• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • BOLLYWOOD ARSHI KHAN AFGHAN ACTRESS ARSHI KHAN SAID THAT SHE IS AN INDIAN NOT PAKISTANI SWD

Arshi Khan: 'আমি পাকিস্তানি নই, ভারতীয়!' নাগরিকত্ব নিয়ে ট্রোলড হয়ে কী বললেন আরশি

Arshi Khan: আরশি নিজেও আফগানিস্তানেই জন্মেছিলেন। আর তাই নাগরিকত্ব নিয়ে ট্রোলড হতে হয়েছে তাঁকে।

Arshi Khan: আরশি নিজেও আফগানিস্তানেই জন্মেছিলেন। আর তাই নাগরিকত্ব নিয়ে ট্রোলড হতে হয়েছে তাঁকে।

  • Share this:

    #মুম্বই: দিন কয়েক আগেই আফগানিস্তানে তালিবানি রাজ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন অভিনেত্রী আরশি খান। বলেছিলেন আফগানিস্তানের আত্মীয় ও বন্ধুদের জন্য খুব চিন্তা হচ্ছে। আরশি নিজেও আফগানিস্তানেই জন্মেছিলেন। আর তাই নাগরিকত্ব নিয়ে ট্রোলড হতে হয়েছে তাঁকে। দাবি আরশির। সেই প্রসঙ্গেই মুখ খুললেন বিগবস খ্যাত অভিনেত্রী।

    আরশি জানিয়েছেন, তাঁকে পাকিস্তানিও ভেবেছেন অনেকে। আর তাই কাজ পেতেও সমস্যা হয়েছে। তাই বার বার আরশি জানিয়েছেন, তিনি আফগানিস্তানিও নয়। সেখানে জন্ম হলেও, এখন তিনি ভারতীয়। এক সংবাদমাধ্যমের কাছে আরশি বলছেন, "আমার খুব কঠিন সময় গিয়েছে। একটা সময় অকারণে নাগরিকত্ব নিয়ে মানুষ আমায় ট্রোল করেছে। এরা আমায় ভারতে বসবাসকারী পাকিস্তানি ভেবে ট্রোল করেছে। আর এর জন্য কাজের ক্ষেত্রেও আমার সমস্যা হয়েছে। আমার জীবনের দুঃখজনক অভিজ্ঞতা এগুলি।"

    আরশি জোর দিয়ে বলছেন, "আমি পরিষ্কার ভাবে বলতে চাই যে আমি সব দিক দিয়েই ভারতীয়। ভারত সরকার অনুমোদিত সমস্ত আইডি কার্ড আমার কাছে রয়েছে। আমি পাকিস্তানের মানুষ নই।"

    ৪ বছর বয়স যখন তখন পরিবারের সঙ্গে আফগানিস্তানে ভারতে এসেছিলেন আরশি। তিনি বলছেন, আমি একজন আফগানি পাঠান। ইউসুফ জাহির পাঠান জাতির পরিবার আমার। আফগানিস্তান থেকে ফিরে আমার দাদু ভোপালের জেলর ছিলেন। আমার গোড়া আফগানিস্তানে হলেও, আমি একজন ভারতীয়। এখনও আফগানিস্তানে রয়েছেন আরশির কয়েকজন বন্ধু। তাদের নিয়েই চিন্তায় রয়েছেন তিনি।

    আরশি সংবাদমাধ্যমের কাছে বলছেন, "আমার জন্ম আফগানিস্তানে। পরে পরিবারের সঙ্গে ভারতে এসেছি। তালিবান শাসন চলে আসায় আফগানিস্তানের মহিলাদের কথা ভেবে আমি চিন্তিত। আমি আফগানি পাঠান। আমার ভয় করছে, গায় কাঁটা দিচ্ছে। আমি ওখানেই জন্মেছিলাম। এখনও আমি যদি ওখানে থাকতাম! এসব ভেবে ভয় চিৎকার করতে ইচ্ছে করছে।"

    তিনি আরও বলছেন, "আমি খুব কষ্ট পাচ্ছি। খাবার খেতে পাচ্ছি না। আমার পরিবার প্রার্থনা করছে ওদের জন্য। আমাদের এখনও ওখানে আত্মীয় ও বন্ধুবান্ধব আছে। এটা খারাপ সময়। আর আমরা অসহায়। আশা করছি এমন কিছু হোক যাতে সব ঠিক হয়ে যাক।"

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: