে আসতে পারলাম।"

    আরও পড়ুন- রাতভর বৃষ্টির জেরে ভাঙলো নদীর বাঁধ,জল ঢুকছে গ্রামে! আতঙ্কে বাসিন্দারা

    কয়েক সপ্তাহ আগেই বিহারের এক শিশুকে অস্ত্রোপচারে সাহায্য করেন সোনু। চার হাত ও পা নিয়ে জন্মেছিল আড়াই বছরের চৌমুখী। অস্ত্রোপচারের ক্ষমতা নেই। সেই বাচ্চাটিরও অস্ত্রোপচারের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন এই সোনু সুদই।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    Tags: Sonu Sood

    পরবর্তী খবর