• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • BIGG BOSS OTT SHAMITA SHETTY AND RAQESH BAPAT BECOME NEW CAPTAINS OF THE HOUSE TC ARC

Bigg Boss OTT: বিগ বসের ঘরে নতুন ক্যাপ্টেন হলেন রাকেশ এবং শমিতা

শমিতা এবং রাকেশ

ডিজিটালে এই রিয়্যালিটি শোয়ের উত্তেজনার পারদ বেড়েই চলেছে।

  • Share this:

#Bigg Boss OTT: মাত্র কয়েকদিন আগেই ডিজিটাল মাধ্যমে শুরু হয়েছে জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো বিগ বস। টিভিতে প্রিমিয়ার হওয়ার আগেই বর্তমান মরসুমের বিগ বস ওটিটি (Bigg Boss OTT) Voot  অ্যাপে দেখা যাচ্ছে। ডিজিটালে এই রিয়্যালিটি শোয়ের উত্তেজনার পারদ বেড়েই চলেছে। ওটিটিতে বিগ বসের ঘরের সদস্যরা হলেন রাকেশ বাপট (Raqesh Bapat), শমিতা শেট্টি (Shamita Shetty), দিব্যা আগরওয়াল (Divya Agarwal), জীশান খান (Zeeshan Khan), প্রতীক সহজপাল (Pratik Sehejpal), অক্ষরা সিং (Akshara Singh), মিলিন্দ গাব্বা (Milind Gabba), নেহা ভাসিন (Neha Bhasin), উরফি জাভেদ (Urfi Javed), ঋদ্ধিমা পন্ডিত (Ridhima Pandit), করণ নাথ (Karan Nath), নিশান্ত ভাট (Nishant Bhatt) এবং মুজ জাটানা (Moose Jattana)।

বিগ বসের ঘরের পঞ্চম দিনে রান্নাঘরের কাজ নিয়ে প্রতিযোগীদের মধ্যে ঝামেলা হতে দেখা যায়। রান্নাঘরের সবজি কাটার দায়িত্বে ছিলেন জীশান খান। জীশান কাজ করার আগে দুপুরের খাবার নিয়ে জিজ্ঞাসা করাতেই নিশান্তের সঙ্গে তাঁর বিবাদ শুরু হয়। যা কাজের মান নিয়ে অক্ষরা এবং নিশান্তের মধ্যে পুরো দমে ঝগড়ার আকার নেয়। এমনকী সেই ঝগড়ায় হস্তক্ষেপ করলে অক্ষরা ঘরের অন্যান্য মানুষদের সঙ্গেও বিবাদে জড়িয়ে পড়েন। অক্ষরা এও বলেন যে একজন ভোজপুরি অভিনেত্রী হওয়ার জন্যেই তাঁকে প্রাপ্য সম্মান দেওয়া হয় না। জীশানকেও একই সময়ে উরফি এবং নিশান্তের সঙ্গে লড়াই করতে দেখা যায়।

আবার পঞ্চম দিনে নেহা ও প্রতীকের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয় যখন নেহা রান্নাঘরে তাড়াতাড়ি খাবার তৈরি করতে বলেন। সেই সময়ে নেহাকে বলতে শোনা যায় যে তাঁর যথেষ্ট ভাল কেরিয়ার রয়েছে এবং তাঁকে বিগ বসের ঘর বেরিয়ে যেতে হলেও তিনি কিছু পরোয়া করেন না, কিন্তু তাও তিনি মাত্রা অতিক্রম করবেন না বলে জানান নেহা। যদিও পরদিন প্রতীক তাঁর কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন।

এর পর শুরু হয় ঘর থেকে নিষ্কাশনের মনোনয়ন পর্ব। যেখানে উরফি মনোনীত হন কারণ তাঁর শো-তে কোনও কানেকশন নেই, আবার রাকেশ ও শমিতা আগের কাজ চলাকালীন নিজেদের মনোনীত করেন এবং দর্শক মুজ ও নিশান্তকে মনোনীত করেন।

প্রসঙ্গত, আগের দিনের পর্বে বিগ বস প্রতীক ও রাকেশকে কনফেশন রুমে পরবর্তী কাজের জন্য তাঁদের দলের অংশ হিসাবে চারজন সদস্যকে বাছতে বলেন। যেখানে প্রতীক বেছে নেন রিদ্ধিমা-করণ এবং মুসকান ও নিশান্তকে, সেখানে দিব্যা-জীশান এবং নেহা-মিলিন্দকে বেছে নেন রাকেশ । এর পরই '১২৩ স্ট্যাচু' নামের একটি খেলার বিষয়ে বর্ণনা করেন দিব্যা৷ খেলাটি ছিল, একটি দলকে অনেক সময় ধরে স্ট্যাচুর মতো পোজ করে দাঁড়াতে হবে এবং অপর দলটি তাদের বিরক্ত করবে। পুরো টাস্কের পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন উরফি। টাস্ক চলাকালীন প্রতীকের দল বালি, কাঁচালঙ্কা, লঙ্কার গুঁড়ো, ময়দা ও জল ব্যবহার করে প্রতিযোগীদের উত্যক্ত করেন। প্রথম রাউন্ডের শেষে, দিব্যা অন্য দলকে তাঁর চোখে গোলমরিচ দিতে বারণ করেন। দ্বিতীয় রাউন্ডে, ঋদ্ধিমা দুর্ঘটনাক্রমে দিব্যার চোখে ডেটল দিয়ে দেন, যার ফলে দিব্যা মেজাজ হারানোয় হইচই শুরু হয়ে যায়। যদিও ঋদ্ধিমা তাঁর কাছে ক্ষমা চান। আবার মিলিন্দ এবং নেহাও তাঁদের চোখে ডেটল দেওয়ার জন্য মুজের সঙ্গে ঝগড়া করেন।

টাস্কের দ্বিতীয় দিনে, রাকেশের টিমও প্রতিশোধ নিতে ছাড়েননি। বরফ জল থেকে শুরু করে ওয়্যাক্সিং দিয়ে প্রতিযোগীদের জায়গা থেকে সরানোর চেষ্টা-সহ কোনও কিছুতেই খামতি রাখেনি রাকেশের দল। নেহা এবং করণকে টাস্কে সব চেয়ে ভাল খেলতে দেখা যায়।

রাকেশের দলই শেষ পর্যন্ত জয়ী হয়। তবে মূলত বাড়ির বস লেডি (Boss Lady) ও বস ম্যান (Boss Man) ঠিক করার খেলাটিতে রাকেশকে বাড়ির নতুন ক্যাপ্টেন কে হবেন তা সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয়। এর পরই দিব্যা এবং জীশান বলেন যে তাঁরা টাস্কে ভালো খেলেছেন, কিন্তু রাকেশ ও শমিতা জানান যে তাঁরা মনোনীত বলে তাঁদের ইমিউনিটির প্রয়োজন রয়েছে। তবে সব শেষে শমিতা ও রাকেশ ঘরের নতুন ক্যাপ্টেন নির্বাচিত হন। তবে এই সিদ্ধান্তে খুশি হননি দিব্যা। শমিতা ও রাকেশ আগে টাস্ক ছেড়ে দিলেও অধিনায়কত্ব পেয়েছেন বলে করণ, ঋদ্ধিমা এবং জীশানের সঙ্গে দিব্যাকে আলোচনা করতে দেখা যায়। একই সঙ্গে করণকে বিশ্বাস করার সময়ে আবেগপ্রবণ হয়ে যান দিব্যা।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published: