Home /News /entertainment /
Pallavi Dey Death: পল্লবী দে-র মৃত্যু প্রসঙ্গে কী বললেন শিল্পী-বিধায়ক বাবুল সুপ্রিয়?

Pallavi Dey Death: পল্লবী দে-র মৃত্যু প্রসঙ্গে কী বললেন শিল্পী-বিধায়ক বাবুল সুপ্রিয়?

Pallavi Dey Death: অভিনেত্রী পল্লবী দে-র মৃত্যু আচমকাই যেন বজ্রাঘাতের মতো ধাক্কা দিয়েছে টেলি পাড়ায়। 'আমি সিরাজের বেগম', 'মন মানে না'-র হাত ধরে গুটি গুটি আম বাঙালির ঘরের মেয়ে হয়ে ওঠা সদা হাস্যময়ী মাত্র ২৫ বছর বয়সি মেয়েটির অকাল মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না কেউই।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    পল্লবী দে৷ বাংলা ধারাবাহিকের জনপ্রিয় মুখ৷ জীবন প্রাচুর্যে ভরপুর একটা মেয়ে৷ হয়তো মুহূর্তে বাঁচতেই বিশ্বাসী ছিলেন৷ ছোট ছোট কত না মুহূর্ত ধরে রেখেছেন সোশ্যাল মিডিয়ার দেওয়ালে৷ একের পর এক আদরমাখা অ্যালবাম! বন্ধুর সঙ্গে, প্রেমিকের সঙ্গে, পরিবারের সঙ্গে, সহকর্মীদের সঙ্গে৷ এক সেকেন্ডের জন্য হাসিছাড়া দেখা যায়নি তাঁকে৷ তাহলে কেন? কেন এমন একটা সিদ্ধান্ত? পল্লবীর মৃত্যু মেনে  নিতে পারেননি তাঁর সহকর্মীরা৷ কতটা বিষাদ জমা হলে মানুষ আত্মহত্যার মতো চরমতম সিদ্ধান্ত নিতে পারে৷ কেন চলে যায় মানুষ? কার প্রতি হতাশা? পৃথিবীর প্রতি? চারপাশের প্রতি, পারিপার্শ্বিকতার প্রতি? নাকি নিজের প্রতি৷ পল্লবীর দের মৃত্যু দু বছর আগের স্মৃতি উসকে দিল আবারও৷ যদি মানসিক অবসাদ হয়ও, সেই অবসাদের কারণ কী?

    আরও পড়ুন: দুর্গা পিতুরি লেন পর্যবেক্ষণ করলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরা, কী বললেন তাঁরা?

    মুখ খুললেন তৃণমূল বিধায়ক বাবুল সুপ্রিয়৷ তিনি শিল্পী, তাঁর আবেগও অনেকের থেকে বেশি৷ একথা তিনিই স্বীকার করেছেন৷ এবার পল্লবীর মৃত্যু প্রসঙ্গে মুখ খুললেন বাবুল সুপ্রিয়৷ তিনি লেখেন, "আমার মেয়ে আজ টরেন্টো গেছে। সেখানে বিভিন্ন বড় বড় অভিনেতার শো দেখছে। ও গায়িকা হতে চায়। বলিউডে নেপটিজম বলা হয়। কোনও স্টারের ছেলে মেয়ে হলে একটা সুযোগ পেতে পারে। তার পরে কিন্তু সহজে কিছু পাওয়া যায়না। চারিদিকে যা দেখছি তাতে শুধু জিমে গিয়ে মাসেল তৈরি করলে হবে না। মানসিক ভাবে মাথায় মাসেল তৈরি করতে হবে। সেটা না থাকলে কম্পিটিটিভ ফিল্ডে আসা উচিত না। এর পিছনে সমাজেরও দোষ রয়েছে। এর আসে পাশে যারা থাকছে তারা দীর্ঘদিন ধরে জানছে যে এর একটু মানসিক অবসাদ চলছে। এই বিষয়ে আশেপাশের মানুষদের একটু সচেতন থাকা উচিত। এই যে একটা ট্যাবু যে সিক্রাটিস্ট এর কাছে যাওয়া এটা সমাজকে মেনে নিয়ে সাধারণ ভাবে সচেতন হতে হবে।"

    অভিনেত্রী পল্লবী দে-র মৃত্যু আচমকাই যেন বজ্রাঘাতের মতো ধাক্কা দিয়েছে টেলি পাড়ায়। 'আমি সিরাজের বেগম', 'মন মানে না'-র হাত ধরে গুটি গুটি আম বাঙালির ঘরের মেয়ে হয়ে ওঠা সদা হাস্যময়ী মাত্র ২৫ বছর বয়সি মেয়েটির অকাল মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না কেউই। এরইমধ্যে রহস্যময় এই মৃত্যুর ঘটনা নতুন মোড় নিয়েছে সোমবার। পল্লবীর পরিবারের তরফে খুনের মামলা দায়ের হয়েছে তাঁর বয়ফ্রেন্ড ও লিভ ইন পার্টনার সাগ্নিক ও অপর বান্ধবীর বিরুদ্ধে

    Published by:Rachana Majumder
    First published:

    Tags: Babul Supriya, Pallavi dey

    পরবর্তী খবর