• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • Shilpa Shetty on Raj Kundra: 'কামোদ্দীপক ছবি ও পর্ন ফিল্ম এক জিনিস নয়, রাজ নির্দোষ', স্বামীর পাশে দাঁড়ালেন শিল্পা

Shilpa Shetty on Raj Kundra: 'কামোদ্দীপক ছবি ও পর্ন ফিল্ম এক জিনিস নয়, রাজ নির্দোষ', স্বামীর পাশে দাঁড়ালেন শিল্পা

রাজ ও শিল্পা।

রাজ ও শিল্পা।

রাজ কুন্দ্রার (Raj Kundra) তৈরি 'হটশটস' মোবাইল অ্যাপে কী ধরনের বিষয়বস্তু নিয়ে ছবি দেখা যেত তা সঠিক ভাবে জানেন না শিল্পা শেট্টি (Shilpa Shetty on Raj Kundra)।

  • Share this:

    #মুম্বই: রাজ কুন্দ্রার (Raj Kundra) তৈরি 'হটশটস' মোবাইল অ্যাপে কী ধরনের বিষয়বস্তু নিয়ে ছবি দেখা যেত তা সঠিক ভাবে জানেন না শিল্পা শেট্টি (Shilpa Shetty on Raj Kundra)। মুম্বই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চের জেরায় এমনটাই দাবি করেছেন শিল্পা (Shilpa Shetty)। শিল্পার বরং অভিযোগ লন্ডননিবাসী প্রদীপ বক্সির বিরুদ্ধে, যে সম্পর্কে রাজের শ্যালক হন। এই অ্যাপ নিয়ে তিনিই সবচেয়ে বেশি জানেন ও কাজ করতেন বলে দাবি করেছেন শিল্পা। এরই পাশাপাশি, কামোদ্দীপক ছবি এবং নীলছবি যে এক জিনিস নয় তা জোর দিয়ে প্রমাণ করার চেষ্টাও চালিয়েছেন রাজ-পত্নী।

    শুক্রবারের পর শনিবারও শিল্পা শেট্টিকে রাজ কুন্দ্রার পর্ন ফিল্ম ব্যবসার মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। শুক্রবার শিল্পাদের বাংলোতে গিয়ে তল্লাশি চালিয়েছিল পুলিশ। বয়ান রেকর্ড করা হয় শিল্পার। সূত্রের খবর, পুলিশের একটি বড় দল এদিন শিল্পাদের বাংলোয় যান এবং সেখানেই রাজ কুন্দ্রার ব্যবসা সম্পর্কে শিল্পাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তাঁরা। পুলিশ শিল্পার কাছ থেকে জানতে চেয়েছে, তিনি কি রাজ কুন্দ্রার এই পর্ন ফিল্ম ব্যবসার সম্পর্কে জানতেন? ছেলে ভিয়ানের নামে যে কোম্পানি চালান রাজ, তার আর্থিক লেনদেনের সম্পর্কেও শিল্পাকে জিজ্ঞেস করা হয়। ভিয়ান কোম্পানির ডিরেক্টরের পদে ছিলেন শিল্পা শেট্টি। কতদিন এই পদে ছিলেন তিনি?

    ২০২০ সালে সেই পদ থেকে আচমকা কেন ইস্তফা দিয়েছিলেন শিল্পা, সেই প্রসঙ্গেও তাঁকে প্রশ্ন করেছেন তদন্তকারীরা। এর পাশাপাশি, কোম্পানির আর্থিক লেনদেনে শিল্পার নিজস্ব কোনও লাভ হয়েছে কিনা, তার জন্য শিল্পার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টেরও স্টেটমেন্ট খতিয়ে দেখা হবে। সম্প্রতি ভিয়ান কোম্পানির অফিসে হানা দিয়ে ২০ টিবি ডেটা ও সাতটি সার্ভার বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, সার্ভার থেকে একাধিক ডেটা ডিলিট করা হয়েছে। কোম্পানির বাইরে ও ভিতরের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ তদন্ত করছে কে বা কারা এই ফুটেজ ডিলিট করেছেন। ফরেন্সিক দলকে দিয়ে ডিলিট হয়ে যাওয়া ডেটা উদ্ধারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

    পুলিশ জানতে পেরেছে, রাজ কুন্দ্রার অ্যাকাউন্ট থেকে মার্কারি ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি ক্রিকেট বেটিং কোম্পানিকে বিপুল টাকার লেনদেন করা হয়েছিল। সেখান থেকে রাজ ও শিল্পার কোনও আর্থিক লাভ হয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট ২৭ জুলাই পর্যন্ত রাজ কুন্দ্রার পুলিশ হেফাজতের মেয়াদ বাড়িয়ে দিয়েছে, অন্যদিকে এই গ্রেফতারিকে অবৈধ দাবি করে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন রাজ কুন্দ্রা।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: