Home /News /entertainment /
Arjun Kanungo-KK: কেকে-র মতোই অবস্থা হয়েছিল কলকাতায় শো করতে গিয়ে, নিশ্বাস নিতে পারছিলাম না: অর্জুন

Arjun Kanungo-KK: কেকে-র মতোই অবস্থা হয়েছিল কলকাতায় শো করতে গিয়ে, নিশ্বাস নিতে পারছিলাম না: অর্জুন

Arjun Kanungo-KK: অর্জুন জানালেন, কোনও শ্যুট থাকলে, উদ্যোক্তারা আগেই শ্যুটিং লোকেশনের আশেপাশে কী কী হাসপাতাল আছে, তার তালিকা বানিয়ে নেন। সঙ্গে থানার তালিকাও করা থাকে।

  • Share this:

    #কলকাতা: ৩১ মে। শেষ অনুষ্ঠান কৃষ্ণকুমার কুন্নত ওরফে কেকে-র। গুরুদাস মহাবিদ্যালয় কলেজের ফেস্টে-র অনুষ্ঠান ছিল কলকাতা নজরুল মঞ্চে। সেখানেই রাত পর্যন্ত গান গেয়ে হোটেলে ফিরে যান কেকে। অনেক ক্ষণ ধরেই শরীর খারাপ লাগছিল তাঁর। স্টেজে দাঁড়িয়ে খুবই ঘামছিলেন তিনি। গরম লাগছিল খুব। হোটেলে পৌঁছেই শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হয়। সঙ্গে সঙ্গেই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। কিন্তু পৌঁছনোর পরেই চিকিৎসকরা তাঁক মৃত বলে ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী, হার্ট অ্যাটাকেই মৃত্যু হয়। কিন্তু তাঁর অসুস্থতার জন্য অনেকেই উদ্যোক্তাদের এবং নজরুল মঞ্চের অব্যবস্থাকে দায়ী করেছেন। এসি ঠিকঠাক না চালানো, নির্দিষ্ট সংখ্যার বেশি মনুষকে ঢুকতে দেওয়া ইত্যাদি বিভিন্ন ঘটনার কথা তুলে আঙুল তোলা হয়েছে পরিকাঠামোর দিকে।

    একাধিক সঙ্গীতশিল্পী ভারতবর্ষের অডিটোরিয়ামের পরিকাঠামোর দিকে বিশেষ নজর দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। এরই মাঝে সম্প্রতি কলকাতায় অনুষ্ঠান করার অভিজ্ঞতার কথা জানালেন আর এক সঙ্গীতশিল্পী অর্জুন কানুনগো। এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানালন, কেকে-র মতোই পরিস্থিত হয়েছিল তাঁর।

    আরও পড়ুন: কলকাতার দুর্গাপুজোর থিমেও এবার কেকে! ধরা থাকবে নজরুল মঞ্চের সেই শেষ মুহূর্ত

    তিনি বললেন, ''স্টেজে অনুষ্ঠান করতে করতে আমি নিশ্বাস নিতে পারছিলাম না। ভাবতে পারবেন না কী বীভৎস গরম! এসি ঠিক মতো কাজ করছিল না। এই ধরনের পুরনো অডিটোরিয়ামগুলো ভাল করে রক্ষণাবেক্ষণ করা হয় না। এর ব্যবস্থা নিতে হবে। কেকে গান গাওয়র সময়ে যে এসি ঠিক করে কাজ করছিল না, তা কি উদ্যোক্তারা জানতেন না? তাঁরা যদি জানতেন যে কেকে অসুস্থ বোধ করছিলেন, সেই মুহূর্তেই শো বন্ধ করে দওয়া উচিত ছিল। একটা শো-এর থেকে বেশি জরুরি তাঁর প্রাণ।''

    আরও পড়ুন: গাইয়েছিলেন রূপঙ্করকে দিয়ে, সেই 'এ তুমি কেমন তুমি' কেকে-র জন্য পাল্টে দিলেন সুমন!

    অর্জুন জানালেন, কোনও শ্যুট থাকলে, উদ্যোক্তারা আগেই শ্যুটিং লোকেশনের আশেপাশে কী কী হাসপাতাল আছে, তার তালিকা বানিয়ে নেন। সঙ্গে থানার তালিকাও করা থাকে। তাই যে কোনও অনুষ্ঠান শুরু করার আগে মেডিক্যাল বন্দোবস্ত করাটা খুব দরকার বলে মনে করেন অর্জুন। শিল্পীরা অসুস্থ বোধ করলে সঙ্গে সঙ্গে কাজ বন্ধ করে তাঁর চিকিৎসা করানো উচিত বলে জানালেন গায়ক।

    Published by:Teesta Barman
    First published:

    Tags: KK Death, Kolkata, Nazrul Mancha, Singer KK death

    পরবর্তী খবর