গোয়ার অরণ্য ধ্বংস করে রেললাইন! প্রতিবাদে গর্জে উঠলেন রণদীপ হুডা

রণদীপ হুডা হলিউড প্রজেক্টে শুটিং করে এলে মিডিয়াতে বড় খবর হয়।

রণদীপ হুডা হলিউড প্রজেক্টে শুটিং করে এলে মিডিয়াতে বড় খবর হয়।

  • Share this:

    শর্মিলা মাইতি

    #মুম্বই: রণদীপ হুডা হলিউড প্রজেক্টে শুটিং করে এলে মিডিয়াতে বড় খবর হয়। নিঃসন্দেহে সেটা বড়সড় ব্যাপার। কিন্তু দেশে ফেরার পর তিনি যা করলেন,  তাতে মানুষ হিসেবে তিনি কতটা উচ্চদরের সেটা জানতে পারল গোয়ার বাসিন্দারা। প্রকৃতিকে বাঁচাতেই হবে, এ নিয়ে বার বার বলিষ্ঠ মতামত দিয়েছেন রণদীপ হুদা। হাজার হাজার গোয়াবাসী জড়ো হয়েছিলেন চান্দর গ্রামে। দক্ষিণ গোয়ায় অবস্থিত এই গ্রাম। মারগাঁও ও সানভরদেমের মাঝখানে রেললাইন তৈরীর জন্য সত্তর হাজার পূর্ণবয়স্ক গাছ কাটা হবে। মধ্যরাতে তাঁরা প্রতিবাদ মিছিল জড়ো হন। নির্বিচারে অরণ্য ধ্বংস করতে দেবেন না তাঁরা, এমনই ছিল তাঁদের দাবী। বন্ধ করতে হবে সরকারের এই পদক্ষেপ। তখনও মিডিয়ার নজরে আসেনি এই প্রতিবাদ। রাজনৈতিক হস্তক্ষেপে।

    রণদীপ হুডা তাঁদের পাশে দাঁড়ালেন। নিজে দেখা করেছেন শুধু নয়, টুইটারে সবার কাছে বার্তা পৌঁছে দিলেন তিনি।

    শুধুমাত্র রেললাইন তৈরির জন্য গোয়ার মতো প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে সমৃদ্ধ এক রাজ্যে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া অনুচিত, জানিয়েছেন তিনি। টুইটারে লিখেছেন ৷

    করোনা-পরবর্তী অধ্যায়ে আমাদের প্রকৃতি সচেতন হতে হবে। এটি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করেন তিনি। তাই রেললাইন যদি তৈরি করতেই হয়, তাহলে বনাঞ্চলের মধ্য দিয়ে নয়, পাশ দিয়ে বানাতে হবে। সরকারকে আরও গভীরভাবে চিন্তা করতে হবে পরিবেশের দিকটি।
    রণদীপ হুদার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকেই। কিন্তু তাতে অরণ্য বাঁচানো যাবে কি না তা অবশ্য বলা যাচ্ছে না এখনই।
    Published by:Akash Misra
    First published: