• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • প্রযোজকদের আচরণ বড্ড অমানবিক, যা দুঃখজনক : দেবযানী

প্রযোজকদের আচরণ বড্ড অমানবিক, যা দুঃখজনক : দেবযানী

‘জড়োয়ার ঝুমকো’ ধারাবাহিকে দেবযানী চট্টোপাধ্যায় ৷ ছবি: ফেসবুক ৷

‘জড়োয়ার ঝুমকো’ ধারাবাহিকে দেবযানী চট্টোপাধ্যায় ৷ ছবি: ফেসবুক ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: বাংলা ধারাবাহিকে এখন যে কয়েক জন ‘ভিলেন’ টেলিভিশন মাতিয়ে রেখেছেন, তাঁদের মধ্যে তিনি অন্যতম। তাঁকে দেখে রাগে ফেটে পড়েন দর্শক। আবার অভিনয়ের প্রশংসায় ভরিয়েও দেন। তিনি পর্দার ‘গিনি রায়’। ‘জড়োয়ার ঝুমকো’ ধারাবাহিকের মূল নেগেটিভ চরিত্র ছিলেন তিনি ৷ একইসঙ্গে ‘খোকাবাবু’ধারাবাহিকের নায়িকা তরীর মায়ের চরিত্রে তিনি ছিলেন এক্কেবারে পারফেক্ট ‘মা’৷ অর্থাৎ মা বলতে যা বোঝায় এক্কেবারে তাই ৷ অন্যদিকে,‘রাখী-বন্ধন’ ধারাবাহিকে তিনিই আবার পাথর-কঠিন ৷

    সব মিলিয়ে দর্শকদের প্রতিনিয়ত ভিন্ন ভিন্ন রূপে অভিনয় দেখিয়ে এসেছেন যিনি তিনি হলেন, দেবযানী চট্টোপাধ্যায় ৷ গত শনিবার থেকে টেলি পাড়ায় শুটিং বন্ধ। চরম অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে ইন্ডাস্ট্রিতে। আর্টিস্ট ফোরাম এবং প্রযোজকদের দফায় দফায় বৈঠকের পর মঙ্গলবারও কোনও সমাধান সূত্র বের হয়নি। খারাপ লাগা তো রয়েছেই তাঁর থেকে বেশি রাগ হচ্ছে বলে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন অভিনেত্রী৷

    বরাবরই সোজাসাপটা অভিনেত্রীকে,টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে তৈরি হওয়া অচলাবস্থা নিয়ে জিজ্ঞাসা করতেই তিনি বললেন,‘‘আর্টিস্ট ফোরাম যা দাবি করছেন তা কোনও অন্যায্য নয় ৷ শিল্পীদের দুটো দাবি ৷ এক-কাজের সময়সীমা হোক দশ ঘণ্টা ৷ আর দুই-বকেয়া মিটিয়ে দেওয়া হোক আর সময়মতো যাতে শিল্পীরা তাঁদের পারিশ্রমিক পান ৷ এই দুটো দাবি মানতে কীসের যে এতো ওজোর-আপত্তি সেটাই তো বুধতে পারছি না ৷’’

    প্রযোজকদের সঙ্গে আর্টিস্ট ফোরামের সদস্যদের গতকালের বৈঠকে প্রযোজকদের দাবি,একই দিনে নাকি তিনটি সিরিয়ালেরও কাজ করেন কোনও কোনও শিল্পী। এ প্রসঙ্গে দেবযানী বলেন, ‘‘সমস্যাটা কোথায় ? কেউ তো জোর করে কাজটা করছেন না ৷ তাঁদের ওই চরিত্রের জন্য কাস্ট করা হচ্ছে বলেই তো তাঁরা অভিনয় করছেন ৷ আর এখন যা কাজের চাপ, তাতে, এক সিরিয়ালের শুটের পিছনেই দশ ঘণ্টা চলে যায় ৷ এ সব অবান্তর কথা বলে তো কোনও লাভ নেই ৷’’

    শোনা গিয়েছে, বৈঠক চলাকালীন প্রযোজকদের আচরণ নিয়ে অনেক শিল্পীই বেশ অসন্তুষ্ট ৷ এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘এটা এক্কেবারে অপ্রত্যাশিত ৷ প্রযোজক এবং শিল্পীদের মধ্যে একটা সম্মান বিনিময়ের জায়গা থাকে ৷ তুমি সিরিয়ালে টাকা ঢালছো বলে, শিল্পীদের সম্মান করবে না! আমরাও তো তোমাদের সম্মান করছি ৷ কী হচ্ছে এ সব ৷ সিনিয়র শিল্পীদের সঙ্গে এমন বাজে ব্যবহার ৷ সত্যিই দুঃখজনক ৷’’ তবে তিনি আশাবাদী এ কথা জানাতেও ভোলেননি তিনি ৷ দেবযানীর মতে,‘‘আমি মনে করি খুব তাড়াতাড়ি সমস্ত সমস্যা মিটে যাবে ৷ আর তা আলোচনার মাধ্যমেই সম্ভব হবে বলেই আমার আশা ৷ আমরা চাই শিল্পীরা তাঁদের যোগ্য সম্মাম পাবে ৷ আর যা হবে ভাল হবে ৷’’

    First published: