Home /News /education-career /
স্কুলগুলি থেকে শূন্য পদের তালিকা তলব শিক্ষা দফতরের, বাংলায় এবার বিপুল চাকরির সুযোগ

স্কুলগুলি থেকে শূন্য পদের তালিকা তলব শিক্ষা দফতরের, বাংলায় এবার বিপুল চাকরির সুযোগ

শূন্য পদের তালিকা তলব শিক্ষা দফতরের

শূন্য পদের তালিকা তলব শিক্ষা দফতরের

প্রত্যেকটি জেলার স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকদের থেকে শূন্য পদের তালিকা শুক্রবারের মধ্যেই পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যের স্কুলগুলি থেকে ফের শূন্য পদের তালিকা চাইল রাজ্য। শূন্য পদের তালিকা চেয়ে নির্দেশিকা দিয়েছে রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দফতর। প্রত্যেকটি জেলার স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকদের থেকে শূন্য পদের তালিকা শুক্রবারের মধ্যেই পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে উচ্চ প্রাথমিক স্তরে অর্থাৎ পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত কত শূন্যপদ রয়েছে তার বিস্তারিত তালিকা তলব করেছে শিক্ষা দফতর। এই শূন্য পদ তালিকা আকারে পাঠাতে বলা হয়েছে বিদ্যালয় পরিদর্শকদের। রাজ্যে গত আট বছর ধরে উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ-জটিলতা তৈরি হয়েছে। আটকে গিয়েছে চাকরি প্রদান। সেই জটিলতা কাটাতেই সম্ভবত শূন্য পদের তালিকা চেয়েছে শিক্ষা দফতর। উচ্চ প্রাথমিকের শূন্যপদের তালিকা তলবের পরই চাকরির সুযোগ হতে চলেছে বলে জল্পনা শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন: উচ্চ মাধ্যমিকে অনলাইন নাম তোলার সময় ভাগ সংসদের, জেলা ও কলকাতার নিয়ম জানুন

গত আট বছর ধরে উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ-জটিলতা রয়েছে। এই শূন্য পদের তালিকাই শুক্রবার তলব করা হয়েছে। সূত্রের খবর, ফের রাজ্যজুড়ে উচ্চ প্রাথমিকে কত শূন্য পদ রয়েছে তা চাওয়ার কারণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে বদলি। যেহেতু উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি ৮ বছর আগে দেওয়া হয়েছিল, সেক্ষেত্রে তখন যে শূন্য পদগুলি তৈরি হয়েছিল এবং তারপর একাধিক সময় শিক্ষকদের বিভিন্ন স্কুল জুড়ে বদলি হয়েছে। গত বছর অগাস্ট মাসের পর থেকে উৎসশ্রী পোর্টাল চালু হওয়ার পরে প্রায় কুড়ি হাজার শিক্ষক বদলি হয়েছেন।

আরও পড়ুন: ঝালমুড়ি, ঘুগনি বিক্রি করছেন বিজেপি বিধায়করা! বিধানসভার বাইরের দৃশ্য দেখে অবাক আমজনতা

এর জেরে সেই সময় যে স্কুলগুলিতে শূন্য পদের কথা উল্লেখ করা হয়েছিল সেই স্কুলগুলিতে শূন্য পদ আদতেও এখন বর্তমান রয়েছে না কি তার পরিস্থিতি জানতেই এই তালিকা ফের চাওয়া হয়েছে বলে স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর। সেক্ষেত্রে উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে তৎপরতা শুরু করেছে স্কুল সার্ভিস কমিশন। আর তাই শূন্য পদ গুলি সেই স্কুলগুলিতে রয়েছে না কি, তা নিশ্চিত হতে চায় শিক্ষা দফতর।

Published by:Raima Chakraborty
First published:

Tags: Bratya Basu, Mamata Banerjee, School Education, School Education Department

পরবর্তী খবর