Iman Chakraborty: ত্রাণ নিয়ে গোসাবার পথে, রুদ্ধগতি লঞ্চে বসে লাইভ শেষেই মরা গাঙে এল জোয়ার

ইমন চক্রবর্তী, ছবি-ফেসবুক

ট্রোলিং উড়িয়ে গত কয়েক দিন ধরেই ইয়াসবিধ্বস্ত এলাকায় ত্রাণ বিলি করছেন ইমন ৷ ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছেন তমলুক, হিঙ্গলগঞ্জ, সন্দেশখালি ৷

  • Share this:

    কলকাতা : ইয়াসত্রাণ নিয়ে এ বার ইমন ও তাঁর সহযোগীদের গন্তব্য গোসাবা ৷ শনিবার দুপুরে গোসাবার পথে লঞ্চে বসেই ফেসবুক লাইভ করেন গায়িকা ৷ সে সময় কচুখালি এলাকায় আটকে গিয়েছিল তাঁদের লঞ্চ ৷ ইমন জানান, গত চার ঘণ্টা ধরে তাঁদের যাত্রা জারি গন্তব্যের উদ্দেশে ৷ কিন্তু দীর্ঘক্ষণ আটকে থাকতে হয় ভাটার সময়ে ৷ জোয়ারের জন্য অপেক্ষা ছাড়া উপায় ছিল না ৷

    রুদ্ধগতি লঞ্চে বসেই লাইভে তাঁর হিতৈষীদের ধন্যবাদ জানান ইমন ৷ চাল, ডাল এবং শুকনো খাবার নিয়ে তাঁরা যাচ্ছিলেন গোসাবা এলাকার কমিউনিটি কিচেনের দিকে ৷ সেখানে তাঁরা পৌঁছে দেবেন প্রয়োজনীয় শুকনো রসদ ৷ নদীর দুপাশে বিধ্বস্ত অস্থায়ী শিবিরগুলিকে দেখান ইমন ৷ সেখানকার মানুষজনের বন্ধুর জীবন ভুলতে পারছেন না গায়িকা ৷ লাইভে ইমন আলাপ করিয়ে দেন তাঁর সহযোগীদের সঙ্গেও ৷

    ট্রোলিং উড়িয়ে গত কয়েক দিন ধরেই ইয়াসবিধ্বস্ত এলাকায় ত্রাণ বিলি করছেন ইমন ৷ ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছেন তমলুক, হিঙ্গলগঞ্জ, সন্দেশখালি ৷ শুভেচ্ছার পাশাপাশি উড়ে এসেছে যথেচ্ছ ট্রোলিং ৷ শুনতে হয়েছে, পরের বার নির্বাচনে দাঁড়াবেন তিনি ৷ তাই এত জনসেবা ৷ কিন্ত ইমন ট্রোলিংকে ভয় পান না ৷ কারণ তিনি বিশ্বাস করেন, ‘ভাল রাখাটা একটা আর্ট ৷ সেটা সবাই পারে না৷’ তাই তিনি সরে আসেননি ত্রাণবণ্টন থেকে ৷ শুধু মানুষের বিপন্নতাই নয় ৷ তাঁকে ছুঁয়ে গিয়েছে পথকুকুরের সমস্যাও ৷ তিনি তাদের খাবার বিলির ব্যবস্থা করেছেন ৷ রক্তদান করেছেন থ্যালাসেমিয়া রোগী জন্য ৷ সেখানেও শুনতে হয়েছে, রক্তদান করে তার ছবি শেয়ার করার কী হয়েছে? বা, উল্কি করালে কি রক্তদান করা যায়?—এরকম অসংখ্য প্রশ্ন ৷

    তাঁকে ঘিরে ট্রোলিং পর্ব শুরু হয়েছিল ‘সারেগামাপা’ ফাইনালের সময় থেকেই৷ অভিযোগ উঠেছিল, তিনি প্রভাব খাটিয়েছেন বিজয়ী নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে ৷ তাঁর বিরুদ্ধে পুরনো সেই ক্ষোভ এখনও উগরে দিচ্ছেন নেটিজেনদে একাংশ ৷ সম্প্রতি ইমন লাইভ করেছেন ‘বাড়িয়ে দাও তোমার হাত’ শীর্ষক অনুষ্ঠান নিয়ে ৷ করোনা ও ইয়াস ত্রাণে ব্যবহার করা হবে এই অনলাইন কনসার্টের টিকিট বিক্রির টাকা ৷ সেখানে গান গাইবেন ইমনও ৷ সেই সংক্রান্ত পোস্টের নীচেও কেউ কেউ কমেন্ট করেছেন সারেগামাপা বিতর্ককে টেনে ৷

    শত ট্রোলিং সত্ত্বেও ইমন তাঁর লক্ষ্যে অবিচল ৷ শনিবার লাইভের মধ্যে মরা গাঙে এল জোয়ারের জল ৷ আর, ‘জয় মা’ বলে তরী তো সেই কবেই ভাসিয়েছেন ইমন ৷
    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: