Home /News /education-career /
Primary TET Scam: '১০, ১৫, ২০ লক্ষ টাকা নেওয়ার' অভিযোগ! প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতে FIR করল CBI, নাম আছে চন্দনের

Primary TET Scam: '১০, ১৫, ২০ লক্ষ টাকা নেওয়ার' অভিযোগ! প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতে FIR করল CBI, নাম আছে চন্দনের

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে সিবিআই তদন্ত শুরু

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে সিবিআই তদন্ত শুরু

Primary TET Scam: কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার (CBI) দায়ের করা এই এফআইআরে নাম রয়েছে চন্দন মণ্ডলের। যাকে খুব শীঘ্রই তলব করা হতে পারে বলে সিবিআই সূত্রে খবর।

  • Share this:

#কলকাতা: এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে তদন্ত চলছে। এরই মাঝে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে তদন্ত শুরু করল সিবিআই। কলকাতার পূর্বাঞ্চলীয় সিবিআই-এর দুর্নীতি দমন শাখা বৃহস্পতিবার প্রাথমিকে নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে এফআইআর করল। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে এই এফআইআর বলে সিবিআই সূত্রে খবর। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার দায়ের করা এই এফআইআরে নাম রয়েছে চন্দন মণ্ডলের। যাকে খুব শীঘ্রই তলব করা হতে পারে বলে সিবিআই সূত্রে খবর (Primary TET Scam)।

আরও পড়ুন: উচ্চ মাধ্যমিক ফল প্রকাশ আজ! একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা, জানা যাবে আগামী বছরের পরীক্ষাসূচি?

তদন্তকারী সংস্থার দাবি, এই দুর্নীতিতেও ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত রয়েছে, যাতে অনেকেই জড়িত। প্রসঙ্গত সৌমেন নন্দী নামে এক চাকরিপ্রার্থী প্রাথমিক নিয়োগে দুর্নীতি নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। তাঁর অভিযোগ, ৮৭জনকে বেআইনিভাবে নিয়োগ করা হয়েছে। এই মামলাতেই উঠে এসেছে চন্দন মণ্ডলের নাম। যিনি বাগদার মামাভাগিনা গ্রামের বাসিন্দা। পেশায় প্রাথমিক স্কুলের প্যারা টিচার। টাকা নিয়ে বহু মানুষকে স্কুলে চাকরি পাইয়ে দিয়েছেন বলে যার বিরুদ্ধে অভিযোগ।

উল্লেখ্য, এই চন্দনকে (Chandan Mandal) নিয়েই বছরখানেক আগে একটি ভিডিও বার্তা পোস্ট করেছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা সিবিআইয়ের প্রাক্তন যুগ্ম অধিকর্তা উপেন বিশ্বাস। যদিও তাঁর পোস্টে চন্দনের নাম ছিল না। সেখানে চন্দনের কাল্পনিক নাম হিসেবে 'রঞ্জন' নাম উল্লেখ করেছিলেন উপেন বিশ্বাস। তাই এই মামলায় উপেন বিশ্বাসকেও যুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট (Primary TET Scam)। তবে চন্দনকে প্রয়োজনে হেফাজতে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। আর আদালতের সেই নির্দেশ মেনে এফআইআর করল সিবিআই।

আরও পড়ুন: আজও বৃষ্টি বাংলার এই জেলাগুলিতে! দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা ঢুকবে কবে? রাজ্যের আবহাওয়ার বড় Update

২০১৪ সালে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের যোগ্যতা মান নির্ধারক পরীক্ষা হয়েছিল। যে ৮৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা ওই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হয়েই চাকরি পেয়েছেন। সূত্রের খবর, প্রাথমিকে (Primary TET Scam) ১০ লক্ষ, উচ্চ প্রাথমিকে ১৫ লক্ষ, হাইস্কুলে চাকরি ক্ষেত্রে ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্তে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। এই বিষয়টি নিয়ে হাইকোর্টেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। তারপরই সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে এফআইআর করে তদন্ত শুরু করতে চলেছে সিবিআই। সূত্রের খবর, এই দুর্নীতিতে যুক্তদের ডেকে বয়ান নেওয়া হবে।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Primary Teacher Recruitment, SSC TET

পরবর্তী খবর