‘এই পাগলামির শেষ কোথায়?’ JNU-র ঘটনার তীব্র নিন্দায় সরব গোটা বলিউড

‘এই পাগলামির শেষ কোথায়?’ JNU-র ঘটনার তীব্র নিন্দায় সরব গোটা বলিউড
  • Share this:

#মুম্বই: JNU-র হামলার প্রতিবাদে মুখ খুললেন সেলেবরা ৷ ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা ৷ আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ দিল্লির জওহরলাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ও তিনটি হস্টেলে ঢুকে তাণ্ডব চালায় একদল দুষ্কৃতি ৷ হামলায় মাথা ফেটেছে ছাত্র ইউনিয়নের সভানেত্রী ঐশী ঘোষের ৷ গুরুতর আহত আধ্যাপিকা সুচরিতা সেনও ৷ তাঁদের এআইআইএমএস-এ ভর্তি করা হয়েছে ৷ আহত আরও ২৩জন ছাত্রছাত্রীকে এআইআইএমএস এবং সফদরজঙ্গ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ৷ জহওরলাল ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস ইউনিয়নের তরফে অভিযোগ, অতর্কিতে তাঁদের উপর হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী ৷ সকলেরই মুখ মুখোশে ঢাকা ছিল ৷ দুষ্কৃতীরা সকলেই অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের আশ্রিত বলে জানিয়েছেন তাঁরা। সরাসরি এভিবিপি-র দিকে আঙুল তুলেছেন স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সদস্যরা ৷ ছাত্রদের অভিযোগ এই ঘটনার পরেও কার্যত নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে দিল্লি পুলিশ ৷ নিরস্ত্র ছাত্রছাত্রীদের উপর হামলা হওয়া সত্ত্বেও প্রায় তিন ঘণ্টা পর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ফ্ল্যাগ মার্চ করে পুলিশ ৷ এই ঘটনা সামনে আসতেই দেশ জুড়ে কঠোর সমালোচনা শুরু হয় ৷ নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে একটি ভিডিও পোস্ট করেন অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর ৷ সকলকে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে জমায়েত হওয়ার আহ্বান জানান ৷ এবিভিপি-র এই তাণ্ডব ও দিল্লি পুলিশের নীরবতার প্রতিবাদে বাবা গঙ্গনাথ মার্গের সামনে জনসমাবেশের ডাক দিলেন স্বরা ৷

ঘটনার পরেই একে একে ট্যুইট করতে শুরু করেন বলিতারকারা ৷ নেহা ধুপিয়া লেখেন- ‘‘এই পাগলামির শেষ কোথায়? নিষ্পাপ জীবনের দাম কবে দিতে শিখবে এঁরা? এই পর্যায়ের গুন্ডামি সহ্য করা যায় না ৷’’

মোদি-শাহকে তোপ দেগে পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ বলেন, ‘‘মোদি,অমিত শাহ সন্ত্রাসবাদী ৷ বিজেপি, এবিভিপি সন্ত্রাসবাদী ৷ এখন আর এটা বলতে বাধা নেই ৷’’ JNU-এ হামলার নিন্দা করেন অভিনেত্রী শাবানা আজমিও ৷ JNU-এ হামলায় তিনি হতবাক বলে জানান শাবানা ৷ দোষীদের দ্রুত শাস্তির দাবিও তোলেন বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রী ৷  

অভিনেতা রিতেশ দেশমুখ ট্যুইট করে লেখেন, ‘‘কেন তোমার মুখ ঢাকার দরকার পড়ছে? কারণ তুমি জানো তুমি কিছু একটা ভুল করছো.....’’ ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন অভিনেত্রী তপসী পান্নু, পূজা ভাট, সোনম কাপুর, অনুরাগ বসুও ৷  
First published: January 6, 2020, 12:09 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर