• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • Puneeth Rajkumar: নজির স্থাপন প্রয়াত তারকা পুনীত রাজকুমারের, তাঁর দান করা চোখে আলো জ্বলবে কারওর অন্ধকার দৃষ্টিতে

Puneeth Rajkumar: নজির স্থাপন প্রয়াত তারকা পুনীত রাজকুমারের, তাঁর দান করা চোখে আলো জ্বলবে কারওর অন্ধকার দৃষ্টিতে

শুক্রবার সকালে মাত্র ৪৬ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন পুনীত

শুক্রবার সকালে মাত্র ৪৬ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন পুনীত

Puneeth Rajkumar: নিজের দু’টি চোখ দান করে গিয়েছেন এই কন্নড় তারকা৷ কিংবদন্তি অভিনেতা বাবার দেখানো পথেই পা রেখেছেন তিনি৷

  • Share this:

    অকালপ্রয়াণে নজির স্থাপন করে গেলেন পুনীত রাজকুমার (Puneeth Rajkumar)৷ তাঁর দান করা চোখে আলো জ্বলবে কারওর অন্ধকার দৃষ্টিতে৷ কিংবদন্তি অভিনেতা বাবার দেখানো পথেই পা রেখেছেন তিনি৷

    পুনীত রাজকুমারের বাবা প্রয়াত ডক্টর রাজকুমার (Dr. Rajkumar) ১৯৯৪ সালে মরণোত্তর চক্ষুদানের অঙ্গীকার করেছিলেন৷ এই প্রসঙ্গে সচেতনতা প্রসারেও তিনি সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করেছিলেন৷ সেই ধারা এবং ঐতিহ্য অনুসরণ করে তাঁর পরিবার দান করে দিয়েছে প্রয়াত পুনীত রাজকুমারের দুই চোখ (eye donation)৷

    আরও পড়ুন : পুনীত রাজকুমার থেকে সিদ্ধার্থ শুক্লা, কম বয়সেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে চলে গেলেন যাঁরা...

    নারায়ণ নেত্রালয়ের চেয়ারম্যান ডক্টর ভুজঙ্গ শেট্টী জানিয়েছেন, ‘‘ডক্টর রাজকুমার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে তাঁর পরিবারের প্রত্যেক সদস্য মরণোত্তর চক্ষুদান করবেন৷ তাঁর সেই কথা পরিবার রেখেছে৷ এমনকি এই কঠিন সময়েও দুপুরবেলা তাঁরা আমাকে ফোন করে প্রয়াত অভিনেতার চোখের কর্নিয়া সংগ্রহ করতে বলেছেন৷ তাঁরা প্রকৃতই সাহসী৷’’

    তিনি আরও যোগ করেন, ‘‘আমার দল প্রয়াত পুনীত রাজকুমারের কাছ থেকে এক জোড়া স্বাস্থ্যকর চোখ সংগ্রহ করেছে৷ আমাদের হাসপাতালে গ্রহীতাদের এক লম্বা তালিকা অপেক্ষা করে আছে৷ সৌভাগ্যক্রমে চক্ষুদানের ক্ষেত্রে ব্লাড গ্রুপ মেলানোর দরকার হয় না৷ আমরা শীঘ্রই সংগৃহীত চোখ ব্যবহার করতে পারব৷ আগামিকাল বা তার পর ওই চোখ আমরা প্রতিস্থাপিত করতে পারব বলে আশা করছি৷ আবার তাঁরা জগতের আলো দেখতে পাবেন৷’’

    আরও পড়ুন : 'আমার মন মানে তুমি এখানেই আছ', প্রয়াত সিদ্ধার্থের জন্য গান গাইলেন শেহনাজ! দেখুন ভিডিও

    শুক্রবার সকালে মাত্র ৪৬ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন পুনীত৷ জিমে শরীরচর্চা করার সময় তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন৷ অচৈতন্য অবস্থায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় বিক্রম হাসপাতালে৷ সেখানে তাঁকে সুস্থ করে তোলার বহু চেষ্টা করেও হার মানেন চিকিৎসকরা ৷

    তারকার অকালপ্রয়াণে ট্যুইটবার্তায় শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোমানি৷

    আরও পড়ুন : মুক্তির অপেক্ষায় পটার নতুন গান 'ভিজতে এসো রাধা'

    মাত্র ৬ বছর বয়সে শিশু অভিনেতা হিসেবে পুনীত প্রথম অভিনয় করেন ৷ এর পর ২০০২ সালে ‘আপ্পু’ ছবিতে তিনি প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন৷ তাঁর অভিনীত ছবিগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল ‘মৌ্র্যা’, ‘আরাসু’, ‘রাম’ এবং ‘অঞ্জনি পুত্র’৷ অভিনয়ের পাশাপাশি গান ও নাচের ক্ষেত্রেও তিনি ছিলেন দক্ষ৷

    অকালপ্রয়াত পুনীত রেখে গেলেন তাঁর স্ত্রী, দুই সন্তান এবং অসংখ্য অনুরাগীকে ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: