Mimi and Nusrat : ‘বান্ধবী মা হতে চলেছে...আর আপনি নিশ্চিন্তে পোজ দিচ্ছেন’, মিমির ছবিতে কটূক্তি

মিমি চক্রবর্তী ও নুসরত জাহান, ছবি-ফেসবুক

আর এক তারকা সাংসদ নুসরত জাহানের সঙ্গেও মিমির বন্ধুত্ব অন্তরঙ্গ ৷ সেই নিয়েও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি নেটিজেনরা ৷

  • Share this:

    কলকাতা : কেশসজ্জা পাল্টে কি মনমেজাজ ভাল করতে চাইছেন মিমি চক্রবর্তী? প্রশ্ন তাঁর অনুরাগীদের ৷ মঙ্গলবার নিজের প্রোফাইলে নিজের নতুন লুক শেয়ার করলেন তারকা সাংসদ ৷ হেয়ারস্টাইল পাল্টে ফেলায় সেখানে তাঁকে চেনাই দায় ৷ বরাবরই মিমির চুল লম্বা ৷ ঈষৎ তামাটে রং করা সেই চুলে এ বার কাঁচি পড়ল ৷ প্রশস্ত কপালের উপর এসে পড়েছে গুচ্ছখানেক চুল ৷ শৌখিনী অভিধানে এর নাম ‘ব্যাংস’৷ নতুন হেয়ারস্টাইলের সঙ্গে গোলাপি টপ, সাদা শ্রাগ, গলায় হাল্কা চেন, কানে বড় দুল-গরমে কুল লুক যাদবপুরের সাংসদের ৷

    গত কয়েক দিন ধরেই তারকা এই সাংসদের ব্যস্ততার অন্ত নেই ৷ ইয়াস পরবর্তী সময়ে উজ্জ্বল হয়ে উঠেছিল মিমির জনপ্রিতিনিধি ভাবমূর্তি ৷ ট্যুইটারে আশ্বস্ত করেই তাঁর দায়িত্ব ফুরিয়ে যায়নি ৷ ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করে ত্রাণবিলির ব্যবস্থাও করেছেন তিনি ৷ গত বছর আমফানের সময়েও সক্রিয় ছিলেন মিমি ৷

    ব্যস্ততার মাঝেও সাংসদ ভুলে যাননি তাঁর বন্ধুদের ৷ সে প্রমাণ জ্বলজ্বল করছে পার্ণো মিত্রর ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে ৷ এক বাক্স আমের ছবি শেয়ার করে সেখানে মিমিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পার্ণো ৷ বিরোধী রাজনৈতিক দলের অংশ হওয়ার পরও দুজনের বন্ধুত্ব অক্ষুণ্ণ আছে ৷ তাঁদের সম্পর্কে ছায়া ফেলেনি বিপরীত মেরুর রাজনৈতিক মতাদর্শ ৷ বিধানসভা নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পরও মিমির সঙ্গে বন্ধুত্ব থেকে সরে আসেননি পার্ণো ৷ জটিলতা থেকে দূরে তাঁদের বন্ধুত্ব রাজনৈতিক সৌজন্যেরই প্রতীক ৷

    আর এক তারকা সাংসদ নুসরত জাহানের সঙ্গেও মিমির বন্ধুত্ব অন্তরঙ্গ ৷ সেই নিয়েও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি নেটিজেনরা ৷ ইদানীং নুসরতের সন্তানসম্ভবা হওয়ার গুঞ্জন নিয়ে আলোচনা ও চর্চা তুঙ্গে ৷ সেই রেশ ধরেই ট্রোলিং করা হয়েছে মিমির নতুন ছবিতে ৷ এক নেটিজেনের মন্তব্য, ‘বান্ধবী মা হতে চলেছে এদিকে বাবা কে সেটা জানা নেই..আর আপনি নিশ্চিন্তে পোজ দিচ্ছেন!!’ মিমিকে সেই পোস্টে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে নুসরতের পাশে দাঁড়ানোর ৷ পাশাপাশি, অন্যান্য মন্তব্যেও উড়ে এসেছে কটূক্তি ৷ কিন্তু ট্রোলিং করে যে তাঁকে দমানো যায় না,আগেও তার নজির রেখেছেন মিমি ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: