corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘মা স্টেশনে গান গাইত, আমি তো জানতাম-ই না !’ অকপট রাণু মণ্ডলের মেয়ে সাথী

‘মা স্টেশনে গান গাইত, আমি তো জানতাম-ই না !’ অকপট রাণু মণ্ডলের মেয়ে সাথী
রাণুর সাহায্যকারী অতীন্দ্র চক্রবর্তী সম্পর্কে একরাশ বিদ্বেশ উগড়ে দিলেন সাথী। জানালেন, '' অতীন্দ্র চক্রবর্তী ও রানাঘাটের 'আমরা সবাই শয়তান ক্লাব' -এর সদস্যরা মায়ের সুযোগ নিচ্ছে। আমার বিরুদ্ধে মাকে উলটোপালটা কথা বলছে। ওরা আমায় হুমকি দিয়েছেন, মায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইলে, এমনকী ফোন করলেও মেরে আমার পা ভেঙে দেবে।''

সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরে রাণু মণ্ডল নামটি এখন বিশ্বের ঘরে ঘরে ৷ একটি গানেই নিজেকে দুনিয়ার কাছে তুলে ধরেছেন রানাঘাটের রাণু ৷

  • Share this:

#কলকাতা: সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরে রাণু মণ্ডল নামটি এখন বিশ্বের ঘরে ঘরে ৷ একটি গানেই নিজেকে দুনিয়ার কাছে তুলে ধরেছেন রানাঘাটের রাণু ৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই রোজ রাণুকে নিয়ে খবর মত্ত দেশি-বিদেশি মিডিয়া ৷

একদিকে যখন মায়ের বিশ্বজোড়া নাম ৷ ঠিক তখনই সমালোচনার ঝড়ে আক্রান্ত রাণুর মেয়ে সাথী এলিজাবেথ রায় ৷ মায়ের জনপ্রিয়তার পর রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিলেন হয়ে গেলেন রাণুর মেয়ে সাথী ৷ অনেকেই বলতে শুরু করলেন এমনি সময় মাকে পাত্তাই দিতেন না সাথী ৷ জনপ্রিয়তা আসার পরই সোজা মায়েক কাছে ৷ অনেকে তো এটাও বলতে শুরু করেন যে, টাকার গন্ধ পেয়েই নাকি স্টেশনে বসে থাকা মায়ের কাছে চট জলদি ছুট্টে এলেন সাথী ৷

তবে সম্প্রতি নিজের নামে আসা এই অভিযোগকে ফুঁ দিয়ে উড়িয়েছেন রাণু মণ্ডলের মেয়ে সাথী ৷ সোজাসুজি সংবাদমাধ্যমকে সাথী জানিয়েছেন, ‘আমার নামে ওঠা সব অভিযোগ মিথ্যে ৷ আমি সব সময়ই মায়ের খোঁজ নিতাম ৷ আমার এক কাকার কাছে মায়ের নামে প্রত্যেক মাসে ৫০০ টাকা করে পাঠাতাম ৷ এমনকী, একদিন আমি দেখি, মা ধর্মতলার এক বাসস্ট্যান্ডে বসে রয়েছে ৷ আমি মাকে হাতে ২০০ টাকা দিয়ে বাড়ি ফিরে যেতে বলি ৷’

স্টেশনে গান গেয়েই যেখানে ভাইরাল হলেন রাণু, সেই কথাই নাকি জানতেন না তাঁর নিজের মেয়ে সাথী ৷ সংবাদমাধ্যমকে রাণুর মেয়ে সাথী জানিয়েছেন, ‘আমি নিজের বিধবা ৷ শিউড়িতে ছোট্ট একটা দোকান চালাই ৷ আমার ছোট্ট একটা বাচ্চা রয়েছে ৷ এর মধ্যেও আমি মাকে যতটা পাড়ি সাহায্য করি ৷ তার পরেই আমার নামে নানা অভিযোগ উঠছে ৷ সত্যি কথা বলতে, আমি জানতামই না, যে রেলওয়ে স্টেশনে বসে গান গায় !’

First published: September 3, 2019, 2:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर