‘বিয়ে না করে সন্তানের জন্ম দিয়ে ঠিক করিনি’ অতীতের সিদ্ধান্তের জন্য আফসোস নীনার

‘বিয়ে না করে সন্তানের জন্ম দিয়ে ঠিক করিনি’ অতীতের সিদ্ধান্তের জন্য আফসোস নীনার

নীনার দাবি, সিঙ্গল মাদার ও তাঁর সন্তানকে সমাজ কখনই ভাল চোখে দেখে না ৷ ফলে সারাজীবন তাঁদের অনেক কঠিন পরিস্থির সম্মুখীন হতে হয় ৷

  • Share this:

#মুম্বই: নীনা গুপ্ত ৷ বরাবরই ছক ভাঙা ৷ বরাবরই সাহসিনী, স্পষ্টবাদী, আপোস না করা দৃঢ়চেতা অভিনেত্রী ৷ যে সময় তিনি সিঙ্গল মাদার হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সে সময় তাঁর সেই সিদ্ধান্ত সমাজের বুকে কঠিন আঘাতের মতোই ছিল ৷ কিন্তু দমে যাননি সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে উঠে আসা অভিনেত্রী নীনা গুপ্ত ৷

তরুণী বয়সে একাধিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন নীনা ৷ কখনও সেই সমস্ত সম্পর্কের খথা গোপন করেননি ৷ তারমধ্যে সবচেয়ে আলোচিত ছিল ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডের সঙ্গে নীনার সম্পর্ক ৷ আশির দশকে তাঁদের সেই সম্পর্ক নিয়ে চর্চা কম হয়নি ৷ ১৯৮৯ সালে ভিভের মেয়ে মাসাবার জন্ম দেন নীনা ৷ কিন্তু ভিভ বা নীনা কেউই বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হতে চাননি ৷ ফলে সিঙ্গল মাদার হিসাবেই মাসাবাকে বড় করে তুলেছেন নীনা ৷

তবে এত বছর পেরিয়ে এসে অতীতে নিজের সেই সিদ্ধান্তের জন্য আফসোসের সুর অভিনেত্রীর গলায় ৷ সম্প্রতি ‘মুম্বই মিরর’-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে নীনা বলেন, যদি কোনওভাবে সেই সময়ে ফিরে যেতে পারতেন তাহলে বিয়ে না করে সন্তানের জন্ম দেওয়ার সিদ্ধান্ত কখনই নিতেন না ৷ তার কারণ হল, একটি শিশুর জন্য বাবা-মা দু’জনের স্নেহই খুব গুরুত্বপূর্ণ ৷ মাসাবা সে সমস্ত আনন্দ থেকে বঞ্চিত হয়েছে ৷ নীনা বলেন, ‘‘মাসাবাকে আমি একা বড় করেছি, ওর সঙ্গে আমার ও ভিভ—দু’জনের সম্পর্কই ভাল। কিন্তু জানি ওর শৈশব সুখের হয়নি।’’

View this post on Instagram

Sweet but could bite.

A post shared by Mufasa (@masabagupta) on

শুধু তাই নয়, নীনার দাবি, সিঙ্গল মাদার ও তাঁর সন্তানকে সমাজ কখনই ভাল চোখে দেখে না ৷ ফলে সারাজীবন তাঁদের অনেক কঠিন পরিস্থির সম্মুখীন হতে হয় ৷

জীবনের বেশিরভাগ সময়টাই একা কাটিয়েছেন নীনা ৷ তবে মাসাবা বড় হয়ে যাওয়ার পর একাকীত্বে ভুগতেন তিনি ৷ অবশেষে ২০০৮ সালে গাঁটছড়া বাঁধেন ‘বাধাই হো’-র অভিনেত্রী ৷ দিল্লির চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট বিবেক মিশ্রকে বিয়ে করেন তিনি ৷ বর্তমানে সুখেই ঘরকন্না করছেন তিনি ৷

 

 

First published: 01:26:30 PM Jan 15, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर