Akshay Kumar Bell Bottom: খিলাড়ির খেল শুরু! Bell Bottom পুরো 'পয়সা উসুল' ছবি বলছেন হলমুখো দর্শকরা

Movie Bell Bottom

প্রথম দিনই ছক্কা হাঁকিয়ে গেলেন অক্ষয় কুমার৷ খিলাড়ির খেল শুরু হল প্রথম থেকেই

  • Share this:

    #মুম্বই: মোস্ট ওয়ান্টেড বেল বটম (Bell Bottom) নিয়ে প্রত্যাশার পারদ চড়ছিল৷ দীর্ঘ সময়ের পর বলিউডের (Bollywood film Hall Release) কোনও ছবি সিনেমা হলে মুক্তি পেল৷ তাই তো সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছিল জোর চর্চা৷ এবং এই ছবির প্রথমিক ব্যবসার উপর নির্ভরশীল ছিল পরবর্তী পর্যায়ে বলিউডের পদক্ষেপ৷ প্রথম দিনই ছক্কা হাঁকিয়ে গেলেন অক্ষয় কুমার৷ খিলাড়ির খেল শুরু হল প্রথম থেকেই৷ ফলে করোনার কোপ ও লকডাউনের প্রভাব কাটিয়ে ফের একবার লক্ষ্মী লাভের মুখ দেখছে বলিউড৷ বেল বটম ছবি দেখে সকলেই প্রশংসা করছেন৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় অক্ষয় ভক্তরা লিখছেন, ধন্যবাদ অক্ষয় কুমারকে সিনেমা হলে আমাদের ফিরিয়ে আনার জন্য৷

    ৮র দশকে হাইজ্যাকিং-এর ঘটনা অবলম্বনে তৈরি হয়েছে এই ছবি৷ অনশুল মলহোত্রা যাঁর কোড নাম বেল বটম, তিনিই এগিয়ে আসেন সকলকে উদ্ধারে৷ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তিনি বৈঠক করেন এবং প্রমাণও করেন যে বিচ্ছিন্নবাদী সংগঠনগুলো কখনও দেশের কথা চিন্তা করে না৷ এদের সকলের পিছনে রয়েছে ISI-র মদত৷ এর জেরে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মিসেস গান্ধি নিজের মন্ত্রীকে বিতারিত করেন এবং বেল বটমের উপর আস্থা রাখেন৷ তাঁকেই দায়িত্ব দেওয়া হয় আন্ডারকভার মিশনের৷ এই সিক্রেট এজেন্টের ভূমিকায় অক্ষয় কুমার৷ যিনি এর আগে এই ধরণের চরিত্রে অভিনয় করেছেন৷ এবং এই ছবিতেও তিনি নিজের কাজটি যথেষ্ট নিপুণভাবেই করেছেন৷ একই ভাবে তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দিয়েছেন বানি কাপুর, হুমা কুরেশি, লারা দত্ত, আদিল হুসেন৷

    ছবির গল্পও মনে ধরেছে দর্শকদের৷ এক কথায় পয়সা উসুল ছবি বলছেন তাঁরা৷ অক্ষয় কুমারের ছবি মানেই ব্লকবাস্টার হিট৷ এবারে সেই ধরা বজায় থাকছে, অন্তত প্রথমদিন দর্শক প্রতিক্রিয়া তাই বলছে৷

    করোনার আগের সময়ের থেকে ৩৫ শতাংশ ঘাটতি ধরেই ছবি মুক্তির সিদ্ধান্ত নেন প্রযোজকরা৷ ঝুঁকি নিয়েও নিজের ছবি বেল বটমের মুক্তির সিদ্ধান্ত নেন অক্ষয়৷ কারণ তিনি বিশ্বাস করেন যে এগিয়ে না এসে উপায় নেই৷ একে একে হলে ছবি মুক্তি না হলে কোনও ভাবেই এই জট ছাড়বে না৷ ফলে সাহস নিয়েই হলে ছবি মুক্তির পথে হাঁটলেন খিলাড়ি৷ তিনি মনে করেছিলেন যে বেল বটম ছবি মুক্তির আগে মুম্বইয়ে হল খোলার অনুমতি মিলবে৷ তবে তা হয়নি৷ সে কারণে গুজরাতের সুরাতে ছবির বিশেষ প্রদর্শন করেন তিনি৷ বিশেষ এই শোয়ের জন্য সাংবাদিকদের উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় চার্টারে৷

    গত বছর অক্ষয়ের ছবি লক্ষ্মী মুক্তি পায় ওটিটি প্ল্যাটফর্মে৷ একেবারে সাড়া জাগায়নি সেই ছবি৷ একই অবস্থা হয় সলমনের রাধের ক্ষেত্রেও৷ অন্যদিকে গত বছর মার্চ মাস থেকে আটকে রয়েছে অক্ষয়ের ছবি সূর্যবংশির মুক্তি৷ যেহেতু ছবিতে অক্ষয় ছাড়াও রয়েছেন অন্যান্য বড় স্টার (অজয় দেবগণ, রণবীর সিং, ক্যাটরিনা কইফ)৷ তাই আপাতত ছবি মুক্তি নিয়ে কোনও উচ্চবাচ্চ্য করছেন না পরিচালক রোহিত শেট্টি৷ পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে তিনি চাইছেন না ছবি রিলিজ৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: