‘কাঁটা লাগা গার্ল’ শেফালি-র নতুন টিপস, কী উপায় বাতলালেন, দেখুন ভিডিও

Kanta laga girl Shefali Jariwala promotes proning to improve oxygen levels amid covid 19 crisis

করোনাকালে বাড়াতে হবে রোগীর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা, তিনটি উপায় বাতলে দিলেন শেফালি জরিওয়ালা!

  • Share this:

#মুম্বই: কোভিডের নতুন স্ট্রেন প্রভাব ফেলেছে গোটা দেশে। কবে এর থেকে নিষ্কৃতি পাবে সাধারণ মানুষ, তা এখন লাখ টাকার প্রশ্ন। এক দিকে করোনার সঙ্গে লড়ছে সাধারণ মানুষ, অন্য দিকে যুদ্ধ করছে প্রশাসন ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। এর পাশাপাশি সেলেবরাও নানা ভাবে তাঁদের অনুগামীদের পাশে থাকার চেষ্টা করছেন, সেটা কখন অর্থ সাহায্য, চিকিৎসা সাহায্য বা সোশ্যাল সচেতনতামূলক পোস্টের মাধ্যমে। অভিনেত্রী শেফালি জরিওয়ালা (Shefali Jariwala) সম্প্রতি একটি সোশ্যাল পোস্টের মাধ্যমে তাঁর অনুগামীদের প্রোনিং-এর (Proning) সুবিধার কথা তুলে ধরেন।

শেফালি একটি IGTV ভিডিও পোস্ট করেছেন যাতে তিনি বলে দিয়েছেন একজন করোনা রোগীর শ্বাস নিতে কষ্ট হলে কী ভাবে তাঁর দেহে অক্সিজেনের প্রবাহকে স্থিতিশীল ও উন্নত করা যায়। ভিডিওটিতে তিনি তিন ধরনের প্রোনিং-এর পদ্ধতি করে দেখিয়েছেন, যা দেখাতে গিয়ে অভিনেত্রী বলেছেন এই পদ্ধতি চিকিৎসকরা অনুসরণ করে। তাই বিশেষ করে বাড়িতে যে সমস্ত করোনা রোগীরা রয়েছেন, তাঁরা প্রোনিং-এর পদ্ধতি অনুসরণ করলে অনেকটা সুরক্ষিত থাকবেন। তবে যাঁরা গর্ভবতী ও শিরদাঁড়ায় যাঁদের সমস্যা রয়েছে, তাঁরা প্রোনিং করলে যেন কোনও চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে করেন- এটাও তিনি বলেছেন।

প্রোনিং-এর পদ্ধতি

১. প্রথম পদ্ধতিতে শেফালি দেখিয়েছেন, করোনা রোগীকে একটি গদিতে কী ভাবে শোওয়াতে হবে। মাথার দিকে একটি বালিশ, পেটের নিচে খালি থাকবে। এর পর কোমরের নিচে একটি বালিশ রাখতে হবে এবং পায়ের নিচে আর একটি বালিশ রাখতে হবে। ৩০ মিনিট এই পদ্ধতি অনুসরণ করে উপুড় হয়ে শুয়ে থাকতে হবে।

২. দ্বিতীয় পদ্ধতিতে, রোগীকে একপাশে শুইয়ে রাখতে হবে, এক হাত সরাসরি মাথার উপরে এবং অপরটি একটি পায়ের পাশে রাখতে হবে। এই ভাবে ৩০ মিনিট শোওয়ার পর অন্য দিকে একই ভাবে ৩০ মিনিট শুতে হবে।

৩. তৃতীয় পদ্ধতিতে, রোগীকে তাঁদের পিছনে কয়েকটি বালিশ রাখতে হবে এবং ৩০ মিনিট ৩০-ডিগ্রি কোণে শুয়ে থাকতে হবে।

অভিনেত্রী ভিডিওতে দাবি করেছেন এই পদ্ধতি যাঁদের অক্সিজেন লেভেল ৯৪-এর থেকে নিচের দিকে নামতে থাকবে তাঁদের জন্য উপকারী সাব্যস্ত হবে।

Published by:Debalina Datta
First published: