Priyanka Chopra-Nick Jonas: নিকের এই পোস্টে স্বামীর তীব্র যৌবন থেকে চোখ সরছে না প্রিয়াঙ্কার!

প্রিয়াঙ্কা ও নিক।

নিকের এই শারীরিক অসুবিধা সত্বেও তাকে অতিক্রম করার চেষ্টা, সর্বোপরি তীব্র যৌবনের প্রাবল্য মুগ্ধ করেছে প্রিয়াঙ্কাকে (Priyanka Chopra-Nick Jonas)।

  • Share this:

#লস অ্যাঞ্জেলেস: সেলিব্রিটিদের দাম্পত্য জীবনের বেশির ভাগটাই যে কাটে একে অপরের থেকে দূরে দূরে, সে কথা বেশ ভালো মতোই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রমাণ করে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস (Priyanka Chopra Jonas) এবং তাঁর স্বামী নিক জোনাস (Nick Jonas)। আসলে কাজের সূত্রে নায়িকা এখন আছেন লন্ডনে, অন্য দিকে তাঁর গায়ক তথা অভিনেতা স্বামী রয়েছেন তাঁদের লস অ্যাঞ্জেলসের বাড়িতে। সেই বাড়িতেই এবার এক ব্র্যান্ড এনডোর্সমেন্টের শ্যুটিং সেরে ফেললেন নিক জোনাস।

এর আগে আমরা জেনেছিলাম যে প্রিয়াঙ্কার যেমন অ্যাজমার সমস্যা আছে, নিকও তেমনই ডায়াবেটিক! সেই দিক থেকে প্রিয়াঙ্কা Cipla-র ইনহেলার এনডোর্স করলেও নিক কিন্তু তাঁর শারীরিক সমস্যা নিয়ে নিজের মতো ছিলেন এত দিন পর্যন্ত, কোনও ব্র্যান্ড এনডোর্সে যাননি। তবে এবার গেলেন। সম্ভবত কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই তাঁদের লস অ্যাঞ্জেলসের বাড়ির জিমে এবং স্যুইমিং পুলের ধারে বিজ্ঞাপনের দু'টি দৃশ্য শ্যুট করা হয়েছে। যার প্রথমটায় নিককে দেখা গিয়েছে পাঞ্চিং ব্যাগ নিয়ে ঘাম ঝরাতে, দ্বিতীয় দৃশ্যে স্যুটেড অবতারে সামনে এসেছেন এই সুপুরুষ।

View this post on Instagram

A post shared by NICK JONɅS (@nickjonas)

সঙ্গত কারণেই নিকের এই শারীরিক অসুবিধা সত্বেও তাকে অতিক্রম করার চেষ্টা, সর্বোপরি তীব্র যৌবনের প্রাবল্য মুগ্ধ করেছে প্রিয়াঙ্কাকে। নিকের সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে একটা ড্রুলিং ইমোজি দিয়ে সে কথা বুঝিয়ে দিয়েছেন নায়িকা, বলতে চেয়েছেন যে স্বামীকে দেখে তাঁর যেন আর চোখ সরছে না! অবশ্য এটাই প্রথম নয়, নিকের জীবনীশক্তি যে কতটা তীব্র, তার পরিচয় আমরা এর আগেও পেয়েছি। কিছু দিন আগেই গুরুতর মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় পাঁজরে চোট পেয়েছিলেন নিক, কিন্তু তার পরের দিনেই হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যোগ দেন শ্যুটিংয়ে। সেবারেও প্রিয়াঙ্কা সোশ্যাল মিডিয়ায় তারিফ করেছিলেন স্বামীর প্রাণপ্রাচুর্যের, এবারও পিছ-পা হলেন না!

সমস্যা শুধু একটাই- একে অপরের কাছে না থাকা! অবশ্য শ্যুটিং শেষ করে যখন বাড়ি ফিরবেন নায়িকা, তখন যে দাম্পত্যে প্রেমের ভরা কোটাল আসবে, তা অনুমান করে নেওয়াই যায়! এর আগেও কাজ শেষ করে তাঁদের আমরা তুখোড় অন্তরঙ্গ আবেশে ছুটি কাটাতে দেখেছি, দেখা যাক, এবার কত দিনে সেই মুহূর্ত আবার ফিরে আসে সোশ্যাল মিডিয়ায়!

Published by:Raima Chakraborty
First published: